[Valid RSS]
June 25, 2022, 4:09 am
Headlines
EU’s next potential sanctions target revealed Forging High-quality Partnership For a New Era of Global Development : Xi Jinping পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে ১০০ টাকা মূল্যমানের স্মারক নোট ২৪ জুন এক নজরে বাংলাদেশ পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির বাণী  Pentagon unveils new Ukraine weapons shipment Germany warns entire industries could stop due to gas shortage ২৪ জুন কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন Japan wants more people-to-people cultural bond with Bangladesh হাওর এলাকার আশংকাজনকহারে জলাভূমি হ্রাস বন্যার ভয়াবহতা বাড়িয়ে দিচ্ছে : আইপিডি PM to open Padma Bridge on June 25  EU and NATO forming coalition ‘for war against Russia’ : Lavrov President, PM greet all involved with Padma Bridge project অবিলম্বে দেশে ভোজ্যতেলের দাম সমন্বয়ের দাবি ক্যাব এর ২১ জুন এক নজরে বাংলাদেশ ২৩ জুন কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন AL means independence, developed Bangladesh: PM  imo steps in to facilitate flood victims LafargeHolcim signs agreement with Swisscontact Bangladesh to support waste management in MSMEs তামাকের দাম বাড়াতে মন্ত্রিপরিষদ সচিবকে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ ৯৭ সাংসদের
Treanding
EU’s next potential sanctions target revealed Forging High-quality Partnership For a New Era of Global Development : Xi Jinping পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে ১০০ টাকা মূল্যমানের স্মারক নোট ২৪ জুন এক নজরে বাংলাদেশ পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির বাণী  Pentagon unveils new Ukraine weapons shipment Germany warns entire industries could stop due to gas shortage Japan wants more people-to-people cultural bond with Bangladesh হাওর এলাকার আশংকাজনকহারে জলাভূমি হ্রাস বন্যার ভয়াবহতা বাড়িয়ে দিচ্ছে : আইপিডি EU and NATO forming coalition ‘for war against Russia’ : Lavrov অবিলম্বে দেশে ভোজ্যতেলের দাম সমন্বয়ের দাবি ক্যাব এর ২১ জুন এক নজরে বাংলাদেশ imo steps in to facilitate flood victims LafargeHolcim signs agreement with Swisscontact Bangladesh to support waste management in MSMEs তামাকের দাম বাড়াতে মন্ত্রিপরিষদ সচিবকে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ ৯৭ সাংসদের Prerona Foundation-Bengal Meat collaborates NATO chief ‘cannot guarantee’ membership for Finland and Sweden Energypac Sponsors 4th Dhaka Automotive Show 2022 Putin’s Global Ratings Drop to 20-Year Low : Pew Australian envoy expects Padma Bridge to enhance regional growth

২১ জুন এক নজরে বাংলাদেশ

Bangladesh Beyond
  • Updated on Tuesday, June 21, 2022
  • 49 Impressed

২১ জুন এক নজরে বাংলাদেশ

 

সমন্বয় করে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম জোরদার করার তাগিদ দিলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী

 

সিলেট, ৭ আষাঢ় (২১ জুন) :

 

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেছেন, বন্যাদুর্গত মানুষের পাশে দাঁড়াতে সমন্বয় করে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম জোরদার করা দরকার। তিনি বলেন, দুর্গত মানুষকে উদ্ধার ও ত্রাণ কাজে ইতিমধ্যে সেনাবাহিনীসহ বিভিন্ন সরকারি সংস্থা একসঙ্গে কাজ করে ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা করে সহায়তা দেওয়া হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

                                             

আজ সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা প্রশাসন ও আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় সভায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন, সরকারি সংস্থার পাশাপাশি আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা বন্যার্তদের পাশে দাঁড়িয়েছে। এসময় মন্ত্রী বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তাঘাট ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তালিকা প্রস্তুত করার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন।

 

এর আগে মঙ্গলবার বিকেলে মন্ত্রী জৈন্তাপুর উপজেলার আব্দুল লতিফ-জুলেখা বালিকা বিদ্যালয়ের আশ্রয়কেন্দ্রে বন্যাদুর্গদের খোঁজখবর নেন। বিজিবি’র একটি টিম সেখানে চিকিৎসা সহায়তা দিচ্ছিলেন। মন্ত্রী এ সময় বিজিবি’র দায়িত্বশীল কর্মকর্তাদের সাথে আলাপ করেন এবং তাদেরকে বন্যাদুর্গতদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য ধন্যবাদ জানান। 

 

সুস্থতা এবং শরীরকে ফিট রাখার জন্য ইয়োগা অনুসরণের গুরুত্ব বেড়েছে : ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

 

গজারিয়া (মুন্সিগঞ্জ), ৭ আষাঢ় (২১ জুন) :

 

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মোঃ ফরিদুল হক খান বলেছেন, প্রাচীন ভারতে মানুষ আত্মিক এবং আধ্যাত্মিক বিকাশের জন্য ইয়োগা অনুশীলন করতো। বর্তমানে নানামুখী অস্থিরতার কারণে সুস্থতা এবং শরীরকে ফিট রাখার জন্য ইয়োগা অনুসরণের গুরুত্ব বেড়েছে।

 

প্রতিমন্ত্রী আজ হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয় অডিটোরিয়ামে (গজারিয়া) ৮ম আন্তর্জাতিক ইয়োগা দিবস উপলক্ষ্যে হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

 

প্রতিমন্ত্রী  বলেন, ২০২২ সালের আন্তর্জাতিক যোগ দিবসের প্রতিপাদ্য হলো ‘মানবতার জন্যে ইয়োগা’। করোনা ভাইরাস মহামারির সময় মানুষকে সুস্থ ও নিরাপদ রাখতে যোগ ব্যায়াম কতটা সাহায্য করেছিল সেটাও এই থিমের মাধ্যমে তুলে ধরা হয়েছে।

 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, একজন মানুষ নিজের বিচার, বুদ্ধি, বিবেক এর সঠিক ব্যবহার করার নিয়মগুলো ইয়োগার মাধ্যমে জানতে পারে। ইয়োগা শেখায় অহিংসা, সত্য, অন্যের সম্পদে লোভ না করা, সংযম এবং প্রয়োজনের অতিরিক্ত মজুত না করা। মূল্যবোধের শিক্ষাগুলো ইয়োগা প্রতিদিনের জীবনযাপনের ব্যবহারিক কাজকর্মের মধ্য দিয়ে  শিখিয়ে দেয়।

