[Valid RSS]
August 18, 2022, 2:05 am
Treanding
Wasfia Nazreen returned home after conquering ‘Chhogori-K2’ Globe witnessing strongest heat wave in six decades জন্মাষ্টমী উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির বাণী   Unscrupulous traders are taking advantage of fuel price hike: Tipu realme is Entering the Second Stage of Growth : Sky Li, realme CEO APAC Outlook : Surviving the Year’s Rocky and Uneven Start APAC Chartbook: The Power of Prices Delta Brac Housing Finance Corp. Ltd gets new name DBH Finance PLC US wants to prolong Ukraine conflict : Putin Russian President addressed 10th Moscow Conference on International Security Russia warns of ‘direct military clash’ with US Explosions rock Crimea : Ukrainian attack suspected আন্তঃ ক্যান্টনমেন্ট বিতর্ক প্রতিযোগিতা- ২০২২ এর উদ্বোধন উত্তরার বিআরটি প্রকল্পের দুর্ঘটনায় দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি রোড সেফটি ফাউন্ডেশনের  চা-শ্রমিকদের নিকট গ্রহণযোগ্য যৌক্তিক মজুরি নির্ধারণের আহবান টিআইবির Prayers offered for Bangabandhu at PMO Launch fare increased by 30 percent ECNEC approves 6 projects involving Tk 2,504.75cr Experts suggested reassessment of the country’s maternal, child health programs & policies Russia and UN discuss crisis at nuclear plant

৩০ জুলাই এক নজরে বাংলাদেশ

Bangladesh Beyond
  • Updated on Sunday, July 31, 2022
  • 46 Impressed

৩০ জুলাই এক নজরে বাংলাদেশ

 

বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘর পরিদর্শন করলেন রাষ্ট্রপতি

 

ঢাকা, ১৫ শ্রাবণ (৩০ জুলাই) :

 

বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘর পরিদর্শন করলেন রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ। আজ রাজধানীর বিজয় সরণিতে নির্মিত বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘরে পৌঁছলে সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার লেফটেন্যান্ট জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামান রাষ্ট্রপতিকে স্বাগত জানান।

বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘরের স্থাপনাসহ বিভিন্ন দিক সম্পর্কে রাষ্ট্রপতিকে অবহিত করা হয়।

এরপর রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ সামরিক জাদুঘরের বিভিন্ন গ্যালারি ঘুরে দেখেন।

মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসসহ জাদুঘরে বাংলাদেশ সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর ইতিহাস, ঐতিহ্য, সাফল্য তুলে ধরা হয়েছে।

এছাড়া ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় ব্যবহৃত বিভিন্ন যানবাহন এবং সামরিক বাহিনীর বিভিন্ন অস্ত্র শস্ত্র ও উপকরণ সংরক্ষিত রয়েছে।

সংসদ সদস্য রেজোয়ান আহম্মদ তৌফিকসহ রাষ্ট্রপতির পরিবারের সদস্যগণ এবং রাষ্ট্রপতির সচিবগণ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও রাষ্ট্রপতি তোষাখানা পরিদর্শন করেন।

পরে, রাষ্ট্রপতি বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘর প্রাঙ্গণে লাইট অ্যান্ড সাউন্ড ডিসপ্লে উপভোগ করেন এবং পরিদর্শন বইয়ে স্বাক্ষর করেন।

 

বরিশালে ভাঙনকবলিত এলাকা পরিদর্শনে গেলেন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী

 

বরিশাল, ১৫ শ্রাবণ (৩০ জুলাই) :

 

পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক বলেছেন, চরকাউয়া-চরমোনাইয়ের ভাঙনকবলিত এলাকার সমীক্ষা শেষ হয়েছে। আশা করছি জানুয়ারির মধ্যে এ এলাকায় কাজ শুরু হবে। এখানে ৮শ’ কোটি টাকার প্রকল্প প্রস্তাবনা একনেকে পাঠানো হবে।

 

আজ বরিশাল সদর উপজেলার চরকাউয়া, চরমোনাই ও চরবাড়িয়া এলাকার নদী ভাঙন পরিদর্শন শেষে এসব কথা বলেন ।

