[Valid RSS]
August 9, 2022, 1:03 am
Headlines
৮ আগস্ট কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন পবিত্র আশুরা উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির বাণী ৮ আগস্ট এক নজরে বাংলাদেশ জাতীয় জ্বালানি নিরাপত্তা দিবসে প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির বাণী PM sketches Bangmata’s key-shadow role in independence struggle President asks NHRC to play strong role in protecting human rights  realme Fan Festival is Coming with the Theme “Keep It Real” ShareTrip Recognizes Industry Partners & Declares Investment Microsoft launched Startups Founders Hub in Bangladesh PM accords Bangamata Padak to 5 women Western sanctions are good for Moscow : economist Vladimir Putin congratulated railway workers and veterans on their professional holiday China to make east Taiwan Strait drills ‘regular’ : media Any attack on a nuclear plant ‘suicidal’: UN chief Guterres Israel confirms Gaza ceasefire Russia takes out 45,000 tons of NATO ammo : Russian MoD UNDP, Grameenphone and BIDA to create economic opportunities for all Borrowing costs would rise if GDP growth is less than interest rate : Professor Iyanatul Islam ৭ আগস্ট এক নজরে বাংলাদেশ ৭ আগস্ট কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন

৪ আগস্ট এক নজরে বাংলাদেশ

Bangladesh Beyond
  • Updated on Thursday, August 4, 2022
  • 56 Impressed

৪ আগস্ট এক নজরে বাংলাদেশ

 

কর্মীদের সংঘাতে ঠেলে দেয়া বিএনপি নেতারাই প্রকারান্তরে ভোলায় মৃত্যুর জন্য দায়ী : তথ্য সম্প্রচার মন্ত্রী

ঢাকা, ২০ শ্রাবণ (৪ আগস্ট):

বিএনপি নেতারা তাদের কর্মীদের সংঘাতের দিকে ঠেলে দিয়েছে, ফলে ভোলায় মৃত্যুর জন্য প্রকারান্তরে তারাই দায়ী এবং তাদের এ দায় স্বীকার করে পদত্যাগ করা উচিত বলেছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহ্‌মুদ। 

আজ রাজধানীর আগারগাঁওয়ে জাতীয় বেতার ভবনে বাংলাদেশ বেতারের সদ্যপ্রয়াত মহাপরিচালক আহম্মদ কামরুজ্জামানের স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিলে সাংবাদিকরা সেদিন নয়া পল্টনে বিএনপির সমাবেশ ও বক্তব্য নিয়ে প্রশ্ন করলে মন্ত্রী এ কথা বলেন। 

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি লাশের রাজনীতি করে এবং সে কারণেই তাদের অপরাধপ্রীতি ও লাশের রাজনীতির বলি হচ্ছে ভোলায় তাদের দু’জন কর্মীর মৃত্যু। কারণ বিএনপি তাদেরকে সংঘাতের দিকে ঠেলে দিয়েছিল এবং কারো কারো হাতে অস্ত্র তুলে দিয়েছিল।’ 

ভোলার ঘটনা নিয়ে হাছান মাহ্‌মুদ আরো বলেন, ‘সেখানে পুলিশের ওপর গুলি করা হয়েছে এবং পুলিশ সদস্য গুলিবিদ্ধ হয়েছে। মানুষের সহায়-সম্পত্তি ধ্বংস করা হয়েছে, ভাংচুর করা হয়েছে। পুলিশ সদস্যকে তাদের দলীয় কার্যালয়ে ধরে নিয়ে গিয়ে আটকে রেখে মারধর করা হয়েছে। অর্থাৎ বর্তমান নেতৃত্ব তাদেরকে সংঘাতের দিকে ঠেলে দিয়েছে।’

সুতরাং এই যে তাদের দু’জন কর্মী মৃত্যুবরণ করলো, এর জন্য প্রকারান্তরে দায়ী বিএনপির নেতৃত্ব এবং এ দায় স্বীকার করে তাদের বরং আগে পদত্যাগ করা দরকার বলেন তথ্যমন্ত্রী। 

বিএনপির আন্দোলনের ঘোষণারও সাফ জবাব দেন ড. হাছান। তিনি বলেন, ‘বিএনপি তো এখন ফাঁকা মাঠে আন্দোলন করছে, এখন শোকের মাস আগস্ট, সামনে শোক দিবস, আমরা পর্যবেক্ষণ করছি। আমরা যখন মাঠে নামবো, তারা পালানোর পথ খুঁজে পাবে না।’