 

জাতীয় অধ্যাপক ও ডায়াবেটিক এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ এর সভাপতি ডক্টর এ কে আজাদ খান এর  সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক ডা. প্রাণ গোপাল দত্ত, এমপি, হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ এর ভাইস চ্যান্সেলরপ্রফেসর ড. মোহাম্মদ আমানুল্লাহ।

 

অনুষ্ঠানে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক শিক্ষার্থী যোগ ব্যায়াম অনুশীলনে অংশগ্রহণ করেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে বন্যাদুর্গতদের জন্য ত্রাণ সহায়তা হস্তান্তর করেছে

বাংলাদেশ প্রাইভেট মেডিকেল কলেজ এসোসিয়েশন এবং বাংলাদেশ ফরেন সার্ভিস এসোসিয়েশন

 

ঢাকা, ৭ আষাঢ় (২১ জুন) :

 

সিলেটের বন্যাদুর্গত মানুষের জন্য সিলেট-১ আসনের সংসদ সদস্য ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে ত্রাণ সহায়তা হস্তান্তর করেছে বাংলাদেশ প্রাইভেট মেডিকেল কলেজ এসোসিয়েশন (বিপিএমসিএ) এবং বাংলাদেশ ফরেন সার্ভিস এসোসিয়েশন।

 

আজ বিকালে ঢাকাস্থ রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় আনুষ্ঠানিকভাবে এই ত্রাণ সহায়তা হস্তান্তর করা হয়। বিপিএমসিএ সভাপতি এম এ মুবিন খান এসোসিয়েশনের পক্ষ হতে ত্রাণ সহায়তা হিসেবে ৫০ হাজার ব্যাগ শুকনা খাবারের প্রতীকী প্যাকেট হস্তান্তর করেন যার মোট মূল্য ২০ লাখ টাকা। ত্রাণের এসব ব্যাগে চাল, ডাল, চিড়া, তেল, লবণ, চিনি, গুঁড়ো দুধ, খাবার স্যালাইন, পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট-সহ ১৫টি আইটেম রয়েছে এবং এগুলো ইতিমধ্যে সিলেটে প্রেরণ করা হয়েছে বলে বিপিএমসিএ সভাপতি জানিয়েছেন। এছাড়া বাংলাদেশ ফরেন সার্ভিস এসোসিয়েশনের সভাপতি সাব্বির আহমেদ চৌধুরী এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে সিলেটের বন্যাদুর্গত মানুষের ত্রাণ সহায়তার জন্য পররাষ্ট্রমন্ত্রীর নিকট ৫ লাখ টাকার চেক হস্তান্তর করেন।

 

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এসময় বাংলাদেশ প্রাইভেট মেডিকেল কলেজ এসোসিয়েশন এবং বাংলাদেশ ফরেন সার্ভিস এসোসিয়েশনের এই মহতী উদ্যোগের জন্য ধন্যবাদ জানান। পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ সময় বলেন, সিলেট অঞ্চলে এবারের বন্যা অত্যন্ত প্রলয়ঙ্করী। তবে সরকারের পক্ষ হতে পর্যাপ্ত ত্রাণ পাঠানো হয়েছে এবং যথেষ্ট পরিমাণে ত্রাণ সামগ্রী মজুদ রয়েছে। তিনি বলেন, পর্যাপ্ত নৌযান না থাকায় মানুষকে আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে আসা এবং তাদের কাছে ত্রাণ পৌঁছাতে অনেক বেগ পেতে হচ্ছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনী, পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা স্থানীয় প্রশাসনের সাথে সমন্বয় করে বন্যাদুর্গতদের জন্য সার্বক্ষণিক কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি বলেন, সরকারের পাশাপাশি আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরা এবং অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের লোকজন মানুষের সেবায় কাজ করে যাচ্ছেন।

 

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশ প্রাইভেট মেডিকেল কলেজ এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে মেডিকেল টিম পাঠানোর উদ্যোগের জন্যেও তাদের প্রতি ধন্যবাদ জানান।

 

সত্যিকারের মানুষ হতে হলে শুধু পুথিগত জ্ঞানই যথেষ্ট নয়: শিক্ষামন্ত্রী

 

ঢাকা, ৭ আষাঢ় (২১ জুন) :

 

          সত্যিকারের মানুষ হতে হলে শুধু পুথিগত জ্ঞান যথেষ্ট নয় বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি আজ চলতি বছরের দেশসেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সেরা শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তাদের আনুষ্ঠানিকভাবে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে শিক্ষক, শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে এ কথা জানান।

 

          রাজধানীর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনয়তনে শিক্ষা সপ্তাহ ২০২২ উপলক্ষ্যে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ভার্চুয়াল মাধ্যমে যুক্ত ছিলেন। আর অনুষ্ঠানে সরাসরি উপস্থিত থেকে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী সেরাদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

 

          এ বছর দেশসেরা বিদ্যালয় হয়েছে রাজশাহীর সরকারি পি এন (প্রমথ নাথ) বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়।  আর কলেজ পর্যায়ে দেশসেরা নির্বাচিত হয়েছে ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজ। এছাড়া কারিগরিতে দেশসেরা হয়েছে রংপুর টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ।  গত ৫-৬ জুন কেন্দ্রীয়ভাবে রাজধানীতে চূড়ান্ত প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। এতে ১৫ ক্যাটাগরিতে সাংস্কৃতিক কারিকুলামসহ মোট ২১৩ জনকে ২০২২ সালের বর্ষসেরা ঘোষণা করা হয়।

 

          অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে শিক্ষার্থীদের উৎসাহিত করা শিক্ষার গুণগত মান অর্জন করা যায়। জাতির পিতার যে শিক্ষা ভাবনা, তাতে তিনি কী মানুষ চেয়েছিলেন? বঙ্গবন্ধুর চাওয়া অনুযায়ী শুধু কেরানি তৈরি করার শিক্ষা ব্যবস্থা ভেঙে দিয়ে স্বাধীন দেশের স্বাধীন মনের মানুষ তৈরি করার চেষ্টা করছি।  আমরা চাই শিক্ষার মাধ্যমে আত্মবিশ্বাসী বিজ্ঞান মনস্ক মানুষ তৈরি হবে।  প্রযুক্তিবান্ধব মানুষ হবে, মানবিক গুণাবলী সমৃদ্ধ মানুষ হবে।  একে অন্যের পাশে দাঁড়াবে এমন মানুষ তৈরি হবে।  সত্যিকারের সোনার মানুষ হতে হলে পুথিগত  জ্ঞানই যথেষ্ট নয়। নিশ্চয় আমরা জ্ঞান অর্জন করবো।  শুধু বইয়ে যা পড়ছি সেই দক্ষতা তা নয়, সফট স্কিলসহ নানা ধরনের দক্ষতা অর্জন করবো।’

