[Valid RSS]
June 24, 2022, 10:46 pm
Headlines
EU’s next potential sanctions target revealed Forging High-quality Partnership For a New Era of Global Development : Xi Jinping পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে ১০০ টাকা মূল্যমানের স্মারক নোট ২৪ জুন এক নজরে বাংলাদেশ পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির বাণী  Pentagon unveils new Ukraine weapons shipment Germany warns entire industries could stop due to gas shortage ২৪ জুন কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন Japan wants more people-to-people cultural bond with Bangladesh হাওর এলাকার আশংকাজনকহারে জলাভূমি হ্রাস বন্যার ভয়াবহতা বাড়িয়ে দিচ্ছে : আইপিডি PM to open Padma Bridge on June 25  EU and NATO forming coalition ‘for war against Russia’ : Lavrov President, PM greet all involved with Padma Bridge project অবিলম্বে দেশে ভোজ্যতেলের দাম সমন্বয়ের দাবি ক্যাব এর ২১ জুন এক নজরে বাংলাদেশ ২৩ জুন কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন AL means independence, developed Bangladesh: PM  imo steps in to facilitate flood victims LafargeHolcim signs agreement with Swisscontact Bangladesh to support waste management in MSMEs তামাকের দাম বাড়াতে মন্ত্রিপরিষদ সচিবকে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ ৯৭ সাংসদের
Treanding
EU’s next potential sanctions target revealed Forging High-quality Partnership For a New Era of Global Development : Xi Jinping পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে ১০০ টাকা মূল্যমানের স্মারক নোট ২৪ জুন এক নজরে বাংলাদেশ পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির বাণী  Pentagon unveils new Ukraine weapons shipment Germany warns entire industries could stop due to gas shortage Japan wants more people-to-people cultural bond with Bangladesh হাওর এলাকার আশংকাজনকহারে জলাভূমি হ্রাস বন্যার ভয়াবহতা বাড়িয়ে দিচ্ছে : আইপিডি EU and NATO forming coalition ‘for war against Russia’ : Lavrov অবিলম্বে দেশে ভোজ্যতেলের দাম সমন্বয়ের দাবি ক্যাব এর ২১ জুন এক নজরে বাংলাদেশ imo steps in to facilitate flood victims LafargeHolcim signs agreement with Swisscontact Bangladesh to support waste management in MSMEs তামাকের দাম বাড়াতে মন্ত্রিপরিষদ সচিবকে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ ৯৭ সাংসদের Prerona Foundation-Bengal Meat collaborates NATO chief ‘cannot guarantee’ membership for Finland and Sweden Energypac Sponsors 4th Dhaka Automotive Show 2022 Putin’s Global Ratings Drop to 20-Year Low : Pew Australian envoy expects Padma Bridge to enhance regional growth

২৫ মে একনজরে বাংলাদেশ

Bangladesh Beyond
  • Updated on Wednesday, May 25, 2022
  • 82 Impressed

২৫ মে একনজরে বাংলাদেশ

ডিজিটাল যুগে রূপান্তরের ধারাবাহিকতায় বাদ যাবে না গৃহকর্মীরাও : মোস্তাফা জব্বার

ঢাকা ২৫ মে ২০২২ :

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, সমাজের অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন নিশ্চিত করা জাতীয় অগ্রগতির জন‌্য অপরিহার্য। ডিজিটাল সাম‌্য সমাজ প্রতিষ্ঠার মাধ‌্যমে উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার নিরলসভাবে কাজ করছে। ডিজিটাল যুগে বাংলাদেশের অভাবনীয় রূপান্তরের ধারাবাহিকতায় বাদ যাবে না গৃহকর্মীরাও। তিনি প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহের মাধ‌্যমে গৃহকমীদের অর্জিত আয়ের নিরাপদ লেন-দেন নিশ্চিত ও সাশ্রয়ী করতে মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস নগদ সেবা গৃহকর্মীদের জন‌্য নগদায়ন প্রয়োজনে মাশুলবিহীন করার ঘোষণা দেন।

মন্ত্রী আজ ঢাকায় সিরডাপ মিলনায়তনে গৃহকর্মীদের ক্ষমতায়নে ডিজিটাল আর্থিক ব‌্যবস্থাপনায় তাদেরকে অন্তর্ভুক্তি বিষয়ক সমীক্ষা প্রতিবেদন প্রকাশ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ ঘোষণা দেন। বেসরকারি সংস্থা মানুষের জন‌্য ফাউন্ডেশন সমীক্ষা প্রতিবেদনটি প্রকাশ করে।

মানুষের জন‌্য ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক সেলিনা আক্তারের সঞ্চালনায় ও শাহীন আনামের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সাবেক তত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা রাশেদা কে চৌধুরী, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক ড. মুসলিমা মৌ প্রমুখ বক্তৃতা করেন।

মন্ত্রী ডিজিটাল যুগের জন‌্য ডিজিটাল যন্ত্র ব‌্যবহারের প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরে আয়োজকদের উদ্দেশ‌্যে বলেন, যাদের ডিজিটাল আর্থিক ব‌্যবস্থাপনায় অন্তর্ভুক্তি করতে চান তাদের স্মার্টফোন আছে কি না এবং স্মার্টফোন তারা চালাতে পারে কি না ইত‌্যাদি বিষয় নিশ্চিত করতে হবে। আমি মনে করি গৃহকর্মীদের এ বিষয়ক দক্ষতা ও সামর্থ অর্জনে গৃহকর্তারাও সহায়তা করতে পারে। ডিজিটাল প্রযুক্তি বিকাশের অগ্রদূত মোস্তাফা জব্বার বলেন, অতীতে প্রথম, দ্বিতীয় এবং তৃতীয় শিল্প বিপ্লব এই ভূখন্ডের মানুষ মিস করেছে । প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রজ্ঞাবান নেতৃত্বে বাংলাদেশ ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচির হাত ধরে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের নেতৃত্বের জায়গায় উপনীত হয়েছ। এরই ধারাবাহিকতায় মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিসে বাংলাদেশ পৃথিবীর সেরা দেশের কাতারে আছে। মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস দেশের আর্থিক খাতে বৈপ্লবিক পরিবর্তনের সূচনা করেছে। মোবাইল ফিনান্সিয়ার সার্ভিস ব‌্যাংক গুলোকে এখন তৃণমূলে যেতে বাধ‌্য করছে বলে মন্ত্রী উল্লেখ করেন। মেয়েরা স্বাবলম্বী হলে কিংবা ক্ষমতায়িত হলে পরিবার ও সমাজ অনেক বেশি সুন্দর হয় উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, মেয়েরা যাতে ঘরে বসে আউট সোর্সিং করতে পারে সে উদ্যোগ আমরা বাস্তবায়ন করছি। ইতোমধ‌্যে মধুপুরের পাহাড়ের একটি গ্রামে তিনশতাধিক তরুণ-তরুণী আউটসোর্সিয়ের মাধ‌্যমে স্বাবলম্বী হয়েছে। ধর্মপাশায় হাওর বেষ্টিত দুর্গম একটি গ্রামে বসে ৫০জন প্রোগ্রামার আউট সোর্সিংয়ের কাজ করছে বলে মন্ত্রী দৃষ্টান্ত তুলে ধরেন।

মন্ত্রী বলেন, গৃহকর্মীদের নিয়ে সমীক্ষা জরীপ কাজটি খুবই কঠিন তা সত্ত্বেও মানুষের জন‌্য ফাউন্ডেশনের এই উদ্যোগ গৃহকর্মীদের জীবন মান উন্নয়নে কিছুটা হলেও অবদান রাখবে বলে তিনি আয়োজকদের এ কাজের প্রশংসা করেন। ভবিষ‌্যতে এর পরিধি তৃণমূল পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

ডিজিটাল আর্থিক অন্তর্ভুক্তির জন‌্য নারী-পুরুষের মধ‌্যে ডিজিটাল বৈষম‌্য হ্রাস করাই এই সমীক্ষার মূল লক্ষ‌্য বলে উদ‌্যাক্তারা জানান। ঢাকা এবং এর আশপাশে ২৫০ জন গৃহকর্মী এবং গৃহকর্তার ওপর পরিচালিত হয় এই সমীক্ষা জরীপ।

 

বাংলাদেশ থেকে ব্যান্ডউইদথ আমদানি করতে ভারতের আসাম রাজ্য সরকারের আগ্রহ ও মন্ত্রীর রপ্তানি করার সম্মতি