 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, চরবাড়িয়া এলাকায় চলমান প্রকল্প শেষ পর্যায়ে রয়েছে। আমরা চরকাউয়া-চরমোনাই নিয়ে আরেকটি প্রকল্পের পরিকল্পনা করছি। সেই প্রকল্প আগে ৫শ’ কোটি টাকার প্রস্তাবনা ছিল। ভাঙনকবলিত এসব এলাকায় সমীক্ষা শেষ হয়েছে। আগামী এক মাসের মধ্যে এই ৮শ’ কোটি টাকার প্রকল্প পরিকল্পনা কমিশন হয়ে একনেকে উত্থাপনের চেষ্টা করব। আমরা আশা করছি আগামী জানুয়ারির মধ্যে এই কাজটি শুরু হবে। প্রস্তাবিত এই প্রকল্পের ব্যয় ৮শ’ কোটি টাকা হবে বলে জানান তিনি।

 

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, বরিশালের বিভিন্ন এলাকায় নদী ভাঙন হচ্ছে। আজকে আমি চরকাউয়া, লামছড়ি, বুখাইনগর ভুঁইয়াবাড়ি, নিমাই হাওলাদার বাড়ি এলাকা দেখেছি। এই এলাকাগুলো নদী ভাঙনকবলিত এলাকা। আমি পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের সঙ্গে নিয়ে পরিদর্শন করেছি। ভাঙনকবলিত এলাকা দেখে যেখানে যেখানে কাজ করতে হবে তাৎক্ষণিক নির্দেশনা দিয়েছি।

 

সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মাজাবুবুর রহমান, মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মাহমুতদুল হক খান মামুনসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন।

 

বর্তমান সরকার শিক্ষাবান্ধব এই সরকারের আমলেই শিক্ষার প্রসার হয়েছে : পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী

 

বান্দরবান, ১৫ শ্রাবণ (৩০ জুলাই) :

 

বর্তমান সরকার শিক্ষাবান্ধব, আর এই সরকারের আমলেই শিক্ষার প্রসার হয়েছে। আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আছে বলেই পার্বত্য চট্টগ্রামের মতো প্রত্যন্ত অঞ্চলে স্কুল,কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে উঠেছে, শিক্ষার হার বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে জানান পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং।

 

আজ বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের আওতাধীন সাতটি উপজেলার প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নিয়োগপ্রাপ্ত ২৭৬জন সহকারী শিক্ষকের হাতে নিয়োগপত্র প্রদান অনুষ্ঠানে বক্তৃতায় এসব কথা বলেন পার্বত্যমন্ত্রী।

 

মন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকারের সময়ে পার্বত্য চট্টগ্রামে শিক্ষা বিস্তারে অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পার্বত্য চট্টগ্রামের উন্নয়নের পাশাপাশি শিক্ষার প্রসারে অত্যন্ত আন্তরিক। তিনি পার্বত্য অঞ্চলের ছাত্র-ছাত্রীদের কথা বিবেচনা করে আবাসিক বিদ্যালয় স্থাপনের ওপর জোর দিয়েছেন। নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষকদের শিক্ষাক্রম অনুসারে শিক্ষার্থীদের পাঠদানে আন্তরিক হওয়া এবং দেশের উন্নয়নে অংশীদার হওয়ার আহ্বান জানান মন্ত্রী।

 

জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্যশৈহ্লা’র সভাপতিত্বে এসময় অতিরিক্ত জেলা প্রশসাক মোঃ শেখ সাদেক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অশোক কুমার পাল, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ শফিউল ইসলাম, জেলা পরিষদের সদস্য লক্ষীপদ দাশ, মোজাম্মেল হক বাহাদুর, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা অভিজিত শীল ও প্রেস ক্লাবের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বাচ্চু উপস্থিত ছিলেন।

 

জনগণকে দ্রুত ন্যায়বিচার প্রদানের আহ্বান আইনমন্ত্রীর

ঢাকা, ১৫ শ্রাবণ (৩০ জুলাই) :