এর আগে বেতার মিলনায়তনে বাংলাদেশ বেতারের সদ্যপ্রয়াত মহাপরিচালক আহম্মদ কামরুজ্জামানের স্মরণসভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতা দেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। এসময় তিনি বলেন, মরহুম কামরুজ্জামান কখনো রাগান্বিত না হওয়া একজন ভালো মানুষ এবং বেতারের জন্য নিবেদিতপ্রাণ কর্মকর্তা ছিলেন। মন্ত্রী তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন ও তার শোকাহত পরিবারের শোক সহ্যশক্তির জন্য প্রার্থনা করেন।

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি তথ্য ও সম্প্রচার সচিব মোঃ মকবুল হোসেন পিএএ তাঁর বক্তব্যে প্রয়াত মহাপরিচালকের কর্মনিষ্ঠা ও সুআচরণের কথা স্মরণ করেন। অতিরিক্ত সচিব ও বাংলাদেশ বেতারের ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক খাদিজা বেগমের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রীর স্পিচ রাইটার নজরুল ইসলাম এবং কামরুজ্জামানের সহকর্মীবৃন্দ। পরে কামরুজ্জামানের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

 

 

বিটিসিএল এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এর মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত

 

ঢাকা, ২০ শ্রাবণ (৪ আগস্ট) :

 

বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন্স কোম্পানি লিমিটেড (বিটিসিএল) প্রদত্ত ‘লিজড লাইন ইন্টারনেট’, ‘ভিপিএন’ ইত্যাদি সার্ভিস বিষয়ে বিটিসিএল এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মধ্যে আজ ঢাকায় বিটিসিএল প্রধান কার্যালয়ে সভাকক্ষে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে। এ চুক্তির প্রেক্ষিতে বিটিসিএল স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অধীনস্থ জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায় পর্যন্ত হাসপাতাল এবং ইনস্টিটিউটে অপটিক্যাল ফাইবার কানেকটিভিটি এবং ডাটা কানেকটিভিটি প্রদান করবে।

 

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার ডিজিটাল সেবা সম্প্রসারণে এই সমঝোতা স্মারককে একটি মাইলফলক বলে উল্লেখ করেন এবং অভিনন্দন জানান। তিনি বলেন, বিটিসিএল ডিজিটাল বাংলাদেশের ডিজিটাল মহাসড়ক নির্মাণে অসাধারণ ভূমিকা পালন করছে এবং তাদেরকে আগামীতেও দৃঢ়তার সাথে এই কাজ করে যেতে হবে।

 

বিটিসিএল এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. মোঃ রফিকুল মতিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিটিসিএল এর পক্ষে চিফ জেনারেল ম্যানেজার (সেলস এন্ড মার্কেটিং) মোঃ আলিমুজ্জামান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পক্ষে ডিরেক্টর (এমআইএস) এবং লাইন ডিরেক্টর (এইচআইএস এবং ই-হেলথ) প্রফেসর ডা. মোঃ শাহাদাত হোসেন সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন।

 

 

বৈদেশিক কর্মসংস্থানে ভাষার দক্ষতা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ: প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী

 

ঢাকা, ২০ শ্রাবণ (৪ আগস্ট) :

          প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেছেন, বৈদেশিক কর্মসংস্থানে ভাষার দক্ষতা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশের কর্মীর চাহিদা রয়েছে। তাই কর্মীদেরকে দক্ষ করে গড়ে তুলতে এবং তাদের ভাষার দক্ষতা বৃদ্ধির ওপর জোর দিচ্ছে মন্ত্রণালয়। এসব বিষয়ে যদি ভালো অবস্থান তৈরি করা যায় তাহলে রেমিটেন্স বাড়বে।

          আজ ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড কর্তৃক প্রবাসী কর্মীর মেধাবী সন্তানদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তির চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। এতে আরো বক্তব্য রাখেন ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড এর মহাপরিচালক মোঃ হামিদুর রহমান।

          ইমরান আহমদ বলেন, সরকার সবসময় প্রবাসী কর্মীদের কল্যাণে নিয়োজিত আছে। প্রবাসী কর্মীর সন্তানরা যাতে ভালোভাবে পড়াশুনা করতে পারে এবং তাদের উচ্চ শিক্ষা লাভে যেন কোনো প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি না হয় সেজন্যই এই শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করা হচ্ছে। এছাড়া প্রবাসীদের পরিবারের সদস্যরা যাতে আত্মমর্যাদার সাথে সমাজে প্রতিষ্ঠা লাভ করতে পারে সরকার সে চেষ্টা করে যাচ্ছে।

           মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম তাঁর বক্তৃতায় কর্মসংস্থানের জন্য বিদেশে গমনেচ্ছুদের জেনে বুঝে সচেতন হয়ে সরকারি ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে বিদেশে যাওয়ার আহ্বান জানান। এছাড়া তিনি বৃত্তিপ্রাপ্তদের দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হতে বলেন এবং পড়াশোনার পাশাপাশি সহশিক্ষা কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করার পরামর্শ দেন।

          অনুষ্ঠানের শেষে অতিথিবৃন্দ প্রবাসীদের দশজন মেধাবী সন্তানের হাতে বৃত্তির চেক তুলে দেন। উল্লেখ্য, অনুষ্ঠানে মোট ১৬২ জনকে বৃত্তির চেক দেওয়া হয়।

 

শ্রমিক কল্যাণ তহবিলে ৩০ কোটি টাকা জমা দিলো গ্রামীণফোন

ঢাকা, ২০ শ্রাবণ (৪ আগস্ট) :

          শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন তহবিলে ৩০ কোটি ৩১ লাখ ৩৫ হাজার ৭১৮ টাকা লভ্যাংশ জমা দিয়েছে মোবাইল ফোন অপারেটর কোম্পানি গ্রামীণফোন।

          আজ সচিবালয়ে প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ানের সাথে গ্রামীণফোনের প্রধান মানবসম্পদ কর্মকর্তা সৈয়দ তানভির হোসেনের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের প্রতিনিধিদল সাক্ষাৎ করে প্রতিমন্ত্রীর হাতে লভ্যাংশের চেক তুলে দেন।

           চেক প্রদান অনুষ্ঠানে শ্রম প্রতিমন্ত্রী বলেন, শ্রমজীবী মেহনতি মানুষের কল্যাণের জন্য বাংলাদেশ শ্রম আইন অনুযায়ী সরকার শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন তহবিল গঠন করে। এ তহবিল থেকে প্রাতিষ্ঠানিক-অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতের শ্রমিকদের কর্মস্থলে দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যুতে, আহত বা দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত শ্রমিকের চিকিৎসা এবং শ্রমিকের মেধাবী সন্তানের উচ্চশিক্ষায় সহায়তা দেয়া হয়। এখন পর্যন্ত ১৫ হাজার ২৩৭ জন শ্রমিককে এ তহবিল থেকে প্রায় ৬৬ কোটি টাকা সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে সরকার সবসময় শ্রমিকদের কল্যাণে পাশে থাকবে বলে এ সময় প্রতিমন্ত্রী উল্লেখ করেন।

          গ্রামীণফোনের পক্ষে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান মানবসম্পদ কর্মকর্তা বলেন, গ্রামীণফোন সবসময় সরকারের পাশাপাশি শ্রমিকদের পাশে দাঁড়ানোর বিষয়টিতে অগ্রাধিকার দিয়ে থাকে। দেশের শ্রমজীবী মেহনতি মানুষের বৃহত্তর স্বার্থে এ তহবিলের সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করার জন্য তিনি শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়কে ধন্যবাদ জানান।

          উল্লেখ্য, গ্রামীণফোনসহ দেশি, বিদেশি এবং বহুজাতিক মিলে ২৬৫টি প্রতিষ্ঠান তাদের লভ্যাংশের নির্দিষ্ট অংশ নিয়মিত এ তহবিলে জমা দিয়ে আসছে। আজ পর্যন্ত এ তহবিলে জমার পরিমাণ প্রায় ৭শ’ ৪০ কোটি টাকা। 

          চেক প্রদান অনুষ্ঠানে মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ এহছানে এলাহী, বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক গোকুল কৃষ্ণ ঘোষ, গ্রামীণফোনের ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিলেশনস ও এইচ আর স্ট্র্যাটেজি প্রধান কে এম সাব্বির আহমেদ, কম্পেন্সেশন এন্ড বেনিফিটস প্রধান মোহাম্মদ খালেদ মৃধা, ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিলেশনস বিভাগের সদস্য মোঃ আসাদুজ্জামান এবং মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

 