ঢাকা ২৫ মে ২০২২ :

          ভারতের আসাম রাজ্য বাংলাদেশ থেকে ইন্টারনেট ব্যান্ডউইদথ নেওয়ার আগ্রহ ব্যক্ত করেছে। আসাম রাজ্য সরকারের মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান আসাম ইলেক্ট্রনিকস ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশন লিমিটেড এই আগ্রহ ব্যক্ত করে। ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের নিকট আজ তাঁর বাংলাদেশ সচিবালয়স্থ দপ্তরে কোম্পানির প্রতিনিধি হিসেবে ইন্দো-বাংলা কাউন্সিলের সেক্রেটারি সুনীত কেপি কোম্পানির একটি আগ্রহ-পত্র পেশ করেন।

          ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী, সুনীত কেপিকে আশ্বস্ত করে বলেন,  আমাদের ব্যান্ডউইদথ রপ্তানির বিষয়ে কোন সমস্যা নেই। এই ব্যাপারে আসামে ব্যান্ডউইদথ রপ্তানির প্রক্রিয়া গ্রহণের জন্য মন্ত্রী  সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে নির্দেশ দিয়েছেন। যথাযথ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে সিলেটের তামাবিল থেকে মেঘালয়ের ডাউকি হয়ে গৌহাটিতে আসাম নিজস্ব ব্যয়ে ক্যাবল সংযোগ স্থাপন করেছে। এই জন্য বাংলাদেশ তামাবিল পর্যন্ত নিরবচ্ছিন্ন সংযোগ নিশ্চিত করতে বিকল্প লাইন স্থাপন করবে বলে মন্ত্রী প্রতিনিধিকে আশ্বস্ত করেন। এর আগে বাংলাদেশ  সরকারের একজন  মন্ত্রীর নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল ভারত সফরকালে আসাম বাংলাদেশ থেকে ব্যান্ডউইদথ আমদানির বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয় বলে সুনীত কেপি মন্ত্রীকে অবহিত করেন।

          ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী ইন্টারনেটকে ডিজিটাল বাংলাদেশের মহাসড়ক আখ্যায়িত করে দেশের  মানুষের ডিজিটাল জীবনধারা নিশ্চিত করতে প্রতিটি অঞ্চলে নেটওয়ার্ক সুবিধা পৌঁছে দিতে সরকার গৃহীত কর্মসূচি তুলে ধরেন। মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টিসম্পন্ন উদ্যোগ ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচির ধারাবাহিকতায় দেশের প্রায় প্রতিটি ইউনিয়নে উচ্চগতির ব্রডব্যান্ড নেটওয়ার্ক পৌঁছে দেওয়ার পাশাপাশি দেশের শতকরা ৯৮ ভাগ এলাকায় ফোর-জি নেটওয়ার্ক পৌঁছে দেয়া হয়েছে। এরই মাঝে ফাইভ-জি স্পেকট্রাম নিলাম করা হয়েছে এবং ফাইভ-জি চালু করা হয়েছে। তিনি বলেন, ২০০৮ সালে দেশে মাত্র সাড়ে সাত জিবিপিএস ব্যান্ডউইদথ ব্যবহৃত হতো এবং ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছিলো মাত্র ৮ লাখ। ২০২০ সালে কোভিড শুরুর প্রাক্কালে দেশে ১০০০ জিবিপিএস ইন্টারনেট ব্যবহৃত হতো। বর্তমানে তা বেড়ে ৩৪৪০ জিবিপিএসে উন্নীত হয়েছে এবং ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় তেরো কোটিতে উন্নীত হয়েছে বলে মন্ত্রী উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, দেশে নেটওয়ার্কের বর্ধিত চাহিদা মিটিয়ে সৌদি আরব, ভারত ও ভূটানে ব্রডব্যান্ড রপ্তানি করা হচ্ছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ তৃতীয় সাবমেরিন ক্যাবল সংযোগের কাজ শুরু করেছে। তৃতীয় সাবমেরিন সংযোগ সম্পন্ন হলে অতিরিক্ত আরো প্রায় তেরো হাজার দুই শত  জিবিপিএস ব্যান্ডউইদথ সংযুক্ত হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন। তিনি সিমিউই ৪ এবং সিমিউই ৫ এর সক্ষমতা বাড়াচ্ছেন ও সাকুল্য ব্যান্ডউইদথ দিয়ে ২০৩০ সাল পযর্ন্ত চাহিদা মেটানো যাবে বলে জানান।

 

বিএনপির যড়যন্ত্র রুখতে পাড়ায় পাড়ায় পাহারা বসানোর আহ্বান কৃষিমন্ত্রীর

কিশোরগঞ্জ ২৫ মে ২০২২ :

বিএনপির অপপ্রচার ও ষড়যন্ত্র রুখতে ঐক্যবদ্ধ থেকে পাড়ায় পাড়ায় পাহারা বসানোর জন্য তৃণমূলের নেতাকর্মীকে আহ্বান জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক। তিনি বলেন, দেশের বিরুদ্ধে বিএনপি নানা কুৎসা ও অপপ্রচার চালাচ্ছে। তাদের ভাবটা এই, দেশ শ্রীলংকা হয়ে যাচ্ছে, দুর্ভিক্ষ লেগে যাচ্ছে। তাদের এ অপপ্রচার ও ষড়যন্ত্র রুখতে তৃণমূলের নেতাকর্মীদেরকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। 

আজ কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের পুরাতন স্টেডিয়ামে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, তৃণমূলের নেতাকর্মীরাই দলের খুঁটি ও শক্তি। তারা ঐক্যবদ্ধ থাকলে ২০২৩ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিজয়কে ঠেকিয়ে রাখার কোনো শক্তি নেই। তিনি বলেন, বিএনপি আন্দোলনের হুমকি দিচ্ছে। তাদেরকে কোনভাবেই অহেতুক আন্দোলন করতে দেয়া হবে না। আন্দোলন করে অতীতে তারা সফল হয়নি, ভবিষ্যতেও সফল হবেন না।

সম্মেলনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সংসদ সদস্য মির্জা আজম, স্থানীয় সংসদ সদস্য সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপি, আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক শামসুন নাহার চাঁপা, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মেহের আফরোজ চুমকি, সদস্য রিয়াজুল কবীর কাওছার, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটু, সদস্য মসিউর রহমান হুমায়ুন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোঃ জিল্লুর রহমান উদ্বোধক ও সাধারণ সম্পাদক এম এ আফজল প্রধান বক্তা ছিলেন। সভাপতিত্ব করেন সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ আতাউর রহমান।  

 

বাংলাদেশের সাথে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে কাজ করতে চায় কানাডা : তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী

 

ঢাকা ২৫ মে ২০২২ :

 

কানাডা যৌথ অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে রিসার্চ, ইনোভেশন, নলেজ শেয়ারিং ও টেলেন্ড ডেভেলপ নিয়ে বাংলাদেশের সাথে কাজ করতে চায়। এ লক্ষ্যে কানাডায় আইটি কানেক্ট পোর্টাল শীঘ্রই চালু করা হবে এবং কানাডা ও বাংলাদেশের খ্যাতনামা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহ ও বেসরকারি আইটি খাত যৌথভাবে কাজ করবে।

 

বাংলাদেশে নিযুক্ত কানাডার রাষ্ট্রদূত Dr. Lilly Nicholls আজ আগারগাঁওস্থ আইসিটি টাওয়ারে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের সাথে সাক্ষাৎকালে এ কথা জানান।

 

সাক্ষাৎকালে প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এবং আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের তত্ত্বাবধানে ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়ন এবং ২০৪১ সালে উন্নত অর্থনীতির স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের লক্ষ্যে বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। তিনি বলেন বিগত ১৩ বছরে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বিভিন্ন সময়োপযোগী ও কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণের ফলে দেশের আইসিটি খাত একটি শক্তিশালী ভিত্তির ওপর দাঁড়িয়েছে। আইটি/আইটিইএস খাতে রপ্তানি আয়  ১ দশমিক ৪ বিলিয়ন ডলার। অনলাইন শ্রমশক্তিতে বাংলাদেশের অবস্থান দ্বিতীয়। দেশের প্রায় সাড়ে ৬ লাখ ফ্রিল্যান্সার আউটসোর্সিং খাত থেকে প্রায় ৭০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করছে। আগামী ২০২৫ সালের মধ্যে আইটি/আইটিইএস খাতে ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করা, শতভাগ ইন্টারনেট ও সরকারি সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে বলে রাষ্ট্রদূতকে অবহিত করেন। তিনি আইসিটি খাতসহ বিভিন্ন বিষয়ে কানাডা-বাংলাদেশ যৌথ ব্যবস্থাপনায় গবেষণা কার্যক্রম জোড়দার করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