জনগণকে দ্রুত ন্যায়বিচার প্রদানের প্রতি গুরুত্বারোপ করে বিচারকদের উদ্দেশ্যে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, মামলার বিচার করতে দেরি হলে ন্যায়বিচার শব্দের ন্যায় কথাটি আস্তে আস্তে অনেক ঝাপসা হয়ে যায়। এই ঝাপসাটা হতে দিবেন না। যখন পরিষ্কার থাকে তখনই যাতে মামলাটা শেষ হয়, সেই কাজটা আপনারা করবেন। সেই সাথে মামলা নিষ্পত্তির হার বাড়াবেন। আমি জনগণের একজন প্রতিনিধি হিসেবে আপনাদের কাছে এটুকু অনুরোধ করছি। আইনজীবীদের সাথে বিচারকদের সুসম্পর্ক থাকলে মামলা নিষ্পত্তির হার বাড়বে এবং বিচার বিভাগ শক্তিশালী হবে বলে মনে করেন মন্ত্রী।

আজ রাজধানীর ধানমন্ডির জিনজিয়ান রেস্টুরেন্টে বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস এসোসিয়েশনের আয়োজনে আইন ও বিচার বিভাগের সচিব মোঃ গোলাম সারওয়ারকে দেওয়া এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী একথা বলেন। মোঃ গোলাম সারওয়ারকে আইন ও বিচার বিভাগে পূর্ণাঙ্গ সচিব হিসেবে পদায়ন উপলক্ষ্যে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশকে স্বাধীন করার চেষ্টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অন্যতম চাওয়া ছিল, জনগণকে ন্যায়বিচার পাইয়ে দেওয়া। কারণ তিনি কখনও ন্যায়বিচার পাননি। এমনকি মৃত্যুর পরও ন্যায়বিচার পাননি। সেক্ষেত্রে আজকে আমাদের সবচেয়ে বড় দায়িত্ব হচ্ছে, বিচার বিভাগকে এমনভাবে সাজানো, যাতে বাংলাদেশের জনগণের দ্রুত ন্যায়বিচার পাওয়ার অধিকার পূরণ হয়। তিনি বলেন, এই লক্ষ্যকে সামনে রেখে সরকার কাজ করে যাচ্ছে।

আনিসুল হক বিচারকদের উদ্দেশ্যে বলেন, বিচার বিভাগের স্বার্থে আপনারা সরকারের কাছে বা রাষ্ট্রের কাছে যা চাইবেন তা দিয়ে দেওয়া হবে। বিনিময়ে দ্রুত ন্যায়বিচার চাই। তিনি আরো বলেন, জনগণের টাকা-পয়সায় দেশ চলে, তাদের পরিশ্রমে, তাদের মাথার ঘাম পায়ে ফেলে কাজ করার কারণে আমরা এই অবস্থানে আছি। তাই তাদের ন্যায়বিচার প্রাপ্তিকে নিশ্চিত করতে হবে।

আইনমন্ত্রী বিশ্বাস করেন, বিচার বিভাগ স্বাধীনভাবে চলার জন্য নেতৃস্থানীয় এবং প্রত্যেকটা পদে সৎ ও দক্ষ কর্মকর্তা থাকা উচিত। এছাড়া যারা বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস করে, দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে এমন কর্মকর্তা থাকা প্রয়োজন। মোঃ গোলাম সারওয়ার দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করার কারণেই আইন ও বিচার বিভাগের সচিব পদে আসীন হয়েছেন বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

এসোসিয়েশনের সভাপতি এ এইচ এম হাবিবুর রহমান ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আইন ও বিচার বিভাগের সচিব মোঃ গোলাম সারওয়ার, যুগ্ম সচিব ও এসোসিয়েশনের মহাসচিব বিকাশ কুমার সাহা, ঢাকার মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ, নির্বাচন কমিশনের যুগ্ম সচিব (আইন) মাহাবুবার রহমান সরকার, আইন ও বিচার বিভাগের উপসচিব শেখ গোলাম মাহবুব, কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট আপিলেট ট্রাইব্যুনালের সদস্য- বিচার(জেলা জজ) মোঃ সোহেল আহমেদ, বান্দরবান জেলার জেলা ও দায়রা জজ ফজলে এলাহি ভূঁইয়া, নারায়ণগঞ্জের জেলা ও দায়রা জজ মুন্সি মশিউর রহমান, ঢাকার সন্ত্রাস বিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোঃ মজিবর রহমান, মোঃ সোহেল আহমেদ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে এসোসিয়েশনের সর্বস্তরের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

বিএনপির হারিকেন মিছিল দেখে মনে হয় তাদের নির্বাচনি প্রতীক বদলে গেল কি না : তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী

 