ইউরিয়ার পরিবর্তে ডিএপি সার ব্যবহারের ওপর গুরুত্বারোপ কৃষিমন্ত্রীর

ঢাকা, ২০ শ্রাবণ (৪ আগস্ট) :

          কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, সরকার ইউরিয়া সারের ব্যবহার হ্রাস ও ডিএপি সারের ব্যবহার বৃদ্ধিতে গুরুত্বারোপ করে যাচ্ছে। ডিএপি সার মাটির স্বাস্থ্য রক্ষায় ও মানসম্পন্ন ফসল উৎপাদনে কার্যকর এবং পরিবেশবান্ধব। ডিএপি সারে শতকরা ১৮ ভাগ নাইট্রোজেন বা ইউরিয়া সারের উপাদান রয়েছে। সেজন্য ডিএপির ব্যবহার বাড়িয়ে ইউরিয়া সারের অপ্রয়োজনীয় ব্যবহার কমিয়ে আনার জন্য সরকার ডিএপি সারের মূল্য প্রতিকেজি ৯০ টাকা থেকে কমিয়ে ১৬ টাকা করে কৃষকদের দিয়ে যাচ্ছে। এ উদ্যোগের ফলে বিগত কয়েক বছরে ডিএপি সারের ব্যবহার দ্বিগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে ডিএপির ব্যবহার বৃদ্ধি পেলেও ইউরিয়া সারের ব্যবহার কমেনি।

          আজ সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সারের দাম বৃদ্ধি, মজুতসহ সার্বিক বিষয়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। কৃষিসচিব মোঃ সায়েদুল ইসলাম এবং মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ এ সময় উপস্থিত ছিলেন। 

          মন্ত্রী বলেন, ফসলের জমিতে সুষম সার প্রয়োগ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বলেন, ইউরিয়া সারের বর্তমান ব্যবহার কমপক্ষে শতকরা ২০ ভাগ কমিয়ে ইউরিয়ার ব্যবহার যৌক্তিক পর্যায়ে রাখা সম্ভব। এতে ফসল উৎপাদনে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে না বরং উৎপাদন আরো বৃদ্ধি পাবে। একইসাথে, কৃষকের খরচও কমবে। এটি করতে হলে কৃষকসহ সকলের সচেতনতা প্রয়োজন।

          কৃষিমন্ত্রী বলেন,  দেশে নন ইউরিয়া সার ( টিএসপি, ডিএপি, এমওপি) বছরে ব্যবহার হয় ৩২ লাখ টনের বেশি। এর পুরোটাই বিদেশ থেকে আমদানি করতে হয়। এসব সারের দাম আন্তর্জাতিক বাজারে ৪ গুণ বেড়েছে কিন্তু দেশে দাম বাড়েনি। কাজেই, ইউরিয়া সারের কেজিতে ৬ টাকা দাম বৃদ্ধির ফলে ফসলের উৎপাদনে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে না।

          মন্ত্রী বলেন, কোভিড পরিস্থিতি এবং ইউক্রেন-রাশিয়ার মধ্যে চলমান যুদ্ধের প্রভাবে বিশ্বব্যাপী সারের মূল্য অস্বাভাবিক পরিমাণে বৃদ্ধি পেয়েছে, যা ২০২০-২১ অর্থবছরের তুলনায় ৩ থেকে ৪ গুণ এবং সারে প্রদত্ত সরকারের মোট ভরতুকিও বেড়েছে প্রায় ৪ গুণ। ২০২০-২১ অর্থবছরে যেখানে ভরতুকি লেগেছিল ০৭ হাজার ৭১৭ কোটি টাকা; সেখানে ২০২১-২২ অর্থবছরে লেগেছে ২৮ হাজার কোটি টাকা।

          বর্তমানে দেশে চাহিদার বিপরীতে সব ধরণের সারের পর্যাপ্ত মজুত রয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, সারের দাম বৃদ্ধিকে কেন্দ্র করে দেশের কোথাও যাতে কেউ কৃত্রিম সংকট তৈরি করতে না পারে সে বিষয়টি মন্ত্রণালয় নিবিড়ভাবে মনিটর করছে। কৃত্রিম সংকট তৈরির মাধ্যমে দাম বেশি নিলে সংশ্লিষ্টদের কঠোর শাস্তির আওতায় আনা হবে।