 

পলক বলেন, চতুর্থ শিল্পবিপ্লব মোকাবিলায় প্রযুক্তিনির্ভর জনশক্তি গড়ে তোলা, অগমেন্টেট রিয়েলিটি (এআর), ভার্চুয়াল রিয়েলিটি (ভিআর) ও রোবটিক্সসহ নতুন নতুন টেকলোজি বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদানের লক্ষ্যে দেশে ‘শেখ হাসিনা ইনস্টিটিউট অব ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজি’, লিডারশিপ একাডেমি, ৩০০টি স্কুল অভ্‌ ফিউচার এবং বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশেষায়িত ল্যাব প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে। এছাড়া দক্ষ মানবসম্পদ উন্নয়নের জন্য ৬৪ জেলায় শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশেন সেন্টার স্থাপন করা হচ্ছে।

 

বাংলাদেশে নিযুক্ত কানাডার রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃতে বিগত ১৩ বছরে বাংলাদেশের বিভিন্ন খাতের উন্নয়নে প্রসংশা করেন। রাষ্ট্রদূত বলেন, অল্প সময়ে বাংলাদেশের আইসিটি খাতসহ বিভিন্ন খাতের ব্যাপক উন্নয়ন ঘটেছে। আগামী দিনগুলোতে বাংলাদেশ তথ্যপ্রযুক্তিসহ বিভিন্ন খাতে আরো এগিয়ে যাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশের আইসিটি খাতের উন্নয়ন ও বিকাশে কানাডা পাশে থাকার আশ্বাস প্রদান করেন।

 

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ স্টার্টআপ কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সামি আহমেদ, কানাডা দূতাবাসের কাউন্সিলর অ্যাঞ্জেলা ডার্ক, ট্রেড কমিশনার গাজি গোলাম ফরহাদসহ আইসিটি বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

 

মানুষের মুক্তি আর সাম্যের জয়গানে স্বতন্ত্র নজরুল : তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী

কুমিল্লা ২৫ মে ২০২২ :

তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেছেন, বাংলা সাহিত্যকে সমৃদ্ধ করা অন্য কবিদের সাথে কাজী নজরুল ইসলামের পার্থক্য হচ্ছে তিনি মুক্তির পক্ষে, সাম্যের পক্ষে, নির্যাতিতদের পক্ষে কথা বলেছেন। তাঁর কবিতা ও গান মানুষকে উদ্দীপ্ত করেছে। কবিতা লেখার কারণে তাঁকে বারংবার কারাগারে যেতে হয়েছে, তাঁর কবিতা ও গান বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। সেকারণে তার সাহিত্যকর্ম তাকে অনন্য করেছে, সেজন্যই কাজী নজরুল ইসলাম অন্য কবিদের থেকে স্বতন্ত্র।

            জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২৩তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আজ কুমিল্লার নগর মিলনায়তন প্রাঙ্গণে কুমিল্লা জেলা প্রশাসন আয়োজিত সভা ও সংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী একথা বলেন। 

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদের সভাপতিত্বে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান সিমিন হোসেন রিমি, কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য আ ক ম বাহার উদ্দিন বাহার, সংসদ সদস্য বেগম রওশন আরা মান্নান, সংস্কৃতি সচিব মোঃ আবুল মনসুর, নজরুল গবেষক অধ্যাপক শান্তিরঞ্জন ভৌমিক, কবি নজরুলের পৌত্রী মিষ্টি কাজী এবং খিলখিল কাজী, কুমিল্লার ডেপুটি কমিশনার মোহাম্মদ কামরুল হাসান, পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ প্রমুখ সভায় বক্তৃতা দেন। সভাপতি ও অতিথিদের সাথে নিয়ে বেলুন উড়িয়ে অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন তথ্যমন্ত্রী।

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী বলেন, ‘রবীন্দ্রনাথের পাশাপাশি যে কবি বাংলা সাহিত্যকে সমৃদ্ধ করে গেছেন তিনি হচ্ছেন বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলাম। অন্য কবিদের চাইতে নজরুলের স্বাতন্ত্র্য হচ্ছে, অন্য কবিরা কবিতা লিখেছেন, সাহিত্যকে সমৃদ্ধ করেছেন। কিন্তু কাজী নজরুল শুধু সাহিত্যকেই সমৃদ্ধ করেছেন তা নয়, তিনি মুক্তিকামী মানুষের পক্ষে কথা বলেছেন, ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনকে তিনি ত্বরান্বিত করেছেন। একজন কবি যে মানুষ উদ্দীপ্ত করতে পারে, মুক্তিকামী মানুষকে সাহস জোগাতে পারে, মানুষকে যে বিদ্রোহী করতে পারে, সেটির প্রমাণ হচ্ছেন বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলাম।’

‘একইসাথে দ্রোহ, মুক্তি, সাম্য ও সম্প্রীতির কবি নজরুল যখন বাংলা তথা ভারতবর্ষে সাম্প্রদায়িক হানাহানি চলছিলো, তখন সম্প্রীতির মন্ত্র উচ্চারণ করে লিখেছেন- মোরা একই বৃন্তে দু’টি কুসুম হিন্দু মুসলমান, মুসলিম তার নয়নমণি, হিন্দু তার প্রাণ’ স্মরণ করেন ড. হাছান।’

হাছান মাহ্‌মুদ বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার আগে বাঙালি জাতির পাঁচ হাজার বছরের ইতিহাসে বাঙালির জন্য কোনো রাষ্ট্র কখনো রচিত হয়নি। বাংলা ভাষাভাষী কিছু কিছু এলাকা নিয়ে বিভিন্ন সময় স্বাধীন রাজা ছিলো কিন্তু কোনো স্বাধীন রাজ্য বা রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠিত হয়নি। বাঙালি জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হাজার বছরের ঘুমন্ত বাঙালিকে জাগ্রত করেছেন এবং এ জন্য কাজী নজরুল ইসলামের কাছ থেকেও তিনি মুক্তির পক্ষে, সাম্যের পক্ষে কথা বলার অনুপ্রেরণা পেয়েছিলেন, অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন। সেই কারণে বঙ্গবন্ধু মুজিব ১৯৭২ সালে ইন্দিরা গান্ধীকে বলে কবিকে বাংলাদেশে নিয়ে আসেন।’

‘আজকে যদি বাংলাদেশ রাষ্ট্র রচিত না হতো, তাহলে বাংলা ভাষা কোথায় গিয়ে দাঁড়াতো জানা নেই’ উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ক’দিন আগে আমি শিলিগুড়ি আর কলকাতা গিয়েছিলাম, সেই সবখানে ইংরেজি এবং হিন্দিতে সাইনবোর্ড, শতকরা পাঁচ বা বড়জোর দশ ভাগ সাইনবোর্ড দেখেছি বাংলায়। যদি বাংলাদেশ রাষ্ট্র রচিত না হতো, আজকে আমরা যেভাবে কাজী নজরুল ইসলামের জন্মজয়ন্তী উদ্‌যাপন করছি, এভাবে কি করতে পারতাম! এজন্য আমি জাতীয় কবির পাশাপাশি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে স্মরণ করি, গভীর শ্রদ্ধা জানাই।’

অনুষ্ঠানস্থল কুমিল্লাকে কবি নজরুল ইসলামের বহু স্মৃতিবিজড়িত বর্ণনা করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘কবি নজরুল বারবার কুমিল্লায় এসেছেন, কান্দিরপাড়ের একটি বাসায় উঠতেন তিনি। নার্গিস নজরুলের কালজয়ী গানের পটভূমি এবং সেই নার্গিসের বাড়ি ছিলো কুমিল্লায়।’

এ সময় রাজনৈতিক প্রসঙ্গে নির্বাচনে বিএনপির অংশগ্রহণ নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘আসলে বিএনপিকে নির্বাচন ভীতি পেয়ে বসেছে। সেজন্য তারা সংসদ নির্বাচনও করতে চায় না, এমনকি ইউনিয়ন পরিষদ, সিটি কর্পোরেশনসহ কোনো নির্বাচনেই তারা অংশ নিতে চায় না। আশা করি তারা নির্বাচন ভীতি কাটিয়ে উঠবে এবং দলকে নির্বাচনমুখী করবে।’

সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেন, ‘কবিতার ইতিহাসে কাজী নজরুল ইসলামের ‘বিদ্রোহী’ এক অনন্য সাধারণ রচনা। এক রাতেই তিনি বাংলা তথা বিশ্বসাহিত্যের অনবদ্য এ কবিতাটি রচনা করেছেন। মাত্র ২২ বছর বয়সে ১৯২১ সালের ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে নজরুল রচনা করেন ১৪১ পঙক্তির এই ভুবনবিজয়ী কবিতা যার প্রথম শ্রোতা ছিলেন মুজাফফর আহমদ।’

 

বিশ্বে দ্রব্যমূল্য ঊর্ধ্বমুখী হলেও দেশে নিয়ন্ত্রণে চেষ্টা চালাচ্ছে সরকার : স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

 

ঢাকা ২৫ মে ২০২২ :

          স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম বলেছেন, বিশ্বে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য ঊর্ধ্বমুখী থাকলেও বাংলাদেশ সরকার তা নিয়ন্ত্রণে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সেই সাথে দেশে খাদ্যপণ্য ব্যাপকহারে উৎপাদনের জন্য নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

          আজ মিরপুর ক্যান্টমেন্টে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অভ্ প্রফেসনাল-বিইউপি আয়োজিত ইনভায়রনমেন্টাল ফেস্ট-২০২২ এর ÔLivability and the Role of Local Government: Bangladesh PerspectiveÕ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

          মন্ত্রী বলেন, করোনার মহাসংকট শেষ হতে না হতেই ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ পুরো বিশ্বে নতুনভাবে সংকট সৃষ্টি করেছে। আমাদের দেশের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বৃদ্ধি এবং দেশীয় খাদ্যপণ্য উৎপাদনে সরকার আগে থেকেই বিশেষ উদ্যোগ নেয়ার ফলেই এই সংকট মোকাবিলা করতে সক্ষম হচ্ছে। তিনি বলেন, গৃহস্থালি ও শিল্প বর্জ্যের পাশাপাশি নির্মাণ বর্জ্যও সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনার মধ্যে আনতে সরকার কাজ করছে। ইতোমধ্যেই ঢাকা দুই সিটি কর্পোরেশনসহ গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনে বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদনের কার্যক্রম শেষ পর্যায়ে রয়েছে। পর্যায়ক্রমে সকল সিটি কর্পোরেশন এবং শহরাঞ্চলে বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন করবে। এছাড়া পৌরসভাগুলোতে ছোট প্ল্যান্টের মাধ্যমে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার কাজ চলমান রয়েছে।

            মোঃ তাজুল ইসলাম বলেন, মানুষের ক্রয়ক্ষমতা বৃদ্ধি পাওয়ায় ভোগের পরিমাণ বেড়ে গেছে। যার ফলে অতীতের তুলনায় বর্তমানে প্রচুর পরিমাণ বর্জ্য উৎপাদন হচ্ছে। আগে যে কোনো পণ্য কেনার সময় একটি ব্যাগের মধ্যেই সবকিছু নেয়া হতো। কিন্তু এখন প্রত্যেকটি জিনিসের জন্য আলাদা আলাদা ব্যাগ দেওয়া হয় যার কারণে গৃহস্থালিসহ অন্যান্য বর্জ্য উৎপাদন বহুলাংশে বৃদ্ধি পেয়েছে। তিনি বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের মূল কারণ পরিবেশ দূষণ। আর এই পরিবেশ দূষণে উন্নত দেশের তুলনায় বাংলাদেশের মতো উন্নয়নশীল দেশগুলোর প্রভাব অনেক কম। এসব দেশের তুলনায় উন্নত দেশগুলো পরিবেশ দূষণের জন্য বেশি দায়ী। পৃথিবীকে বাঁচাতে হলে পরিবেশ দূষণ বন্ধ করতে হবে।

          মন্ত্রী জানান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশকে স্বাধীন করার পর ধ্বংসস্তূপ দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের ভিত্তি রচনা করে গেছেন। পরবর্তীতে অর্থনৈতিক ব্যবস্থা টালমাটাল থাকলেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার গঠনের পর দেশের অর্থনীতিতে ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে।

          পরে ইনভায়রনমেন্টাল ফেস্ট-২০২২ এ দেশের ৩৫টি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের আয়োজনে বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন করেন।          সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিইউপির উপাচার্য মেজর জেনারেল মোঃ মাহবুব উল আলম, এনডিসি। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব ড. এস এম যোবায়দুল করিম।

 

 

প্রত্যাগত অভিবাসীদের পুনরেকত্রীকরণে সরকারি-বেসরকারি খাতের সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে :  প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী

ঢাকা ২৫ মে ২০২২ :

          বিদেশ ফেরত বাংলাদেশিদের পুনরেকত্রীকরণে একযোগে কাজ করার জন্য অঙ্গীকারবদ্ধ হয়েছে দেশের সরকারি ও বেসরকারি খাতের সংগঠনসমূহ।

          আজ রাজধানীর একটি হোটেলে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় এবং ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার ফর মাইগ্রেশন পলিসি ডেভেলপমেন্ট (আইসিএমপিডি) আয়োজিত ‘পাবলিক প্রাইভেট সেক্টর পার্টনারশিপ ফর রিইন্টিগ্রেশন ইন বাংলাদেশ (পিপিপি)’ শীর্ষক প্রথম পর্বের সমাপনী অনুষ্ঠানে এ সংক্রান্ত একটি প্রতিশ্রুতিপত্র স্বাক্ষরিত হয়। প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এতে ৪২ টিরও বেশি সংগঠন এই প্রতিশ্রুতিপত্রে স্বাক্ষর করে।

          প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইমরান আহমদ বলেন, ‘আমি দায়িত্ব নেওয়ার পর আমার প্রথম কাজ ছিল সব অংশীজনদের একসঙ্গে নিয়ে আসা। হয়তো এই কারণেই আজকে এই আমরা এই পর্যায়ে এসেছি। আমরা যদি যারা যার ক্ষেত্রে আলাদা আলাদা কাজ করি তাহলে একসঙ্গে মিলিত হওয়া সম্ভব কখনই হবে না। এজন্য এই পাবলিক প্রাইভেট অংশীদারিত্ব সিস্টেম শুরু হল এবং আমি আশা করি এটি সফল হবে। একসঙ্গে কাজ করলে আমরা অভিবাসী কর্মীদের জন্য কিছু একটা করতে পারবো।’  

          এ সময় তিনি বিদেশ থেকে আগত অভিবাসীদের কল্যাণে ইউরোপীয় ইউনিয়নের অর্থায়নে বাংলাদেশে এই প্রথম সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের এক যৌথ ‘প্ল্যাটফর্ম’ তৈরির উদ্যোগ নেয়ার জন্য তিনি সহযোগী সংস্থা ইউরোপিয়ান রিটার্ন অ্যান্ড রি-ইন্টিগ্রেশন নেটওয়ার্ক (ইআরআরআইএন) ও বাস্তবায়নকারী সংস্থা আইসিএমপিডি এবং দাতা সংস্থা ইউরোপীয় ইউনিয়নকে ধন্যবাদ জানান।

          আইসিএমপিডি’র সিল্ক রুট রিজিওনের প্রধান সেডেফ ডিয়ারিং বলেন, বাংলাদেশি অভিবাসী কর্মীরা ফেরত আসছে। করোনার কারণে এমনটি হয়েছে। এখন ফিরে আসার হার কমেছে তবে অনেক অভিবাসী কর্মী অনেক কঠিন পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছেন। তাদের প্রথম প্রত্যাশাই হচ্ছে অর্থনৈতিক পুনরেকত্রীকরণ। 

          অনুষ্ঠানে আগত বিভিন্ন সরকারি, বেসরকারি, দেশীয় ও আন্তর্জাতিক সহযোগী সংস্থার প্রতিনিধিবৃন্দ বিদেশ ফেরত বাংলাদেশিদের সফল পুনরেকত্রীকরণের জন্য নিজ নিজ অবস্থান থেকে একযোগে কাজ করে যাওয়ার জন্য অভিমত ব্যক্ত করেন। অন্যান্য অতিথিদের মধ্যে জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো’র  মহাপরিচালক মোঃ শহীদুল আলম (এনডিসি), ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের মহাপরিচালক মোঃ হামিদুর রহমান, আইসিএমপিডি’র সিল্ক রুট রিজিওনের প্রধান সেডেফ ডিয়ারিং, ইআরআরআইএন’র প্রজেক্ট ম্যানেজার মারিয়ান উলব্রিচট এবং আইসিএমপিডি’র বাংলাদেশের কান্ট্রি কো-অর্ডিনেটর ক্যাপ্টেন (অব.) ইকরাম হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