 

          রাজধানীর বাইরে অনেক প্রতিষ্ঠান, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা সেরা নির্বাচিত হয়েছেন।  এ প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘সব ভালো ঢাকার মধ্যে রয়েছে তা ঠিক নয়। তা বুঝবার সময় এসেছে।   সারাদেশে বহু ঐতিহ্যবাহী প্রতিষ্ঠান রয়েছে।  সারাদেশের অনেক প্রতিষ্ঠানে অনেক মেধবী শিক্ষক রয়েছেন,  যারা প্রচণ্ড পরিশ্রম করছেন, শিক্ষার্থীদের ভালো শিক্ষার্থী তৈরি করার জন্য।

 

          অনুষ্ঠানে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মোঃ আবু বকর ছিদ্দীক, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমেদসহ সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

দুর্যোগে আওয়ামী লীগই মানুষের পাশে থাকে : তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী

 

ঢাকা, ৭ আষাঢ় (২১ জুন) :

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেছেন, ‘দুর্যোগে আওয়ামী লীগই মানুষের পাশে থাকে। এটি আমাদের দলের একটি কালচার, একটা রীতি, কারণ রাজনীতি তো দেশ ও মানুষ সেবার জন্যই। আমরা যখন ক্ষমতায় ছিলাম না তখনও আমরা মানুষের পাশে ছিলাম।’

আজ প্রধানমন্ত্রীর সাথে সিলেট-সুনামগঞ্জ-নেত্রকোণায় বন্যাপ্লাবিত এলাকা পরিদর্শন শেষে বিকেলে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করেন মন্ত্রী। ড. হাছান বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী মানবতার মা। তিনি ছুটে গেছেন, সেখানে ত্রাণ তৎপরতায় রত প্রশাসন ও আমাদের দলীয় নেতৃবৃন্দকে উৎসাহ দিয়েছেন, নির্দেশনা দিয়েছেন। স্বস্তির কথা হচ্ছে, আজকে সেখানে কোনো বৃষ্টি হয়নি। আগের তুলনায় বন্যা পরিস্থিতির অনেক উন্নতি হয়েছে। কোনো কোনো জায়গায় ৪-৫ ফুট পানি নেমে গেছে। প্রধানমন্ত্রী সিলেটের প্রধান নদীগুলো ড্রেজিং করার নির্দেশনা দিয়েছেন কারণ পলি জমার কারণে নদীর ক্যারিং ক্যাপাসিটি বা নাব্যতা কমে গেছে।’

ড. হাছান বলেন, ‘আপনারা জানেন যে, ১৬ তারিখে সিলেটে বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হওয়ার পর সেদিন সকালেই প্রধানমন্ত্রী সাথে সাথে ত্বরিত ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন, সিভিল প্রশাসন, সেনাবাহিনী এবং অন্যান্য নিরাপত্তা বাহিনীকে কাজে লাগিয়েছেন এবং একইসাথে আমাদের দলের নেতাকর্মীকে ঝাঁপিয়ে পড়ার জন্য আদেশ দিয়েছেন। আজকে আমরা গিয়ে সরেজমিনে দেখলাম এবং স্থানীয়রা তাদের অভিব্যক্তিতে জানালেন যে, প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সাথে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করছে।’

‘আমাদের দলের নেতাকর্মীরা নিজেরা পানির মধ্যে থেকেও মানুষের জন্য ঝাঁপিয়ে পড়েছে’ উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে প্রশাসন, সেনাবাহিনী, পুলিশ, বিজিবি এবং আমাদের দলীয় নেতাকর্মী সবাই সম্মিলিতভাবে বন্যার্ত মানুষকে উদ্ধার করা, খাবার পৌঁছানোর কাজগুলো করেছে। সিলেটে আমাদের একজন নেতা জানিয়েছেন যে, তার নিচের তলা পানিতে ডুবে গেছে, দোতলায় নিজেরা উঠেছে এবং তিনতলায় সমস্ত মানুষকে আশ্রয় এবং খাবার দিচ্ছে। সেনাবাহিনীর জিওসি বলেছেন যে, বন্যার মধ্যে জায়গা চেনা যাচ্ছে না কারণ হাওড়ের মধ্যে কোথায় রাস্তা ছিলো সব মিলিয়ে গেছে, এমনকি দ্বীপ পর্যন্ত চিহ্নিত করা যায় না। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা এবং আমাদের নেতাকর্মীরা তাদেরকে গাইড করেছে। সুনামগঞ্জের ডিসি, এডিসি একটি নৌকা ঠেলে এক প্রসূতি মা, তার স্বামী আর একজন মহিলাকে ডিসির অফিসে এনেছেন। সেখানে সন্তানের জন্ম হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী তার নাম রেখেছেন প্লাবন।’

বন্যা নিয়ে বিএনপির বিভিন্ন মন্তব্য বিষয়ে প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী যখন সিলেটের মেয়রকে তার দলের কাছ থেকে কী পেয়েছে জিজ্ঞাসা করলেন, তিনি কিছু বলতে পারলেন না। কারণ তার দল বিএনপির পক্ষ থেকে কিছুই করা হয় নাই, তাদের নেতাদের খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। ঢাকায় বসে বসে তারা লম্বা লম্বা বক্তব্য দেয়, বাকবাকুম করে, ওখানে তাদের খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তারা জানেই না যে, সিলেট অঞ্চলের সব মন্ত্রী এবং এমপি তাদের এলাকায় গেছেন। শুধু করোনাক্রান্ত বলে পরিকল্পনামন্ত্রী ঢাকায় রয়েছেন।’

আর রিজভী সাহেবের ‘প্রধানমন্ত্রীর কারণে বন্যা’ এমন উদভ্রান্তের মতো বক্তব্যে মনে হচ্ছে, তার ভাষায় আসামের চেরাপুঞ্জিতে ১২২ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ এবং সিলেট অঞ্চলে ১০০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাতের জন্যও প্রধানমন্ত্রী দায়ী। তার কথায় তো তাই দাঁড়ায়। সবকিছুতে সরকারকে দায়ী করার বাতিকের কারণে তারা আসলে কোথায় কী বলবে বুঝতে পারে না।’