নীলফামারী, ১৫ শ্রাবণ (৩০ জুলাই) :

 

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেছেন, ‘বিএনপির হারিকেন নিয়ে মিছিল দেখে মনে হয় বিএনপির নির্বাচনি প্রতীক বদলে হারিকেন হয়ে গেল কি না। আর জনগণ আশঙ্কায় আছে, হারিকেন কখন আবার পেট্রলবোমা হয়ে যায়। কারণ তারা তো মানুষের ওপর পেট্রলবোমা নিক্ষেপ করেছে।’

 

আজ নীলফামারী জেলার জলঢাকা উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী একথা বলেন।

 

এসময় বিএনপির উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, ‘দেশে যথাসময়ে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আমরা চাই সবদলের অংশগ্রহণে একটি উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচন হোক। আমরা আশা করি, নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ করবে। তবে নির্বাচনের ট্রেন কারো জন্য দাঁড়িয়ে থাকবে না। ২০১৪ এবং ২০১৮ সালেও নির্বাচনের ট্রেন কারো জন্য দাঁড়িয়ে ছিল না। ২০২৪ সালের শুরুতেও নির্বাচনের ট্রেন কারো জন্য দাঁড়িয়ে থাকবে না।

 

বিএনপির সমালোচনা করে হাছান মাহ্‌মুদ বলেন, ‘আসলে বিএনপিকে নির্বাচনভীতি পেয়ে বসেছে। কারণ ২০১৮ সালে সব দলের ঐক্য করে নির্বাচন করে তারা মাত্র পাঁচটি আসন পেয়েছিল। এজন্য তারা নির্বাচনকে ভয় পায় এবং নির্বাচন নিয়ে নানা  বিভ্রান্তি ছড়ানোর অপচেষ্টা চালাচ্ছে। আমি বিএনপিকে অনুরোধ জানাবো, এই ধরনের বিভ্রান্তি না ছড়িয়ে বরং জনগণের কাছে যাওয়ার জন্য।’

 

আগামী নির্বাচনেও আওয়ামী লীগের বিজয় নিশ্চিত উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান বলেন, ‘বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সমগ্র দেশে সুসংগঠিত। আমাদের দলে তৃণমূল পর্যায়ের নেতৃত্বকে মূল্যায়ন করে তাদেরকে বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃত্বের আসনে বসানো হচ্ছে।  দলে কেউ বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। সারাদেশ ঘুরে আমার উপলব্ধি, দল সারাদেশে যেভাবে সুসংগঠিত, আগামী নির্বাচনেও ইনশাআল্লাহ জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা বিজয়ী হব। সে কারণে বিএনপি শঙ্কিত।’

 

জলঢাকা ডিগ্রি কলেজ মাঠে সম্মেলন উদ্বোধন করেন নীলফামারী জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি দেওয়ান কামাল আহমেদ। জলঢাকা উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অধ্যাপক গোলাম মোস্তফার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা দেন দলের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন শফিক, উপপ্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, কার্যনির্বাহী সদস্য অ্যাডভোকেট হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া, অ্যাডভোকেট সফুরা বেগম, আব্দুল আউয়াল শামীম, জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মমতাজুল হক। এর আগে কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ সম্মেলনে বক্তব্য দেন।

 

ই-নামজারিতে স্বাক্ষরবিহীন কিউআর কোডযুক্ত ডিসিআর ও খতিয়ান চালু

 

ঢাকা, ১৫ শ্রাবণ (৩০ জুলাই) :     

 ই-নামজারি প্রক্রিয়ায় প্রণীত খতিয়ান ও ডিসিআর-এর নতুন ফরমেটে কিউআর কোড সংযুক্ত করা হয়েছে। কিউআর কোডযুক্ত ডিসিআর ও খতিয়ানে সহকারী কমিশনার (ভূমি) বা নাজিরের ম্যানুয়াল স্বাক্ষরের (সরাসরি হাতে প্রদত্ত কিংবা স্ক্যান/ছবি তুলে সংযুক্ত) প্রয়োজন নেই।