 

বিএসসির জাহাজে নিহত হাদিসুর এর পরিবার পাবেন পাঁচ লাখ ডলার ক্ষতিপূরণ

 

ঢাকা ২৫ মে ২০২২ :

          ইউক্রেনের অলভিয়া বন্দরে ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত  ‘এম ভি বাংলার সমৃদ্ধি’ জাহাজে নিহত থার্ড ইঞ্জিনিয়ার হাদিসুর রহমানের পরিবারকে পাঁচ লাখ ডলার (প্রায় পাঁচ কোটি টাকা) ক্ষতিপূরণ পাবার ব্যবস্থা করেছে বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন (বিএসসি)। জাহাজের অন্য সদস্যরা সাত মাসের বেতন পাবেন। নিহত হাদিসুরের ভাইকে বিএসসিতে চাকরি দেয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।  তাঁর ভাই ১লা জুন বিএসসিতে যোগদান করবেন।

          আজ ঢাকায় বিএসসি টাওয়ারে অনুষ্ঠিত বিএসসির পরিচালনা পর্ষদের ৩১২তম বৈঠকে এসব তথ্য জানানো হয়।

           নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশনের (বিএসসি) পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বিএসসির পরিচালনা পর্ষদের ৩১২তম বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন।

          এ সময় অন্যান্যের মধ্যে পরিচালনা পর্ষদের সদস্য নৌপরিবহন সচিব মোঃ মোস্তফা কামাল, স্বতন্ত্র পরিচালক প্রফেসর এম শাহজাহান মিনা, স্বতন্ত্র পরিচালক ড. মোঃ আবদুর রহমান, বিএসসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক কমডোর এস এম মনিরুজ্জান, অর্থ বিভাগের যুগ্ম সচিব নাসিমা পারভীন, ড. পীযূষ দত্ত ও মোহাম্ম ইউসুফ উপস্থিত ছিলেন।

          বৈঠকে নিহত হাদিসুরের আত্মার মাগফিরাত কামনাসহ তাঁর শোকাহত পরিবারের প্রতি সহমর্মিতা প্রকাশ করা হয়।

          উল্লেখ্য, এবছরের ২ মার্চ ইউক্রেন-রাশিয়ার মধ্যে যুদ্ধকালীন ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে ‘এম ভি বাংলার সমৃদ্ধি’ জাহাজটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

 

সমন্বিত মহাপরিকল্পনা হতে হবে বিদ্যুৎ ও জ্বালানির টেকসই অবকাঠামো বিনির্মাণের ভিত্তি : বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা ২৫ মে ২০২২ :

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, সমন্বিত মহাপরিকল্পনা হতে হবে বিদ্যুৎ ও জ্বালানির টেকসই অবকাঠামো বিনির্মাণের ভিত্তি। দক্ষ ব্যবস্থাপনার সাথে জ্বালানি সম্পদের চাহিদা ও সরবরাহের সর্বোত্তম সমন্বয় থাকবে। আগামীর সম্ভাব্য  সমস্যা এবং তার সমাধান থকবে এখনই।

প্রতিমন্ত্রী আজ মন্ত্রণালয়ে সমন্বিত বিদ্যুৎ ও জ্বালানির মহাপরিকল্পনার সার্বিক অগ্রগতি নিয়ে জাইকার স্টাডি টিমের সাথে আলোচনাকালে এসব কথা বলেন। প্রতিমন্ত্রী বলেন, ফুয়েল মিক্সে প্রচলিত জ্বালানির সাথে আগামীর সম্ভাব্য জ্বালানির প্রতিফলন থাকা বাঞ্ছনীয়। বিদ্যুৎ বা গ্যাস ব্যবহারের অপরচুনিটি কষ্ট ও কৃষি বা শিল্পে ব্যবহার প্যাটার্নও এখানে থাকতে পারে।

The Institute of Energy Economics, Japan (IEEJ) কর্তৃক প্রণীতব্য মহাপরিকল্পনার স্টার্ডি টিমের প্রধান Ichiro Kutani সার্বিক অগ্রগতি বিষয়ে আলোকপাত করেন। তিনি বলেন, আগামী অক্টোবর ২০২২ নাগাদ খসড়া মহাপরিকল্পনা হবে। নভেম্বর ২০২২ নাগাদ অংশীজনদের  সাথে সভা করে তা চূড়ান্ত করা হবে। চাহিদার পূর্বাভাস, চাহিদা ও সরবরাহের সমন্বয়, রেফারেন্স দৃশ্যকল্প, নেট-শূন্য দৃশ্যকল্প, অত্যাধুনিক প্রযুক্তি দৃশ্যকল্প, জ্বালানি সংরক্ষণ, সাশ্রয়ী  নবায়নযোগ্য জ্বালনি, জ্বালানির বৈচিত্র্যকরণ, কার্বন নিঃসরণ হ্রাসের অবকাঠামো নির্মাণ ইত্যাদি নিয়ে আলোচনা করা হয়।

প্রতিমন্ত্রী এ সময় বলেন, যানবাহন বা ট্রেন বিদ্যুতে চলাচলে বা গ্রিণ হাইড্রোজেন নিয়েও এ মহাপরিকল্পনায় সুস্পষ্ট দিক নির্দেশনা থাকতে হবে। ইন্ডাকশন কুকার বা সোলার সেচ পাম্প নিয়েও কাজ করা যেতে পারে। ক্লিন এনার্জি পোর্টফোলিও উত্তরোত্তর বাড়ানোর প্রতিকল্প যেন থাকে।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, সাশ্রয়ীমূল্যে গ্রাহকদের বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সরবরাহ করতে চায় সরকার। জ্বালানির একাধিক বিকল্প উৎস থাকা বাঞ্ছনীয়। বৈচিত্র্যময় জ্বালানি ব্যবস্থাপনার সাথে বিদ্যুৎ-জ্বালানির সাশ্রয়ী ব্যবহার নিয়েও কাজ করা হচ্ছে। বাংলাদেশ জ্বালানি ও বিদ্যুৎ গবেষণা কাউন্সিল এবং টেকসই নবায়নযোগ্য জ্বালানি কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন গবেষণা ও বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী কার্যক্রম হাতে নিয়েছে। এ প্রতিষ্ঠান দু’টি জাইকার সাথে কাজ করলে আরো বাস্তবসম্মত ফল পাওয়া যাবে।

এ সময় অন্যান্যের মাঝে জাইকার বিদ্যুৎ ও জ্বালানি বিষয়ক উপদেষ্টা Toshiyuki Kobayash ও জাইকা বাংলাদেশের প্রতিনিধি Taro Katsurai উপস্থিত ছিলেন।

 

খেলাধুলার চর্চা শিশু-কিশোরদের মাদক ও সন্ত্রাস থেকে দূরে রাখে : সমাজকল্যাণমন্ত্রী

ঢাকা ২৫ মে ২০২২ :

          সমাজকল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ বলেছেন, শিশুদের শারীরিক ও মানসিক বিকাশে খেলাধুলার চর্চা বাড়াতে হবে। নিয়মিত খেলাধুলার চর্চা শিশু-কিশোরদের মাদক ও সন্ত্রাস থেকে দূরে রাখে।

          মন্ত্রী আজ শেখ কামাল স্টেডিয়ামে লালমনিরহাটে জেলা প্রশাসন ও জেলা ক্রীড়া অফিস লালমনিরহাট আয়োজিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট, বালক (অনূর্ধ্ব-১৭) ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট, বালিকা (অনূর্ধ্ব-১৭) এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যোগ দিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

           লালমনিরহাটের জেলা প্রশাসক মোঃ আবু জাফরের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অ্যাডভোকেট মতিয়ার রহমান ও সিভিল সার্জন ডা. নির্মলেন্দ রায় প্রমুখ।

          মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্রীড়াবান্ধব। তিনি খেলাধুলার প্রতি গুরুত্ব দিয়েছেন। প্রজন্মকে উপযুক্ত নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে  সরকার দেশে ক্রীড়া অবকাঠামো তৈরি করছে।

          মন্ত্রী খেলাধুলার পাশাপাশি সাহিত্য সংস্কৃতি চর্চায় শিশু-কিশোরদের উৎসাহী করতে শিক্ষক, অভিভাবক ও সংগঠকদের আহ্বান জানান।