বন্যা দুর্যোগের মধ্যেও সাংবাদিক নামধারী কেউ কেউ অপসাংবাদিকতায় লিপ্ত উল্লেখ করে সম্প্রচারমন্ত্রী বলেন, ‘সাংবাদিক নামধারী কেউ কেউ ঢাকায় বসে বসে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে, ইউটিউবে নানা ধরনের অপপ্রচার চালাচ্ছে। করোনার সময়, পদ্মা সেতুর ভিত্তিস্থাপন ও নির্মাণ কাজ শুরুর সময়েও এটি হয়েছে, এখনও হচ্ছে। বন্যাদুর্গত জনগণ এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। মূলধারার গণমাধ্যমগুলো আগে যেমন এ ধরনের অপপ্রচারের বিরুদ্ধে সোচ্চার ছিলেন এখনও সোচ্চার থাকার জন্য অনুরোধ জানাই।’

 

দ্বিতীয়বার করোনায় আক্রান্ত হলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ৭ আষাঢ় (২১ জুন) :

          সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ দ্বিতীয়বারের মতো কোভিড-১৯ -এ আক্রান্ত হয়েছেন।

          প্রতিমন্ত্রীর করোনার লক্ষণ দেখা দিলে পরীক্ষার জন্য আজ সরকারি কর্মচারী হাসপাতালে নমুনা জমা দেয়া হয়। পরে আরটি-পিসিআর টেস্টে তাঁর করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে।

          প্রতিমন্ত্রী করোনার উপসর্গ নিয়ে ঢাকায় নিজ সরকারি বাসায় আইসোলেশনে রয়েছেন।

          উল্লেখ্য, চলতি বছরের ২৭ জানুয়ারি সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন এবং ৩০ জানুয়ারি থেকে ৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

 

বন্যায় দেশে খাদ্য ঘাটতি হবে না: খাদ্যমন্ত্রী

নওগাঁ, ৭ আষাঢ় (২১ জুন) :

          চলমান বন্যা পরিস্থিতিতে দেশে খাদ্য ঘাটতি হবে না বলে জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার। আজ নওগাঁয় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

          মন্ত্রী বলেন, দেশে এখনও ১৬ লাখ মেট্রিকটন ধানচাল মজুত আছে। তারপরও আমাদের সংগ্রহ চলছে। এছাড়া  তেমন কোনো অবস্থা দেখলে আমরা চাল আমদানি করবো। প্রধানমন্ত্রী ইতিমধ্যে জিরো ট্যাক্সে বেসরকারিভাবে চাল আমদানির অনুমতি দিয়েছেন।

          সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, ১০০ বছরের মধ্যে এরকম বৃষ্টিপাত হয় নাই। এই কারণে সুনামগঞ্জ এবং সিলেটে বন্যা হয়েছে। দীর্ঘ দিন পর এবার বন্যা হয়েছে। দেশে আরো বন্যা হতে পারে। এ জন্য আমরা প্রস্তুত রয়েছি।

          মন্ত্রী আরো বলেন, ধান কাটার আগেও কিছুটা বন্যা হয়েছিল তা আমরা কাটিয়ে উঠেছি। সে সময় ধানের কিছুটা ক্ষতি হয়েছিল। তবে মাঠে এখন তেমন ফসল নেই। কিছু পরিমাণে আউশ ধান ছিল। সরকারি খাদ্য গুদামে যে পরিমাণ মজুত রয়েছে দেশে খাদ্যের কোনো ঘাটতি হবে না।

          এ সময় জেলা প্রশাসক খালিদ মেহেদী হাসানসহ প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

 

নির্যাতন ও সহিংসতা নারীর উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে বাধাগ্রস্ত করছে: ম‌হিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী

 

কিগালি (রুয়ান্ডা), ২১ জুন :

নারীর প্রতি নির্যাতন ও সহিংসতা নারীদের সকল ধরনের অগ্রযাত্রাকে বাধাগ্রস্ত করছে বলে জানিয়েছেন ম‌হিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফ‌জিলাতুন নেসা ইন্দিরা। তিনি ব‌লে‌ন, বেশিরভাগ ক্ষেত্রে পরিবার থেকেই সহিংসতার ঘটনা ঘটছে। বাংলাদেশ সরকার জেন্ডারভিত্তিক সহিংসতা প্রতিরোধ করতে বদ্ধপরিকর।

প্রতিমন্ত্রী আজ রুয়ান্ডার রাজধানী কিগালিতে অনুষ্ঠিত ৩য় কমনওয়েলথ উইমেন্স ফোরামের দ্বিতীয় দিনে ‘এনগেজিং মেন এন্ড বয়েজ: এন্ডিং ভায়োলেন্স এগেইনিস্ট উইমেন এন্ড গার্লস’ সেশনে আলোচনায় অংশ নিয়ে এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, নারীর প্রতি সহিংসতা নির্ভর করে সামাজিক অবস্থা ও মূল্যবোধের ওপর। নারী নির্যাতন ও সহিংসতা  বন্ধ করতে সরকারের সাথে বেসরকারি সংস্থা, উন্নয়ন সহযোগী, নাগরিক সমাজ, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, জনপ্রতিনিধি ও গণমাধ্যম সকলকে একসাথে কাজ করতে হবে।

 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার নারী ও শিশুর নিরাপত্তা নিশ্চিত, সহিংসতা প্রতিরোধ এবং আইনি সহায়তা পাওয়ার সুযোগ সৃষ্টি করতে বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহণ করছে। এলক্ষ্যে সরকার পারিবারিক সহিংসতা প্রতিরোধ ও সুরক্ষা আইন, বাল্যবিয়ে নিরোধ আইন, যৌতুক নিরোধ আইন, ডিএনএ আইন এবং  নারী ও শিশু নির্যাতন দমন (সংশোধন) আইন, ২০২০ প্রণয়ন করেছে। নারী ও শিশু নির্যাতন বিচার ট্রাইবুনালের সংখ্যা বৃদ্ধি ও ডিজিটাল ব্যবস্থায় নারীদের নিরাপত্তার জন্য সাইবার সিকিউরিটি ট্রাইব্যুনাল স্থাপন করা হয়েছে। সংশোধিত শিশু নির্যাতন দমন আইনে অভিযুক্ত ব্যক্তি এবং অপরাধের শিকার ব্যক্তির ডিএনএ পরীক্ষা বাধ্যতামূলক এবং ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি ‘মৃত্যুদণ্ড’ করা হয়েছে। আইনের কঠোর বাস্তবায়নের মাধ্যমে অপরাধীদের শাস্তি দ্রুত নিশ্চিত হচ্ছে।