ভূমিসেবা জনবান্ধব করার প্রত্যয়ে ভূমির সকল সেবাকে ডিজিটাইজড করা হচ্ছে। তারই আলোকে ই-মিউটেশন প্রক্রিয়ায় প্রণীত খতিয়ান ও ডিসিআর এর নতুন ফরমেটে কিউআর কোড (Quick Response Code/ 2D bar code) সংযুক্ত করা হয়েছে। কিউআর কোডযুক্ত ডিসিআর ও খতিয়ান ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে প্রদত্ত  ডিসিআর ও খতিয়ান-এর  সমতুল্য এবং আইনগতভাবে বৈধ ও সর্বক্ষেত্রে গ্রহণযোগ্য ও ব্যবহারোপযোগী। কিউআর কোডযুক্ত ডিসিআর ও খতিয়ান প্রাপ্তির পর ভূমি অফিস থেকে ম্যানুয়াল ডিসিআর /খতিয়ান সংগ্রহ করার প্রয়োজনীয়তা নেই।

ভূমি মন্ত্রণালয়ের ভূমিসেবা কাঠামো https://land.gov.bd অথবা সরাসরি ই-নামজারি ওয়েবসাইট https://mutation.land.gov.bd এ গিয়ে QR কোড স্ক্যান করে কিউআর কোডযুক্ত অনলাইন ডিসিআর এবং কিউআর কোডযুক্ত অনলাইন খতিয়ানের বৈধতা সহজেই যাচাই করা যাবে। এই সংক্রান্ত একটি পরিপত্র ইতোমধ্যে জারি করা হয়েছে।

 

ধাক্কা দিয়ে সরকারকে সরাতে পারবে না বিএনপি : কৃষিমন্ত্রী

 

ঢাকা, ১৫ শ্রাবণ (৩০ জুলাই) :     

 

কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকারকে বিএনপি ধাক্কা দিয়ে সরাতে পারবে না। বিএনপি ২০১৩ সালে থেকে কখনও জামায়াতকে নিয়ে, কখনও হেফাজতকে নিয়ে ধাক্কা দিয়ে যাচ্ছে। সরকারকে নড়াতে-সরাতে সক্ষম হয়নি। বরং সরকারকে ধাক্কা দিতে গিয়ে বিএনপি নিজেই মুখ থুবড়ে পড়ে গেছে।

 

          আজ কামরাঙ্গীরচর সরকারি হাসপাতাল মাঠে কামরাঙ্গীরচর থানা ও ৫৫, ৫৬, ৫৭ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

 

মন্ত্রী বলেন, জঙ্গি বিএনপি, লুটেরা বিএনপি ও সন্ত্রাসী বিএনপির পায়ের নিচে মাটি নেই। ২০০১-০৬ সালে ক্ষমতায় থেকে তারা নিজেদের কবর নিজেরাই খুঁড়েছে। সেই সময়ে ধর্মীয় জঙ্গি ও সন্ত্রাসী দিয়ে দেশে তাণ্ডব সৃষ্টি করেছিল, দেশটাকে লুটপাট করে শতশত কোটি টাকা বিদেশে পাচার করেছিল। সেই পাচার করা টাকায় তারেক জিয়া এখন লন্ডনে বসে খাচ্ছে, সিনেমা দেখছে এবং রিমোট কন্ট্রোলে দল চালাচ্ছে।

 

তিনি বলেন, যে জিয়া জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে হত্যার ষড়যন্ত্রে ভূমিকা রেখেছিল- তারই ছেলে তারেক জিয়া বিদেশে থেকে ষড়যন্ত্র করছে। এ ষড়যন্ত্রকে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা কঠোরভাবে মোকাবিলা করবে।

 

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সারাক্ষণ ভাঙা রেকর্ড বাজিয়ে চলেছেন উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, বিএনপি ও  মির্জা ফখরুলরা এখনও ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। দেশে পদ্মা সেতু চালু হয়েছে, সেতু দিয়ে গাড়ি চলাচল করছে-এটি এখনও মির্জা ফখরুল স্বীকার করতে চান না। জনশুমারিতে সরকার জনসংখ্যা কম দেখিয়েছে বলেও ডাহা মিথ্যাচার করছে। দেশে ২০ কোটি মানুষ দেখালে মনে হয় মির্জা ফখরুল খুশি হতেন।

 

মন্ত্রী বলেন, পরিসংখ্যানবিদ, বিশেষজ্ঞ, বিজ্ঞানী, মাঠকর্মী, তথ্যসংগ্রহকারীদের সমন্বয়ে যথাযথ প্রক্রিয়ায় জনশুমারি হয়েছে। সেখানে জনসংখ্যা কম বা বেশি দেখানোর সুযোগ নেই। সরকার জনসংখ্যা কম দেখাবে কেন, বরং বেশি দেখানোর কথা।