          পরে মন্ত্রী ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন।

 

 

কবিতার ইতিহাসে নজরুলের ‘বিদ্রোহী’ এক অনন্য সাধারণ রচনা : সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

 

কুমিল্লা ২৫ মে ২০২২ :

সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেছেন, কবিতার ইতিহাসে কাজী নজরুল ইসলামের ‘বিদ্রোহী’ এক অনন্য সাধারণ রচনা। এক রাতেই তিনি বাংলা তথা বিশ্বসাহিত্যের অনবদ্য এ কবিতাটি রচনা করেছেন। মাত্র ২২ বছর বয়সে ১৯২১ সালের ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে নজরুল রচনা করেন ১৪১ পঙক্তির এই ভূবনবিজয়ী কবিতা যার প্রথম শ্রোতা ছিলেন মুজাফফর আহমদ। তার সূত্রে জানা যায়, সে সময় বলপেন বা ফাউন্টেনপেন ছিল না। দোয়াতে বারে বারে কলম ডোবাতে গিয়ে তার মাথার সঙ্গে তার হাত তাল রাখতে পারবে না ভেবে নজরুল কবিতাটি প্রথমে পেন্সিলে লিখেছিলেন। কবিতাটি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এক উজ্জ্বল মানচিত্র। যেখানে বেদ-পুরাণ-উপনিষদ-গীতা মহাকাব্য থেকে ইসলামের অনুষঙ্গ অসামান্য দক্ষতায় চিত্রিত হয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী আজ নজরুল স্মৃতিবিজড়িত কুমিল্লার বীরচন্দ্র গণপাঠাগার ও নগর মিলনায়তন প্রাঙ্গণে (টাউন হল) সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় কুমিল্লা জেলা প্রশাসন আয়োজিত জাতীয় পর্যায়ে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২৩তম জন্মবার্ষিকী উদ্‌যাপনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহ্‌মুদ।

প্রধান অতিথি বলেন, রবীন্দ্রনাথের পাশাপাশি বাংলা সাহিত্যকে সমৃদ্ধ করেছেন নজরুল। কিন্তু নজরুলের স্বাতন্ত্র্য হচ্ছে তিনি মুক্তিকামী মানুষের পক্ষে কথা বলেছেন, নির্যাতিত মানুষের পক্ষে কথা বলেছেন, সাম্য ও সম্প্রীতির কথা বলেছেন। কবিতা যে মানুষকে উদ্দীপ্ত করে, বিদ্রোহী করে- তার অনন্য উদাহরণ নজরুলের ‘বিদ্রোহী’ কবিতা।

বঙ্গবন্ধু কেন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি তার কারণ ব্যাখ্যা করে  ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেন, প্রায় পাঁচ হাজার পূর্বে বাঙালি জাতির উন্মেষ ঘটেছিল। আর বাংলা সাহিত্যের ইতিহাস দেড় হাজার বছরের পুরনো। এ সুদীর্ঘকালে পুরো বাংলা ভাষাভাষী অঞ্চল নিয়ে কোনো রাজ্য বা রাষ্ট্র ছিল না। বঙ্গবন্ধুই প্রথম বাংলা ভাষাভাষী অঞ্চল নিয়ে একটি জাতিরাষ্ট্র গঠন করেন যার নাম বাংলাদেশ। তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু নিরস্ত্র একটি জাতিকে একটি ভাষণের মাধ্যমে সশস্ত্র জাতিতে পরিণত করেছিলেন। জনযুদ্ধের মাধ্যমে একটি প্রশিক্ষিত সামরিক বাহিনীকে পরাস্ত করেছেন। এ রাষ্ট্র গঠনে বঙ্গবন্ধু নজরুলের কাছ থেকে অনুপ্রেরণা পেয়েছিলেন। মুক্তি ও সাম্যের পক্ষে কথা বলার প্রেরণা তিনি নজরুল থেকে পেয়েছিলেন। 

সভাপতির বক্তব্যে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী বলেন, কুমিল্লার মাটি ও মানুষের সঙ্গে নজরুলের রয়েছে অটুট বন্ধন। ১৯২১ সালের এপ্রিল থেকে ১৯২৩ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে নজরুল কুমিল্লায় এসেছেন মোট পাঁচবার। সবমিলিয়ে থেকেছেন প্রায় ১১ মাস। নজরুলের দাম্পত্য জীবনের বন্ধনও ঘটেছিল কুমিল্লায়। কুমিল্লার দৌলতপুরে ৭৩দিন অবস্থানকালে নজরুল ১৬০টি গান ও ১২০টি কবিতা রচনা করেছেন। এখানকার রচনা নজরুলকে প্রেমিক কবি হিসেবে পাঠক দরবারে পরিচিত করেছে।

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের প্রকৃতি, মানুষের অকৃত্রিম ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা নজরুলকে আকর্ষণ করেছিল। সে সময় তিনি সুদূর কলকাতা থেকে ছুটে এসেছেন ময়মনসিংহ, কুমিল্লা, চুয়াডাঙ্গা, মানিকগঞ্জ, চট্টগ্রামসহ পূর্ব বাংলার বিভিন্ন প্রত্যন্ত অঞ্চলে। কে এম খালিদ বলেন, সে সময় যাতায়াত ব্যবস্থা তেমন ভালো ছিল না। কোনো যাতায়াত মাধ্যম ও রুট ব্যবহার করে নজরুল এদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে এসেছিলেন তা নিয়ে আগ্রহী গবেষকগণ গবেষণা করতে পারেন। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় প্রয়োজনে এসব গবেষণাকর্মে পৃষ্ঠপোষকতা প্রদান করবে।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তৃতা করেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ আবুল মনসুর। স্মারক বক্তৃতা করেন অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক ও নজরুল গবেষক শান্তিরঞ্জন ভৌমিক। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি সিমিন হোসেন (রিমি) এমপি, কুমিল্লা-৬ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার, সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য রওশন আরা মান্নান এবং কবিপৌত্রী খিলখিল কাজী ও মিষ্টি কাজী। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন কুমিল্লার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান।

পরে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির আয়োজনে নৃত্যনাট্যসহ ৩০ মিনিটের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।

 

 

বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি-বেসরকারি বিনিয়োগের যথেষ্ট সুযোগ রয়েছে : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

 

ঢাকা ২৫ মে ২০২২ :

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি-বেসরকারি উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগের যথেষ্ট সুযোগ রয়েছে । বর্তমান বাংলাদেশ বৈদেশিক বিনিয়োগের জন্য অত্যন্ত উপযোগী ও সম্ভাবনাময়। বাংলাদেশ সরকারও এ বিষয়ে অত্যন্ত আন্তরিক। দেশি ও বিদেশি বেসরকারি বিনিয়োগ আকৃষ্ট করার জন্য একশোর অধিক অর্থনৈতিক অঞ্চল করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দেশের প্রাণিসম্পদ খাতে সরকার বিদেশি বিনিয়োগকারীদের স্বাগত জানাবে।

আজ রাজধানীর একটি হোটেলে প্রাণিসম্পদ খাতে যুক্তরাষ্ট্র-বাংলাদেশ সহযোগিতার ৫০বছর উদ্‌যাপন উপলক্ষ্যে আয়োজিত সেমিনারের প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। ইউএস ডিপার্টমেন্ট অভ্‌ এগ্রিকালচার (ইউএসডিএ) এ সেমিনারের আয়োজন করে।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্র সহযোগিতার ক্ষেত্র সম্প্রসারণ, অভিজ্ঞতা বিনিময় ও যৌথভাবে কাজ করছে। তৈরি পোশাক ছাড়াও বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে কৃষির বিভিন্ন খাত বিশেষ করে প্রাণিসম্পদ খাতে দীর্ঘ দিনের সম্পর্ক রয়েছে। সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি উদ্যোক্তারা বাংলাদেশে প্রাণিসম্পদ খাতের উন্নয়নে দৃঢ় ও গতিশীলভাবে কাজ করছে।