প্রতিমন্ত্রী ইন্দিরা ব‌লে‌ন, নারী নির্যাতন ও সহিংসতা প্রতিরোধে বাংলাদেশের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার, সেল ও ট্রমা হেল্প সেন্টারকে উত্তম চর্চা হিসেবে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ অনুসরণ করছে। আট হাজার কিশোর-কিশোরী ক্লাবের মধ্যমে সমাজে ইতিবাচক পরিবর্তন সৃষ্টি করতে সহিংসতা, বাল্যবিয়ে ও যৌতুক রোধ বিষয়ে কিশোর-কিশোরীদের প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে।

‘এনগেজিং মেন এন্ড বয়েজ: এন্ডিং ভায়োলেন্স এগেইনিস্ট উইমেন এন্ড গার্লস’ সেশনে ক্যামেরূনের সার্ভাইভারস ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক Awah Francisca Mbuli, ওয়েলবিং ফাউন্ডেশন আফ্রিকার পরিচালক Toyin Ojora Saraki, সিচেলিসের যুব ও ক্রিড়া মন্ত্রী Celine Zialor, দক্ষিণ আফ্রিকার Bafana Khumalo ও কানাডার হিউম্যান রাইটস ইনিশিয়েটিভের পরিচালক Sneh Aurora সহ কমনওয়েলথভুক্ত বিভিন্ন দেশের মন্ত্রী ও প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

 

সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আওতাধীন দপ্তর ও সংস্থাসমূহের এপিএ স্বাক্ষর এবং শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রদান

ঢাকা, ৭ আষাঢ় (২১ জুন) :

          সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে এর আওতাধীন দপ্তর ও সংস্থাসমূহের ২০২২-২৩ অর্থবছরের এপিএ (বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি) স্বাক্ষর এবং সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক ২০২১-২২ অর্থবছরের জন্য শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে।

          আজ সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ আবুল মনসুর। প্রতিমন্ত্রীর পক্ষে সংস্কৃতি সচিব মোঃ আবুল মনসুর এবং দপ্তর ও সংস্থার পক্ষে দপ্তর ও সংস্থার প্রধানগণ এপিএ চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

          প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সংস্কৃতি সচিব বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে সরকার একটি উন্নত ও সুখী-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে চায়। এ সুখী-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার অন্যতম নিয়ামক হচ্ছে সংস্কৃতি। শুধু অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি দিয়ে সোনার বাংলা গড়া সম্ভব নয়, সংস্কৃতিও এক্ষেত্রে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। তিনি বলেন, সংস্কৃতি নিয়ে অনেক কাজ হচ্ছে। কিন্তু সেগুলো বিক্ষিপ্তভাবে হচ্ছে। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় সেগুলোকে একসাথে জড়ো করে সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য ও পরিকল্পনা অনুযায়ী গুছিয়ে করতে চায়।

          সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে এপিএ স্বাক্ষরকারী ১৭টি দপ্তর ও সংস্থা হচ্ছে যথাক্রমে বাংলা একাডেমি, প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি, গণগ্রন্থাগার অধিদপ্তর, বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর, আরকাইভস ও গ্রন্থাগার অধিদপ্তর, কবি নজরুল ইনস্টিটিউট, বাংলাদেশ কপিরাইট অফিস, জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্র, বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশন, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর কালচারাল একাডেমি, বিরিশিরি, নেত্রকোণা; কক্সবাজার সাংস্কৃতিক কেন্দ্র, কক্সবাজার; ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট, রাঙ্গামাটি; ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট, খাগড়াছড়ি; ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট, বান্দরবান; রাজশাহী বিভাগীয় ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর কালচারাল একাডেমি, রাজশাহী এবং মণিপুরি ললিতকলা একাডেমি, কমলগঞ্জ, মৌলভীবাজার।

          ২০২১-২২ অর্থবছরের মতো ২০২২-২৩ অর্থবছরের এপিএ’র কাঠামোয় সুশাসন ও সংস্কারমূলক কার্যক্রমসমূহকে (জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল, অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থা, সেবা প্রদান প্রতিশ্রুতি, ই-গভর্ন্যান্স ও উদ্ভাবন এবং তথ্য অধিকার) সমন্বিতভাবে এপিএ’র অংশ হিসাবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

          শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রদানের জন্য গঠিত বাছাই কমিটির সুপারিশ এবং যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদনক্রমে ২০২১-২০২২ অর্থবছরে মোট ৫ জনকে শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রদান করা হয়। পুরস্কার হিসাবে এক মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নির্ধারিত ফরম্যাটে একটি সার্টিফিকেট ও একটি ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। শুদ্ধাচার পুরস্কারপ্র্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীরা হচ্ছেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দপ্তর ও সংস্থার প্রধানদের মধ্য হতে প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) রতন চন্দ্র পন্ডিত (গ্রেড-২), সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব মোঃ আতাউর রহমান (গ্রেড-৩), সিনিয়র সহকারী সচিব মোঃ সগীর হোসেন (গ্রেড-৬), প্রশাসনিক কর্মকর্তা মোঃ রাজু আহমেদ (গ্রেড-১০) ও অফিস সহায়ক মোঃ সাদ্রিব হোসেন (গ্রেড-২০)।       

          পরে কর্মকর্তা-কর্মচারীর হাতে শুদ্ধাচার পুরস্কার তুলে দেন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ আবুল মনসুর।

সাবেক রাষ্ট্রদূত মহিউদ্দিন আহমদের মরদেহে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ হতে ফুলেল শ্রদ্ধা

ঢাকা, ৭ আষাঢ় (২১ জুন) :