 

সম্মেলনে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলির সদস্য অ্যাডভোকেট মোঃ কামরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফী, সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির, সহসভাপতি আওলাদ হোসেন ও অন্যান্য নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন

 

ঢাকা, ১৫ শ্রাবণ (৩০ জুলাই) :   

          স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর)-এর তথ্যানুযায়ী গতকাল শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৩৪৯ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ পাওয়া গেছে। নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে রোগী শনাক্তের হার ৬ দশমিক ৬৪ শতাংশ। এ সময় ৫ হাজার ২৫৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।           

গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ পর্যন্ত ২৯ হাজার ২৮৮ জন করোনায় মৃত্যুবরণ করেছেন। করোনাভাইরাস আক্রান্তদের মধ্যে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৯ লাখ ৪১ হাজার ৫৪২ জন। 

 

জনগণের কল্যাণে কাজ করছে সরকার : বিমান প্রতিমন্ত্রী

 

মাধবপুর, ১৫ শ্রাবণ (৩০ জুলাই) :

 

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মোঃ মাহবুব আলী বলেছেন, জনগণের কল্যাণে কাজ করছে সরকার। জনগণের পয়সা তাদের কল্যাণেই যাতে ব্যয় হয় তা নিশ্চিত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রতিমন্ত্রী আজ হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে সমাজসেবা কার্যালয় আয়োজিত ক্যান্সার, কিডনি রোগ, লিভার সিরোসিস, জন্মগত হৃদরোগ, স্ট্রোকে প্যারালাইসিস ও থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত ২২ জন রোগীর মাঝে জনপ্রতি ৫০ হাজার টাকার চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আগে শুনতাম উন্নত দেশে বিভিন্ন ভাতা দেয়া হয়। আমাদের দেশে এই প্রক্রিয়া শুরু করেছেন প্রধানমন্ত্রী। যতদিন যাচ্ছে সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতা ও ভাতার পরিমাণ বাড়ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অসহায় ও দুঃস্থ মানুষদের কল্যাণে এই কাজ করছেন। মানুষের দুঃসময়ে পাশে দাঁড়ানো, সাহস দেয়া বড় একটা কাজ।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, আজকে যারা সরকারি সহায়তার চেক পেয়েছেন, মনে রাখবেন, আপনাদের দুঃখ ও কষ্টের কথা সরকার ভেবেছে। সময়ের সাথে সাথে এই ভাতার অংক আরো বৃদ্ধি পাবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আপনাদের কথা ভাবেন। মানুষের সেবাই তাঁর মূল উদ্দেশ্য। দোয়া করবেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেন আরো বেশি দিন দেশের মানুষের জন্য সেবা করতে পারেন।

 

আওয়ামী লীগকে ভয় দেখিয়ে লাভ নেই : এনামুল হক শামীম

 

ঢাকা, ১৫ শ্রাবণ (৩০ জুলাই):

 

পানি সম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম বলেছেন, রাজপথ থেকে উঠে আসা জনগণের সংগঠন আওয়ামী লীগকে আন্দোলনের ভয় দেখিয়ে লাভ নেই। বিএনপি’র কোনো অপকর্ম বিনা চ্যালেঞ্জে ছেড়ে দেওয়া হবে না।

আজ নাটোরের সিংড়ায় পানি উন্নয়ন বোর্ড বাস্তবায়িত সিংড়া শহর রক্ষা বাঁধের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

উপমন্ত্রী বলেন, নির্বাচন, আন্দোলন ও রাজপথে ব্যর্থ হয়ে বিএনপি’র পরাজিত নেতারা এখন হাঁক-ডাক শুরু করেছে। তাদের মাঠ গরমের অপচেষ্টাও সফল হবে না।