প্রধান অতিথি বলেন, সরকার দেশে গুঁড়ো দুধ আমদানিতে উৎসাহী নয়। এ জন্য বেসরকারি খাতকে সরকার গুঁড়ো দুধ উৎপাদনের শিল্প স্থাপনে উৎসাহিত করছে। গুঁড়ো দুধ, প্রাণিখাদ্য, মৎস্য খাদ্যসহ অন্যান্য খাদ্য আমদানিতে সরকার সন্তুষ্ট নয়। বর্তমানে বৈশ্বিক বৈরী পরিস্থিতির কারণে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাত সংশ্লিষ্ট পণ্য আমদানি ও পরিবহণে জটিলতা তৈরি হচ্ছে। এ জন্য বেসরকারি খাতকে দেশে শিল্প স্থাপনে আহ্বান জানানো হচ্ছে। সরকার এ খাতের উন্নয়নে নীতি নির্ধারণসহ সব ধরনের সহযোগিতা দেবে। এক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি ও বেসরকারি খাত আমাদের দেশের চাহিদা পূরণ ও তাদের বিনিয়োগ বৃদ্ধিতে এগিয়ে আসতে পারে। বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের বিনিয়োগ ও গবেষণার ক্ষেত্র বৃদ্ধিতে সরকারের পক্ষ থেকে সহযোগিতা উন্মুক্ত থাকবে।

প্রাণিসম্পদ খাত বিগত ৫০ বছর ধরে দেশের খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তা নিশ্চিতে ভূমিকা রাখছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, আমাদের প্রাণিসম্পদ খাতের বিজ্ঞানীরা শুধু দেশেই নয়, বিদেশেও অবদান রাখছে। বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপ দু’দেশের মধ্যে একসাথে কাজের ক্ষেত্র বৃদ্ধি নিয়ে কাজ করতে পারে। এটা হতে পারে দু’দেশের মধ্যে প্রশিক্ষণ, শিক্ষা বিনিময়সহ অন্যান্য কর্মসূচি।

বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের ডেপুটি চিফ অভ্‌ মিশন হেলেন লাফেবের সভাপতিত্বে সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মুহাম্মদ ইয়ামিন চৌধুরী ও যুক্তরাষ্ট্রের লাইভস্টক জেনেটিক্স এক্সপার্ট এর প্রেসিডেন্ট ড. মার্টিন সিবার। স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসে ইউএসডিএ-এর এগ্রিকালচারাল এটাচে মেগান ফ্রান্সিস। মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এস এম ফেরদৌস আলম, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. মনজুর মোহাম্মদ শাহজাদাসহ অধিদপ্তরের অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

 

বন্ধ পাটকলের অবসরোত্তর পাওনাসহ অন্যান্য দায়-দেনা পরিশোধে প্রায় ৫৭৪ কোটি টাকা বরাদ্দ

 

ঢাকা ২৫ মে ২০২২ :

বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বন্ধঘোষিত বাংলাদেশ পাটকল করপোরেশন (বিজেএমসি)-এর মিলসমূহের অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পাওনা, কাঁচা পাট সরবরাহকারীদের পাওনা এবং অন্যান্য পাওনা  বাবদ মোট ৫৭৪ দশমিক ১৪ কোটি টাকা বিজেএমসি’র অনুকূলে বরাদ্দ দিয়েছে সরকার।

২০২১-২২ অর্থবছরের অর্থ বিভাগের সংশোধিত বাজেটে  ‘পরিচালন ঋণ’ খাত হতে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বিজেএমসি এর অনুকূলে  ‘পরিচালন ঋণ’  হিসেবে  এ অর্থ বরাদ্দ প্রদান করা হয়।

বরাদ্দকৃত অর্থ, ৩২৭ দশমিক ৭ কোটি টাকা ১,৯৮০ জন অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পাওনা, ২,২১৭ জন কাঁচা পাট সরবরাহকারীদের পাওনা বাবদ ২৩৪ দশমিক ৯১ কোটি এবং ১,১১৯ জন স্টোর সরবরাহ/ক্যারিং সংশ্লিষ্ট সরবরাহকারীদের পাওনা বাবদ ১২ দশমিক ১৬ কোটি টাকা ব্যতীত অন্য কোন খাতে ব্যয় করা যাবেনা। এ অর্থ সংশ্লিষ্ট মিলের অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের, কাঁচা পাট সরবরাহকারী এবং স্টোর সরবরাহ/ক্যারিং সংশ্লিষ্ট সরবরাহকারীদের সুনির্দিষ্ট ব্যাংক অ্যাকাউন্ট এর মাধ্যমে পরিশোধ   করতে হবে।

সম্প্রতি অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক চিঠিতে জানানো হয়, আগামী ২০ বছরে (৫ বছরের গ্রেস পিরিয়ডসহ) ৫ শতাংশ সুদে ষান্মাসিক কিস্তিতে এ অর্থ পরিশোধ করতে হবে। আর এ জন্য অর্থ বিভাগের সঙ্গে বিজেএমসিকে একটি ঋণ চুক্তি সম্পাদন করতে হবে। চিঠিতে বিশেষভাবে বলা হয়েছে, অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারী, কাঁচাপাট সরবরাহকারী, স্টোর সরবরাহ বা ক্যারিং সংশ্লিষ্ট সরবরাহকারীদের পাওনা পরিশোধকালে বিজেএমসি কর্তৃপক্ষ তাদের পাওনার বিষয়টি সরকারি বিধি-বিধানের আলোকে পুনরায় যাচাই বাছাই করে নিশ্চিত হয়ে পাওনা পরিশোধ করবে। পাওনা পরিশোধকালে পাওনার বিষয়ে কোন অসঙ্গতি দৃষ্টিগোচর হলে বিজেএমসি বা মিল কর্তৃপক্ষ অবিলম্বে তা সংশোধনের ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। বরাদ্দকৃত অর্থ ব্যয়ে সরকারের বিদ্যমান বিধি-বিধান অনুসরণ করতে হবে। বিধি বহির্ভূতভাবে কোন অর্থ পরিশোধ করা হলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা দায়ী থাকবেন।

কোন অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সংশ্লিষ্ট মিল অথবা বিজেএমসি’র বিরুদ্ধে কোন মামলা করে থাকলে সরকারি নির্দেশ অনুযায়ী মামলার সকল ধাপ সম্পন্ন হওয়ার পর আদালতের রায় অনুযায়ী অথবা উক্ত অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিকট হতে মামলা প্রত্যাহারপূর্বক লিখিত আবেদন প্রাপ্তি সাপেক্ষে তাদের পাওনা পরিশোধের বিষয় বিবেচনা করতে হবে। অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মিল কর্তৃপক্ষের নিকট ব্যক্তিগত দায় বা নিরীক্ষা আপত্তি থেকে থাকলে উক্ত আপত্তি নিষ্পত্তি হবার পর যথাযথ বিধি-বিধানের আলোকে পাওনাদি পরিশোধ করতে হবে। অব্যয়িত অর্থ পরবর্তীতে সরকারি কোষাগারে জমা প্রদান করতে হবে।

 

 

ইতিহাস থেকে অনুপ্রাণিত হতে আইইউটি’র গ্রাজুয়েটদের প্রতি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আহ্বান

 

ঢাকা ২৫ মে ২০২২ :

 

মুসলিম উম্মাহর গৌরবময় ইতিহাস থেকে অনুপ্রেরণা নিতে ইসলামিক ইউনিভার্সিটি অব টেকনলোজির (আইইউটি) গ্রাজুয়েটদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। আইইউটি’র মূল উদ্দেশ্য হলো সদস্য দেশগুলোর মানবসম্পদ উন্নয়নে, বিশেষ করে প্রকৌশল, প্রযুক্তি এবং কারিগরি শিক্ষায় সহযোগিতা করা।

 সোমবার গাজীপুরে আইইউটি এর ৩৪তম সমাবর্তন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ আহ্বান জানান। 

মুসলমানদের গৌরবময় ইতিহাস স্মরণ করে ড. মোমেন বলেন, ইসলামের স্বর্ণযুগে বিজ্ঞান, শিল্প ও সাহিত্যে মুসলমান পণ্ডিতগণ আধুনিক সভ্যতার বিকাশে অবদান রেখেছেন। ইসলাম বিদ্বেষমূলক অপপ্রচারের বিষয়ে তিনি বলেন, আমরা (মুসলিমরা) সন্ত্রাসী নই। তিনি মুসলমানদের মর্যাদা ও সুনাম বিশ্বের কাছে তুলে ধরতে নতুন প্রজন্মের প্রতি অনুরোধ জানান। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর দূরদর্শী নেতৃত্বেই বাংলাদেশ ১৯৭৪ সালে ওআইসিতে যোগদান করেছিল। 