          মহান মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক, সাবেক রাষ্ট্রদূত, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব, কূটনীতিক ও বিশিষ্ট কলামিস্ট মরহুম মহিউদ্দিন আহমদের প্রতি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ হতে ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়েছে। মরহুম মহিউদ্দিন আহমদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য তাঁর মরদেহ আজ তাঁর সাবেক কর্মস্থল ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে নিয়ে আসার পর সেখানে মরহুমের নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী, বীরবিক্রম, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোঃ শাহরিয়ার আলম, পররাষ্ট্র সচিব (সিনিয়র সচিব) মাসুদ বিন মোমেন, সাবেক ও বর্তমান কূটনীতিকবৃন্দ, বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাবৃন্দ জানাজায় উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, বন্যাদুর্গত এলাকা পরিদর্শনের জন্য পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন আজ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সিলেটে যাওয়ায় মরহুম মহিউদ্দিন আহমদের জানাজায় উপস্থিত থাকতে পারেননি। পররাষ্ট্রমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে নামাজে জানাজাসহ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ হতে মরহুম মহিউদ্দিন আহমদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়।

          জানাজা নামাজের পর মরহুম মহিউদ্দিন আহমদের মরদেহে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী, বীরবিক্রম। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ হতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোঃ শাহরিয়ার আলম এবং পররাষ্ট্র সচিব (সিনিয়র সচিব) মাসুদ বিন মোমেন। এছাড়া ফরেন সার্ভিস একাডেমি এবং বাংলাদেশ ফরেন সার্ভিস এসোসিয়েশনের পক্ষ হতেও ফুলেল শ্রদ্ধা জানানো হয়। এসময় মরহুম মহিউদ্দিন আহমদের গৌরবময় জীবনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে স্মৃতিচারণ করেন প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী, বীরবিক্রম এবং পররাষ্ট্রপ্রতিমন্ত্রী মোঃ শাহরিয়ার আলম। এরপর মরহুম মহিউদ্দিন আহমদের মরদেহ দাফনের জন্যে তাঁর গ্রামের বাড়ি ফেনীতে নিয়ে যাওয়া হয়।

          সাবেক রাষ্ট্রদূত মহিউদ্দিন আহমদ গতকাল ঢাকায় মৃত্যুবরণ করেন। তাঁর মৃত্যুতে শোক জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন এবং পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোঃ শাহরিয়ার আলম। একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় ইউরোপের পাকিস্তান দূতাবাসগুলোতে কর্মরত বাঙালি কূটনীতিকদের মধ্যে মহিউদ্দিন আহমেদ প্রথম পক্ষ ত্যাগ করে বাংলাদেশের স্বাধীনতার পক্ষে অবস্থান নেন। ১৯৭১ সালে তিনি লন্ডনের পাকিস্তান হাইকমিশনের দ্বিতীয় সচিবের পদ ছেড়ে দিয়ে যুক্তরাজ্যে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে সার্বক্ষণিক কাজ করেছেন। মহান মুক্তিযুদ্ধে তাঁর অবদান জাতি সবসময় শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করবে।

 

বন্যা পরিস্থিতিতে ক্ষতিগ্রস্ত নেটওয়ার্ক সচল করার লক্ষ্যে কাজ চলছে

 

ঢাকা, ৭ আষাঢ় (২১ জুন) :

          বন্যাদুর্গত এলাকায় মোবাইল ও ল্যান্ডফোন নেটওয়ার্ক পুনরায় সচল করার লক্ষ্যে অবিরাম কাজ চলছে। বিটিসিএল গ্রাহকগণকে তাদের অচল ল্যান্ডফোন সচল অথবা এ সংক্রান্ত যে কোনো প্রয়োজনে বিটিসিএল কল সেন্টার ১৬৪০২ এর সাথে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

          চলমান বন্যা পরিস্থিতিতে  সুনামগঞ্জ, সিলেট, নেত্রকোণা, হবিগঞ্জ এবং মৌলভীবাজারে  গ্রামীণফোন, রবি, বাংলালিংক ও টেলিটকের মোট ৩ হাজার ৬শত ১৭টি সাইটের মধ্যে ২ হাজার ১ শত ২২টি সাইট ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর মধ্যে ১ হাজার ১শত ৪৬টি সাইট পুনরায় সচল করা সম্ভব হয়েছে। অবশিষ্ট ৯শত ৭৬টি সাইট সচল করার জন্য কাজ চলছে। এর আগে বাংলাদেশ স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেড বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট -১ এ সংযোগ স্থাপনের মাধ্যমে ইন্টারনেটসহ টেলিযোগাযোগ সংযোগ স্থাপনের জন্য সেনাবাহিনীর মাধ্যমে ১২টি ও বাংলাদেশ স্যাটেলাইট কোম্পানি নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় আরো ২৩টি ভিস্যাট স্থাপনে কাজ করছে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনী সিলেট হাইটেক পার্ক, সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ও সুনামগঞ্জ সার্কিট হাউজে ৩টি ভিস্যাট হাব স্থাপন সম্পন্ন করেছে। আজ গোবিন্দগঞ্জ , দোয়ারা বাজার, দিরাই ও গোয়াইন ঘাটে ভিস্যাট হাব স্থাপনের কার্যক্রম সম্পন্ন হবে। বিএসসিএল সিলেট বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়, সিলেট জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ও সিলেট সদর উপজেলা কার্যালয়ে ৩টি ভিস্যাট হাব স্থাপন সম্পন্ন করেছে।

          এছাড়া আজ সিলেট বিভাগীয় কমিশনারের বাংলো, সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা, জেলা প্রশাসকের বাংলো, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা ও জামালগঞ্জ উপজেলাসহ ৫টি স্থানে সংযোগ স্থাপনের কাজ সম্পন্ন করবে। বিএসসিএল নেত্রকোণা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে ভিস্যাট হাব যন্ত্রপাতি সরবরাহ করেছে। আজ নেত্রকোণা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ও খালিয়াজুরী উপজেলা কার্যালয়ে ভিস্যাট হাব সংযোগ প্রদান কাজ সম্পন্ন হবে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকেও ভিস্যাট যন্ত্রপাতি সরবরাহ করা হয়েছে।

 

পদ্মা সেতু বাঙালি জাতির অসীম সাহসের প্রতীক : খাদ্যমন্ত্রী

 

ঢাকা, ৭ আষাঢ় (২১ জুন) :

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, ১৯৭১ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল। আগামী ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধনের দিন বাঙালি জাতির আরেকটি বিজয়ের দিন। স্বাধীনতা লাভের পর দেশবাসী যেভাবে আনন্দ করেছিলো একইভাবে দেশের মানুষ পদ্মা সেতু উদ্বোধনের দিন আনন্দ উৎসবে মেতে উঠবে। স্বাধীনতাত্তোর বাঙালি জাতির অসীম সাহসের প্রতীক এ পদ্মা সেতু।