          মন্ত্রী আরো বলেন, আমরা লক্ষ্য করছি, সারের দাম বাড়ায় বিএনপিসহ কিছু বাম দল উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। বিএনপির সার নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ তাদের চরম নির্লজ্জতার প্রমাণ বলে আমি মনে করি। বিএনপি’র শাসন আমলে সারসহ কৃষি উপকরণের চরম সংকট ছিল। বিএনপি তাদের সময়ে কৃষককে সার দিতে না পেরে পালিয়ে বেড়িয়েছে। সারের জন্য বিএনপি সরকার ১৯৯৫ সালে ১৮ জন কৃষককে গুলি করে হত্যা করেছিল। বিপরীতে, বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার  সারের উৎপাদন ও আমদানি অব্যাহত রেখেছে।

          কৃষিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কৃষকদরদী, কৃষকের প্রতি রয়েছে তাঁর পরম মমতা। তাই ২০০৯ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার ক্ষমতায় এসে কৃষি উপকরণের দাম যেমন কমিয়েছে তেমনি সহজলভ্য করে কৃষকের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়েছে। ফলে গত ১৩ বছরে সারসহ অন্যান্য কৃষি উপকরণের কোনো সংকট হয়নি।

 

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রীর সাথে জাপানের রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ

ঢাকা, ২০ শ্রাবণ (৪ আগস্ট):

বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত ইতো নাওকি (Naoki ITO) আজ সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদের সাথে তাঁর সচিবালয়স্থ কার্যালয়ে সাক্ষাৎ করেন।

সাক্ষাতকালে জাপানের রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশ-জাপান কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছরপূর্তি উপলক্ষ্যে দু’দেশের মধ্যে সাংস্কৃতিক বিনিময় বৃদ্ধিসহ বাংলাদেশে জাপানি স্থপতি কর্তৃক শিশু গ্রন্থাগার স্থাপন ও বাংলাদেশ-জাপান যৌথ চিত্র প্রদর্শনী আয়োজনের বিষয়ে প্রতিমন্ত্রীর সাথে বিস্তারিত আলোচনা করেন।

জাপানের রাষ্ট্রদূত জানান, জাপানের প্রখ্যাত স্থপতি আন্দো তাদাও (Ando Tadao) বাংলাদেশের শিশুদের জন্য মনোরম স্থাপত্য নকশায় একটি নান্দনিক শিশু গ্রন্থাগার স্থাপন করতে ইচ্ছুক। তিনি বিশ্ববিখ্যাত স্থপতি লুই আই কানের নকশায় তৈরি ল্যান্ডমার্ক স্থাপনা জাতীয় সংসদ দেখে বাংলাদেশে এটি নির্মাণে অনুপ্রাণিত হন। রাষ্ট্রদূত দৃষ্টিনন্দন এ শিশু গ্রন্থাগারের জন্য জমি বরাদ্দ ও নির্বাচনের বিষয়ে প্রতিমন্ত্রীর সহযোগিতা কামনা করেন।

প্রতিমন্ত্রী শিশু গ্রন্থাগার নির্মাণের বিষয়ে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দিয়ে বলেন, এ বিষয়ে প্রস্তাব তৈরিপূর্বক প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সারসংক্ষেপ প্রেরণ করা হবে। তিনি এ সময় ঢাকা অপেরা হাউজ নির্মাণের বিষয়ে জাপানের সহযোগিতা কামনা করেন।

রাষ্ট্রদূত বলেন, আগামী ডিসেম্বর মাসে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়, জাপান দূতাবাস বাংলাদেশ ও বাংলাদেশ দূতাবাস জাপানের যৌথ আয়োজনে বাংলাদেশ ও জাপানের চিত্রশিল্পীদের অংশগ্রহণে ঢাকায় জাতীয় জাদুঘর বা শিল্পকলা একাডেমিতে একটি যৌথ চিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে। রাষ্ট্রদূত এ প্রদর্শনী আয়োজনের বিষয়ে প্রতিমন্ত্রীর সহযোগিতা কামনা করেন। প্রতিমন্ত্রী এ বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন।

সাক্ষাৎকালে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব অসীম কুমার দে, প্রতিমন্ত্রীর একান্ত সচিব মোহাম্মদ আলতাফ হোসেন ও উপসচিব মোহাম্মদ খালেদ হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

 

সিকিউরিটিজ এক্সচেঞ্জ কমিশনকে বিশ্বের নেতৃত্বদানকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তোলা হবে : আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

 

ঢাকা, ২০ শ্রাবণ (৪ আগস্ট):