কেউ কেউ মাঠে থাকলে ফেসবুকে দেওয়ার জন্য ছবি তোলেন, এরপর পালানোর পথ খোঁজেন। এসিরুমে বসে বক্তব্য-বিবৃতিতে বেগম খালেদা জিয়ার জন্য বিএনপি নেতারা প্রাণ দেওয়ার বাসনা ব্যক্ত করলেও তার মুক্তির জন্য বাংলাদেশের কোথাও দু’শ লোকের একটি মিছিলও করতে দেখেনি জণগণ। বিএনপির নেতাদের বক্তৃতায় কথার ফুলঝুড়ি থাকলেও তারা রাজপথকে ভয় পায়, আন্দোলনকে ভয় পায়। এখন তারা জনগণকেও ভয় পায়। বিএনপিতো নির্বাচনের আগেই হেরে যায়।

উপমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উন্নত-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে রাতদিন নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন। তিনিই দেশের সকল অর্জন ও উন্নয়নের শেষ ঠিকানা। নিজস্ব অর্থায়নে নির্মিত পদ্মাসেতু বিশ্বের বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে। উন্নত বাংলাদেশ গড়তে ডেল্টা প্ল্যান-২১০০ বাস্তবায়নে কাজ করছেন প্রধানমন্ত্রী ।

অনুষ্ঠানে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, বঙ্গবন্ধু রাজনৈতিক মুক্তি দিয়েছেন আর বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের অর্থনৈতিক মুক্তির সংগ্রামকে সফল করেছেন। ডিজিটাল বাংলাদেশের আর্কিটেকচার সজিব ওয়াজেদ জয়ের হাত ধরে ১৩ বছরে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নশীল ও প্রযুক্তি নির্ভর ডিজিটাল বাংলাদেশে পরিণত হয়েছে।

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের রাজশাহীর উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী জহিরুল ইসলাম, রাজশাহী সার্কেলের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম, সিংড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ ওহিদুর রহমান, উপজেলা চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম, পৌর মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌস প্রমুখ।

 

অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় কবিদের ভূমিকা অপরিসীম : মোস্তাফা জব্বার

 

ঢাকা, ১৫ শ্রাবণ (৩০ জুলাই):

 

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, সমাজ পরিবর্তনে কবিতার প্রভাব অনস্বীকার্য। ভাষা আন্দোলন থেকে স্বাধীনতা সংগ্রাম এবং অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় কবিদের ভূমিকা অপরিসীম। একাত্তরের ৭ মার্চ রেসকোর্স ময়দানে বাঙালির মহাকাব্যের মহানায়ক বঙ্গবন্ধুর অমর কবিতা ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম’ ধ্বনিত হয়েছিল বলে মন্ত্রী উল্লেখ করেন। আলোকিত বাংলাদেশ গড়ে তোলার লক্ষ্যে কবিতা চর্চার প্রসারে সংশ্লিষ্ট সংগঠনসমূহকে অগ্রণী ভূমিকা গ্রহণে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

মন্ত্রী গতকাল ঢাকায় বাংলা একাডেমিতে কবিতা বিষয়ক সংগঠন স্বনন আয়োজিত কবি শ্যাম সুন্দর সিকদারের ‘কবিতার ধ্বনি স্রোতস্বিনী’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে বক্তৃতায় এ আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

 মানুষের মননকে  জাগিয়ে তুলতে  কবিতার প্রভাব তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, বাংলা ভাষা, বাংলা হরফ এবং প্রযুক্তিতে বাংলা ভাষাকে সমৃদ্ধ করতে বাংলাদেশের অবদান বিশ্বে বাংলা ভাষাভাষী মানুষের কাছে স্বীকৃত। তারা বাংলাদেশকেই বাংলা ভাষার রাজধানী মনে করে। বাংলা ভাষা ও সাহিত্যের ছাত্র হিসেবে বাংলা সাহিত্যে কবিতার প্রভাব বর্ণনা করে মন্ত্রী বলেন, কয়েক লাইন কবিতা যেভাবে মানুষকে জাগাতে পারে প্রবন্ধ তা এতো সহজে পারেনা। কবিদের নিয়ে স্বননের প্রচেষ্টাকে অসাধারণ বলে তিনি উল্লেখ করেন। দেশব্যাপী কবিতার প্রসারে স্বনন ভূমিকা রাখবে বলেও তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, একজন অতি প্রিয় মানুষ কবি শ্যাম সুন্দর সিকদারের কবিতা নিয়ে এই ধরণের উদ্যোগ প্রশংসার দাবি রাখে।