আজ নওগাঁর নিয়ামতপুরে জেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি ও বাইসাইকেল বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রমাণ করেছেন, বাঙালি জাতি কারো কাছে মাথা নত করতে জানে না। নিজের টাকায় পদ্মা সেতু করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের সক্ষমতা প্রমাণ করে দিয়েছেন। কোন ষড়যন্ত্রই পদ্মা সেতুর কাজ বন্ধ করতে পারে নাই।

মন্ত্রী বলেন, দেশে যখন শান্তি বিরাজ করছে, তখন দেশকে অস্থিতিশীল করতে পাঁয়তারা করছে একটি চক্র। তাই পদ্মা সেতু উদ্বোধনের দিনে কেউ যেন দেশকে অস্থিতিশীল করতে না পারে সেদিকে নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানান।

পরে মন্ত্রী ৫০ জন ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের মাঝে বাইসাইকেল, প্রাথমিক ও মাধ্যমিকের ৩৫০ জন শিক্ষার্থীর মাঝে শিক্ষাবৃত্তি, ১৫ জন দরিদ্র মৎস্যজীবীর মাঝে ছাগল বিতরণ ও ৪৬ জন মৎস্যচাষির মাঝে ২২৫ কেজি মাছের খাদ্য বিতরণ করেন।

এর আগে মন্ত্রী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এক্সরে মেশিনের উদ্বোধন করেন।

 

বন্যায় ৫৬ হাজার হেক্টর জমির আউশ ধান ক্ষতিগ্রস্ত

ফসলের ক্ষতি পোষাতে সার্বিক প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে: কৃষিমন্ত্রী

 

ঢাকা, ৭ আষাঢ় (২১ জুন) : ‍

 

কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. মো: আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, এখন মাঠে বড় ধরনের কোন ফসল নেই। তারপরও, চলমান বন্যায় সুনামগঞ্জে ও সিলেটে ২২ হাজার হেক্টর জমির আউশ ধান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এখন বন্যা কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, নীলফামারী, মৌলভীবাজারসহ অনেক জেলায় ছড়িয়ে পড়েছে্। এতে এখনো পর্যন্ত সারাদেশে প্রায় ৫৬ হাজার হেক্টর জমির আউশ ধান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এছাড়া শাকসবজি, তিল, বাদাম প্রভৃতি ফসলের ক্ষতি হয়েছে। বন্যা দীর্ঘস্থায়ী না হলে এখনো পর্যন্ত যতটুকু ক্ষতি হয়েছে, সেটা পুষিয়ে নেওয়া সম্ভব। সেজন্য ইতোমধ্যে ব্যাপক প্রস্তুতিও শুরু হয়েছে। 

আজ সচিবালয়ে মালদ্বীপের হাইকমিশনার শিরুজিমাথ সামীর এর সাথে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে কৃষিমন্ত্রী এসব কথা বলেন। 

আমন ধানের উৎপাদন যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয়, সেদিকে গুরুত্ব দিয়ে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হচ্ছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, দেশে আমন একটি বড় ফসল, যেখানে বছরে ১ কোটি ৫০ লাখ টনের মতো চাল উৎপাদন হয়। এখন রোপা আমনের বীজতলা তৈরির কাজ শুরু হয়েছে। বন্যা আর না বাড়লে বীজতলা তেমন ক্ষতিগ্রস্ত হবে না। তবে বন্যা দীর্ঘস্থায়ী হলে বীজতলা ক্ষতিগ্রস্ত হবে। 

মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমনের বীজতলা তৈরির জন্য সর্বোচ্চ ব্যবস্থা রাখার নির্দেশ দিয়েছেন। যেসব বীজতলা করা হয়েছে, তা ক্ষতিগ্রস্ত হলে আবার করা হবে। আমাদের কাছে পর্যাপ্ত বীজ সংরক্ষিত আছে, সেগুলো চাষিদের দেওয়া হবে। অন্যদিকে, বন্যা দীর্ঘস্থায়ী হলে নাবী জাতের (লেইট ভ্যারাইটি) ধান চাষের উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে। 

মন্ত্রী আরো বলেন, সব পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে আমরা প্রস্তুতি নিচ্ছি। বন্যার কারণে যদি আমন ক্ষতিগ্রস্ত হয় বা চাষ না করা যায়, তাহলো রবি মৌসুমে ফসলের উৎপাদন বাড়াতে হবে। সেজন্য, ক্ষতি পোষাতে কৃষকদেরকে বীজ, সেচ, সারসহ বিভিন্ন উপকরণ বিনামূল্যে দেয়া হবে। চলমান বন্যার কারণে শাকসবজির দামে প্রভাব পড়তে পারে বলে জানান মন্ত্রী। তিনি বলেন, এ বন্যার কারণে দেশে খাদ্য সংকট হবে কিনা, তা এখনই বলা যাচ্ছে না। 

বৈঠকে মালদ্বীপের হাইকমিশনার শিরুজিমাথ সামীর বাংলাদেশ থেকে আম নেয়ার আগ্রহ ব্যক্ত করেন। এছাড়া, বাংলাদেশের বিশাল সামুদ্রিক সম্পদ আহরণে মালদ্বীপ সহযোগিতা করবে বলে তিনি জানান। 

এর আগে সকালে মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে কৃষি মন্ত্রণালয়ের সাথে অধীনস্থ সংস্থাসমূহের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে মন্ত্রী উপস্থিত ছিলেন এবং শুদ্ধাচার পুরস্কার বিতরণ করেন। এসময় মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও সংস্থাপ্রধানরা উপস্থিত ছিলেন। 

 

ডাকঘর ডিজিটাইজেশনের পথ নকশা তৈরি করা হচ্ছে : ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী

 

ঢাকা, ৭ আষাঢ় (২১ জুন) : ‍

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, ডিজিটাল বাণিজ‌্যের সহায়ক প্রতিষ্ঠান হিসেবে ডাকঘর ডিজিটাল করা অপরিহার্য। ডিজিটাল যুগের উপযোগী ডাক ব‌্যবস্থা প্রতিষ্ঠায় ডাকঘর ডিজিটাইজেশনের পথ নকশা তৈরির কাজ সম্পন্ন করা হচ্ছে। ডাক ব্যবস্থাকে ডিজিটালাইজ করার পাশাপাশি কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীকে ডিজিটাল দক্ষতা প্রদানের  মাধ‌্যমে ডাকঘর ডিজিটাল করার কাজ শুরু করা হয়েছে। জনগণের দোরগোড়ায় ডকুমেন্টসহ বিভিন্ন পণ‌্য ডেলিভারির বিশাল চাহিদাপূরণে ডাকঘরকে উপযোগী করার চলমান কর্মসূচি সফল করতে সংশ্লিষ্ট সবাইকে নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে কাজ করার আহ্বান জানান মন্ত্রী।