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, আইসিটি বিভাগ প্রযুক্তিগত সহায়তা দিয়ে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)-কে বিশ্বের নেতৃত্বদানকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলবে। এ লক্ষ্যে ৭-১০ মিলিয়ন ডলার ব্যয় করে বিএসইসি’র জন্য বেশ কিছু ডিজিটাল সল্যুশন তৈরি করা হচ্ছে।

প্রতিমন্ত্রী আজ রাজধানীতে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ মিলনায়তনে বাংলাদেশের পুঁজিবাজারে ‘টেক স্টার্টআপ এবং গ্রোথ স্টেজ কোম্পানিগুলোর জন্য সম্ভাবনা এবং সুযোগ’ শীর্ষক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

পলক বলেন, আইসিটি বিভাগ থেকে সাড়ে ৩০০ স্টার্টআপকে অফেরতযোগ্য ১০ লাখ টাকা করে অনুদান দেয়া হয়েছিল। এদের মধ্যে কিছু কিছু স্টার্টআপ কোম্পানি ৫ বছরেই শত মিলিয়ন ডলারের কোম্পানিতে রূপান্তরিত হয়েছে। দেশে বর্তমানে ২ হাজার ৫০০ সফল স্টার্টআপ কোম্পানি ১৫ লাখ তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থান সৃষ্টি করেছে। তিনি বলেন, বিকাশ দেশের প্রথম ইউনিকর্ন হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে। বিশ্ব বিখ্যাত নামকরা বড় বড় ভেঞ্চার ক্যাপিটাল কোম্পানি বাংলাদেশে বিনিয়োগ করছে। গত ৫ বছরে বাংলাদেশ স্টার্টআপে ৭৫০ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ এসেছে।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৫০০ কোটি টাকা দিয়ে স্টার্টআপ কোম্পানি গঠন করে দিয়েছেন। তার মধ্যে ১৫-২০ কোম্পানিতে প্রায় ১০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করা হয়েছে। আগামী ২০২৫ সালের মধ্যে ৫০০ কোটি টাকা দেশের স্টার্টআপ কোম্পানিতে বিনিয়োগ করা হবে। সিড, গ্রোথ, গাইডেড, টার্গেড এই চারস্তরে স্টার্টআপকে বিন্যস্ত করে সহায়তা দেয়া গেলেই আগামীতে স্টার্টআপ কোম্পানিগুলো ডিজিটাল ইকোনমির চালিকা শক্তিতে পরিণত হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী ।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ লিমিটেডের চেয়ারম্যান মো: ইউনুসুর রহমানের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের চেয়ারম্যান শিবলি রুবাইয়্যাতুল ইসলাম, বিএসইসি কমিশনার শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ এবং স্টার্টআপ বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সামি আহমেদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন।

 

একশ টাকা মূল্যমান প্রাইজবন্ডের ‘ড্র’ অনুষ্ঠিত

 

ঢাকা, ২০ শ্রাবণ (৪ আগস্ট):

 

একশ টাকা মূল্যমানের বাংলাদেশ প্রাইজবন্ডের ১০৮তম ‘ড্র’ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত রোববার ঢাকা বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এ ‘ড্র’ অনুষ্ঠিত হয়। ৬ লাখ টাকার প্রথম পুরস্কারের নম্বর ০৫০২৯০৫।

৩ লাখ ২৫ হাজার টাকার দ্বিতীয় পুরস্কারের নম্বর ০৬৮৪৮০১ এবং ১ লাখ টাকা করে দু’টি তৃতীয় পুরস্কারের নম্বর ০০৫৯৮৫১ ও ০৯৬৮৫৭২। প্রতিটি ৫০ হাজার টাকা করে দু’টি চতুর্থ পুরস্কারের নম্বর ০০৭১১০০ ও ০৫৮৪৪৬৯।