স্বনন সভাপতি চক্রেশ চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা, আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক ও স্বননের অন্যতম কর্ণধার রূপা চক্রবর্তী, কবি নাসির আহমেদ এবং কবি দিলারা হাফিজ বক্তৃতা করেন।

 

কৃষকদের ১১ কোটি টাকার বীজ ও সার সহায়তা

ঢাকা, ১৫ শ্রাবণ (৩০ জুলাই) :

সাম্প্রতিক বন্যার ক্ষতি পুষিয়ে নিতে ক্ষতিগ্রস্ত ১৭টি জেলার কৃষকদের মাঝে প্রায় ১১ কোটি টাকার বীজ ও সার বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়েছে। এতে উপকৃত কৃষকের সংখ্যা ১ লাখ ৮৫ হাজার। 

এর মধ্যে প্রথম ধাপে ৯৪ হাজার কৃষককে ৫ কোটি ৮৮ লাখ টাকার আমন বীজ ও সার বিনামূল্যে দেয়া হয়েছে। দ্বিতীয় ধাপে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত ৪টি জেলা- সিলেট, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জের ৭০০ কৃষককে প্রায় সাড়ে ৩ লাখ টাকার নাবী জাতের (লেইট ভ্যারাইটি) আমন ধান বীজ ও সার সহায়তা দেয়া হয়েছে।

তৃতীয় ধাপে ৯০ হাজার কৃষককে প্রায় ৫ কোটি টাকার পুনর্বাসন সহায়তা বাস্তবায়ন কাজ চলছে। এর মধ্যে প্রত্যেক কৃষককে ৫ কেজি করে উচ্চফলনশীল আমন বীজ, ১০ কেজি ডিএপি ও ১০ কেজি এমওপি সার দেয়ার কাজ চলমান রয়েছে।

এছাড়া, বন্যার ক্ষতি পুষিয়ে নিতে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের মাঝে আগাম শীতকালীন বিভিন্ন জাতের সবজি বীজ সহায়তার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন আছে।

 

 

বঙ্গবন্ধু এবং বাংলাদেশ বাংলা ভাষাভাষীদের মানুষের অহংকার : মোস্তাফা জব্বার

ঢাকা, ১৫ শ্রাবণ (৩০ জুলাই) :

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং বাংলাদেশ পৃথিবীর ৩৫ কোটি বাংলা ভাষাভাষী মানুষের অহংকার। বঙ্গবন্ধু ছিলেন বলেই হাজার বছরের পরাধীনতা হতে বাঙ্গালি স্বাধীন জাতি হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করতে পেরেছে।

মন্ত্রী গতকাল ঢাকায় শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ ও বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে ভারতের আগরতলা থেকে প্রকাশিত স্মারকগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

কবি অসীম সাহার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বাংলা একাডেমির সভাপতি কথা সাহিত্যিক সেলিনা হোসেন, কবি আসলাম সানি, ড. দেবব্রত দেবরায়, স্বারকগ্রন্থের প্রধান সম্পাদক ড. মুজাহিদ রহমান, কলকতার সাংবাদিক অমিত ভৌমিক, কবি বরুণ চক্রবর্তী এবং আবৃত্তি শিল্পী সেলিম দুরানী বিশ্বাস প্রমূখ বক্তৃতা করেন।

মন্ত্রী বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে মুক্তিযোদ্ধাদের প্রশিক্ষণ প্রদানসহ খাদ্য ও আশ্রয় দিযে সহায়তা করার জন্য ভারতের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, বঙ্গবন্ধু এই ভূখণ্ডের মানুষের প্রাতঃস্মরণীয় ব্যক্তিত্ব। তার জন্মশতবর্ষ উপলক্ষ্যে ভারতের আগরতলা থেকে স্মারকগ্রন্থ প্রকাশ করে আমাদেরকে গর্বিত করেছে। বাঙালির প্রতি সীমান্তের ওপারের মানুষের গভীর মমত্ববোধ কোন দিনও ভোলার নয়। স্মারকগ্রন্থ প্রকাশ করে আপনারা যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন তা আমাদের জন্য অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবে বলে মন্ত্রী উল্লেখ করেন।

 

Read us@googlenews

 

Social

More News
© Copyright: 2020-2022

Bangladesh Beyond is an online version of Fortnightly Apon Bichitra 

(Reg no: DA 1825)

Developed By Bangladesh Beyond