মন্ত্রী গতকাল ঢাকা জিপিও মিলনায়তনে আয়োজিত ডাক অধিদপ্তরের বিদায়ি মহাপরিচালক               মো: সিরাজ উদ্দিনের বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ আহ্বান জানান।

মন্ত্রী বলেন, ই-কমার্সের জন‌্য ডাকঘর এখন একটা নির্ভরযোগ‌্য প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। হিমায়িত খাবার থেকে শুরু করে নিত‌্যপ্রয়োজনীয় পণ‌্য প্রত‌্যন্ত ও দুর্গম এলাকায় ক্রেতার হাতে পৌঁছে দিতে ডাকঘরের বিকল্প নেই। করোনাকালে কৃষকের ফল, সবজি পরিবহণ থেকে শুরু করে চিকিৎসা সরঞ্জাম জনগণের  দোড়গোড়ায় পৌঁছে দিতে ডাক সেবার অবদান গুরুত্বপূর্ণ এবং জরুরি সেবার আওতায় ডাকঘর একদিনের জন‌্যও বন্ধ রাখা হয়নি। ডাক ব‌্যবস্থার উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গৃহীত বিভিন্ন উদ‌্যোগের কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ডাকঘরকে ডিজিটাল যুগের উপযোগী করে গড়ে তুলতে প্রণীত ডিজিটাল সার্ভিস ডিজাইন ল্যাবের (ডিএসডিএল) প্রস্তাব একটি ঐতিহাসিক মাইলফলক।

ডাক অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক হারুন উর রশীদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো: খলিলুর রহমান, অতিরিক্ত মহাপরিচালক রিয়াজুল ইসলাম, খুলনা রেঞ্জের পিএমজি মো: শামসুল আলম এবং ডাক অধিদপ্তরের পরিচালক এসএম হারুনুর রশিদ বক্তৃতা করেন।

 

কোরবানির পশুর বর্জ্য সুষ্ঠুভাবে অপসারণে পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের আহ্বান

 

ঢাকা, ৭ আষাঢ় (২১ জুন) :

 স্বাস্থ্যবিধি মেনে পশু কোরবানি ও কোরবানিকৃত পশুর উচ্ছিষ্টাংশ সুষ্ঠুভাবে অপসারণের মাধ্যমে পরিবেশ দূষণরোধ করার জন্য সকল সরকারি ও বেসরকারি সংস্থা এবং সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়েছে। যত্রতত্র পশু জবাই করা হতে বিরত থাকতে এবং সুনির্দিষ্ট স্থানে গর্ত করে গর্তের মধ্যে রক্ত, গোবর ও পরিত্যক্ত অংশ রেখে মাটি চাপা দেয়ার অনুরোধ জানানো হয়। কোরবানির বর্জ্য অপসারণ বা কোরবানির গোশত বিতরণে পরিবেশসম্মত ব্যাগ/পাত্র ব্যবহার এবং জবাইকৃত পশুর উচ্ছিষ্টাংশ ডাস্টবিন অথবা নির্ধারিত স্থানে ফেলার অনুরোধ জানানো হয়।

 

আসন্ন পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষ্যে কোরবানিকৃত পশুর উচ্ছিষ্টাংশ সুষ্ঠুভাবে ব্যবস্থাপনা ও অপসারণের মাধ্যমে পরিবেশ দূষণ রোধকল্পে করণীয় বিষয়ে আজ পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় এ অনুরোধ জানানো হয়। মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. ফারহিনা আহমেদ ভার্চুয়ালি উপস্থিত থেকে সভায় সভাপতিত্ব করেন।

 

সভায় কোরবানিকৃত পশুর উচ্ছিষ্টাংশ সুষ্ঠুভাবে অপসারণে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে চার লক্ষ কপি প্রচারপত্র সিটি কর্পোরেশন, পৌরসভা, পরিবেশ অধিদপ্তরের বিভাগ ও জেলা কার্যালয়, জেলা প্রশাসন এবং জেলা তথ্য অফিস-সহ অন্যান্য সংস্থার মাধ্যমে দেশব্যাপী বিতরণ করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। এছাড়াও, পরিবেশ অধিদপ্তর মোবাইলে মেসেজের মাধ্যমে এ সংক্রান্ত বার্তা জনগণের কাছে পৌঁছানোর ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে সারাদেশের মসজিদসমূহে সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ ও মসজিদের ইমামদেরকে পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখতে করণীয় সম্পর্কে জুম্মার নামাজে বক্তব্য রাখার আহ্বান জানানো হয়েছে। বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বাংলাদেশ বেতারের পাশাপাশি বেসরকারি চ্যানেলে ও প্রচার মাধ্যমে কোরবানির পশুর বর্জ্য সুষ্ঠুভাবে অপসারণ সংক্রান্ত বার্তা প্রচারের অনুরোধ জানানো হয়েছে।

 

বিশিষ্ট আলেমে-দ্বীন হযরত মাওলানা আব্দুল হালীম বুখারীর মৃত্যুতে ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর শোক

 

ঢাকা, ৭ আষাঢ় (২১ জুন) : ‍

দেশের প্রখ্যাত আলেমে দ্বীন আল জামিয়া আল ইসলামিয়া পটিয়া, চট্টগ্রাম মাদ্রাসার মহাপরিচালক, আল-হাইআতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কাওমিয়া এর অন্যতম সদস্য ও আঞ্জুমানে ইত্তেহাদুল মাদারিস, বাংলাদেশ এর মহাসচিব হযরত মাওলানা আব্দুল হালীম বুখারীর (র.) ইন্তেকালে (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিঊন) গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মোঃ ফরিদুল হক খান।

আজ এক শোকবার্তায় প্রতিমন্ত্রী মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানান।

 

Read us@googlenews

Social

More News
© Copyright: 2020-2022

Bangladesh Beyond is an online version of Fortnightly Apon Bichitra 

(Reg no: DA 1825)

Developed By Bangladesh Beyond