কোভিড-১৯ মহামারির মধ্যেও একাডেমিক কার্যক্রম যথাযথভাবে সম্পন্ন করায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী আইইউটি কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানান এবং বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ হতে আইইউটিকে সবধরনের অব্যাহত সহযোগিতার বিষয়ে আশ্বস্ত করেন। 

আইইউটি’র এ সমাবর্তনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী পিএইচডি ডিগ্রি সম্পন্নকারীদের হাতে সার্টিফিকেট তুলে দেন এবং একাডেমিক ফলাফলে উৎকর্ষতার জন্য শিক্ষার্থীদের ওআইসি এবং আইইউটি মেডেল প্রদান করেন। 

অনুষ্ঠানে কৃষি মন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক, আইইউটির উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, ওআইসি’র প্রতিনিধিবৃন্দ, ডিপ্লোম্যাটিক কোরের সদস্যবৃন্দ, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ, আমন্ত্রিত অতিথিবর্গ এবং আইইউটি’র শিক্ষকবৃন্দ ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

২০২০ সালের অনার্স চতুর্থ বর্ষ পরীক্ষার ফল প্রকাশ

 

ঢাকা ২৫ মে ২০২২ :

 

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অনুষ্ঠিত ২০২০ সালের অনার্স চতুর্থ বর্ষ পরীক্ষার ফল আজ প্রকাশ করা হয়েছে। সন্ধ্যা ৭টা থেকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট www.nu.ac.bd/results অথবা www.nubd.info/results এ পরীক্ষার ফল পাওয়া যাবে। 

পরীক্ষায় ৭৩৩টি কলেজের ২ লাখ ৯৪ হাজার ৭২৭ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। পরীক্ষায় গড় পাসের হার
৭৭ দশমিক ৫৭ শতাংশ।

উল্লেখ্য, ৪ বছরের সমন্বিত ফল (CGPA) আগামী সপ্তাহে প্রকাশিত হবে।   

 

 

শিক্ষাক্ষেত্রে লক্ষ্য অর্জনে সরকারি ও বেসরকারি সমন্বিত উদ্যোগ জরুরি

ডাভোসে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের প্যানেল আলোচনায় শিক্ষামন্ত্রী

 

ডাভোস, ২৫ মে ২০২২ :

 

গতকাল সুইজারল্যান্ড এর ডাভোসে চলমান ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের আয়োজনে Meeting
of the Education 4.0 Alliance এর সভায় চারজন বক্তার অন্যতম হিসেবে বক্তব্য রাখেন শিক্ষামন্ত্রী ডা.দীপু মনি।  

সভায় বাংলাদেশ সরকারের উদ্যোগে তৈরি National Blended Education Master Plan (2022-2031) এবং ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের সাথে Closing the Education Gap Accelerator এ বাংলাদেশের অংশগ্রহণ বিষয়ে আলোচনা হয়। এ সেশনে শিক্ষাক্ষেত্রে লক্ষ্য অর্জনে সরকারি ও বেসরকারি সমন্বিত উদ্যোগের বিষয়ে তিনি গুরুত্বারোপ করেন।

এছাড়া ডাভোসে চলমান ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামে ‘Where will the jobs of tomorrow come from?’ শীর্ষক প্যানেল আলোচনায় অন্যতম আলোচক হিসেবে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি অংশগ্রহণ করেন। তাঁর সাথে প্যানেল আলোচক হিসেবে ছিলেন কানাডার উদ্ভাবন, বিজ্ঞান ও শিল্পমন্ত্রী ফ্রাঁসোয়া ফিলিপ শাম্পান, সুইডেনের অর্থমন্ত্রী মিকায়েল ড্যামবার্গ এবং নেদারল্যান্ড এর বুর্টজর্গ নামক প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা ইয়স ডি ব্লক। আলোচনায় মডারেটর ছিলেন নিউইয়র্ক টাইমসের ডেপুটি ম্যানেজিং এডিটর রেবেকা ব্লুমেনস্ট্যাইন।

আলোচনায় অংশ নিয়ে ডা. দীপু মনি বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শিক্ষা ব্যবস্থায় পরিবর্তন, প্রযুক্তির অগ্রগতির সাথে তাল মিলিয়ে চলার উপযোগী মানবসম্পদ তৈরির কর্মযজ্ঞ, সমতা, সাম্য ও অন্তর্ভুক্তিমূলক যেসকল নীতি অনুসৃত হচ্ছে সেসকল বিষয়ে আলোকপাত করেন। এছাড়া তিনি আমাদের বিশাল জনসংখ্যাকে জনসম্পদে পরিণত করা, সরকারি ও বেসরকারি খাতের সমন্বিত উদ্যোগের মাধ্যমে নতুন কর্মসুযোগ তৈরি করা, নতুন প্রজন্মের জন্য মানুষ ও পৃথিবীর কল্যাণ কেন্দ্রিক কর্মসৃজন করা, নারীর কর্মজগতে প্রবেশকে অবাধ করাসহ অন্যান্য সংশ্লিষ্ট বিষয়ে বক্তব্য রাখেন।

 

জাতীয় কবির সমাধিতে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন

 

ঢাকা ২৫ মে ২০২২ :

 

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২৩তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে রাজধানীর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদ সংলগ্ন কবির সমাধিতে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

আজ সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদের নেতৃত্বে কবির সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ আবুল মনসুরসহ মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ। এসময় বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা, আর্কাইভস ও গ্রন্থাগার অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ফরিদ আহমদ ভূঁইয়া, বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর এর মহাপরিচালক খোন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান, প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের মহাপরিচালক রতন চন্দ্র পণ্ডিত ও কবি নজরুল ইনস্টিটিউট এর নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ জাকির হোসেন উপস্থিত ছিলেন।  

 

লিসবনে বঙ্গবন্ধু ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ২০২২ এর সফল আয়োজন

 

লিসবন, ২৫ মে ২০২২ : 

                                       

বাংলাদেশ দূতাবাস, লিসবন এর উদ্যোগে পর্তুগালে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের অংশগ্রহণে তিন দিনব্যাপী ‘বঙ্গবন্ধু ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ২০২২’ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল স্থানীয় জামুর স্টেডিয়াম কমপ্লেক্স-এ টুর্নামেন্ট এর ফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন পর্তুগালে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত তারিক আহসান। 

ফাইনাল ম্যাচে ‘ইয়াং টাইগার্স’ টিমকে হারিয়ে ‘লিসবন সিক্সার্স’ ‘বঙ্গবন্ধু ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ২০২২’- এর শিরোপা অর্জন করে। রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীবৃন্দ, ছাত্র, সাংবাদিক, ব্যবসায়ীসহ পর্তুগালে বসবাসরত বাংলাদেশি কমিউনিটির সদস্যবৃন্দ দূতাবাসের এ আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন।

পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রদূত তারিক আহসান বলেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষকে স্মরণীয় করে রাখতে এবং জাতির পিতার কর্ম ও আদর্শকে বিশ্বব্যাপী নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে দূতাবাস এ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট-এর আয়োজন করেছে। দেশ হতে সহস্র মাইল দূরে বিদেশের মাটিতে এরকম ক্রীড়া প্রতিযোগিতা প্রবাসীদের মাঝে আনন্দের উপলক্ষ্য বয়ে এনেছে। এর মাধ্যমে প্রবাসী বাংলাদেশিদের মাঝে সম্প্রীতির বন্ধন আরো দৃঢ় হবে বলেও তিনি আশা প্রকাশ করেন।

এর আগে গত ১৭ মে দূতাবাসের অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজ হতে টুর্নামেন্টের ঘোষণা দেয়া হয় এবং দল আহ্বান করা হয় যা প্রবাসী বাংলাদেশিদের মাঝে বিপুল সাড়া ফেলে। ২০টি দলের অংশগ্রহণে নক-আউট ভিত্তিক এ টুর্নামেন্টের গ্রুপ পর্যায় এবং কোয়ার্টার ফাইনালের ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয় সান্তা আপোলোনিয়া মাঠে এবং সেমিফাইনাল ও ফাইনাল ম্যাচ গুলো অনুষ্ঠিত হয় জামুর স্টেডিয়াম কমপ্লেক্সে। শুধুমাত্র লিসবনই নয়, পর্তুগালের নানা প্রান্ত হতে ক্রীড়াপ্রেমী বাংলাদেশিগণ এ টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করেন।

Social

More News
© Copyright: 2020-2022

Bangladesh Beyond is an online version of Fortnightly Apon Bichitra 

(Reg no: DA 1825)

Developed By Bangladesh Beyond