এছাড়া, প্রতিটি ১০ হাজার টাকা করে ৪০টি পঞ্চম পুরস্কারের নম্বর: ০০৪৯২৪০, ০০৭৯৭০১, ০১০৪৬৩২, ০১১৩১৭২, ০১৩৫৬৩৫, ০১৫৭১৫৯, ০১৫৯৬০২, ০১৭১১৯৫, ০১৭৯৯৩৯, ০১৯৯১১৯, ০২০৯৩১১, ০২২২৮০১, ০২৩১৮২০, ০২৩৪৫৪৫, ০২৮৭০১৯, ০৩১৭৪৫৮, ০৩৪৯০২২, ০৩৫১১৮১, ০৩৮৮১০৬, ০৩৮৯৫৪০, ০৪১৬৫১০, ০৪২৮১৪০, ০৪৬৫৯৪২, ০৪৭০৪৩৫, ০৫০১৬২৫, ০৫০২৯২৯, ০৫৩৬১৭৩, ০৬২৭২৩৮, ০৬৭২১১২, ০৬৮৩৭৫১, ০৬৯৫৩৪০, ০৭০৯২১৩, ০৭৩১৫৯৫, ০৭৬২৮৫৭, ০৭৮৪৫৮০, ০৮০৩৪৮৮, ০৮০৬৯৭৯, ০৯৩৫৩৫৪, ০৯৭৩৯১৯ ও ০৯৯৬৫৮৮।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

 

বাংলাদেশে নৌপরিবহনসহ অন্যান্য সেক্টরে বিনিয়োগের বিষয়ে এক্সিম ব্যাংকের আগ্রহ প্রকাশ

 

ঢাকা, ১৯ শ্রাবণ (৩ আগস্ট) :  

 

আমেরিকার এক্সপোর্ট ইমপোর্ট (এক্সিম) ব্যাংক কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশে নৌপরিবহনসহ অন্যান্য সেক্টরে বিনিয়োগের বিষয়ে গভীর আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

 

এক্সিম ব্যাংক এর প্রেসিডেন্ট এবং চেয়ারম্যান, এক্সিম বোর্ড অভ্‌ ডিরেক্টরস  রেটা জো লুইস (Reta Jo Lewis) গতকাল নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরীর সাথে এক্সিম ব‍্যাংকে  সাক্ষাৎকালে এ আগ্রহের কথা ব‍্যক্ত করেন।

 

এক্সিম ব্যাংক এর আমন্ত্রণে প্রতিমন্ত্রী ব‍্যাংকে সফর করেন।  পরে দু’পক্ষ  মতবিনিময় সভায় মিলিত হয়। এক্সিম ব্যাংকের পক্ষে প্রেসিডেন্টের সাথে ভাইস প্রেসিডেন্টগণ এবং বাংলাদেশের পক্ষে প্রতিমন্ত্রীর সাথে বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান কমোডোর সাদেক, ওয়াশিংটনস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের ইকোনমিক মিনিস্টার, মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোস্তফা কামাল ও আবরাউল হাছান মজুমদার, আয়োজক প্রতিষ্ঠান ইউএস ট্রেড এন্ড ডেভেলাপমেন্ট এজেন্সি (ইউএসটিডিএএ)-এর দক্ষিণ এশিয়ার রিপ্রেজেন্টেটিভ মেহনাজ আনসারী-সহ বিআইডব্লিউটিএ এর কর্মকর্তাগণ যোগদান করেন।

 

উল্লেখ্য, নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী ইউএসটিডিএ’র আমন্ত্রণে এবং ইউএসটিডিএ আয়োজিত ‘বাংলাদেশ ইনল্যান্ড ওয়াটারওয়েজ ম্যানেজমেন্ট রিভার্স ট্রেড মিশনে’ অংশ নিতে ইউএস সফর করছেন।

 

সাবেক গণপরিষদ সদস্য এম আবু ছালেহ-এর মৃত্যুতে ভূমিমন্ত্রীর শোক

 

ঢাকা, ১৯ শ্রাবণ (৩ আগস্ট) :  

 

সাবেক গণপরিষদ সদস্য, মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, ষাটের দশকের খ্যাতিমান ছাত্রনেতা, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম আবু ছালেহ-এর  মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী ।

 

ভূমিমন্ত্রী আজ এক শোকবার্তায় প্রয়াতের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

 

ভোলায় মৃত্যু বিএনপির লাশের রাজনীতির বলি : তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী

 

চট্টগ্রাম, ১৯ শ্রাবণ (৩ আগস্ট) :  

 

ভোলায় সাম্প্রতিক সংঘর্ষের ফলে দু’জনের মৃত্যুকে বিএনপির লাশের রাজনীতির বলি বলেছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহ্‌মুদ।  

 

আজ বাংলাদেশ বেতার চট্টগ্রাম কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকরা ভোলায় ছাত্রদল নেতা নিহতের ঘটনায় বিএনপির হরতাল ডাকা নিয়ে প্রশ্ন করলে মন্ত্রী একথা বলেন। 

 

মন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপির রাজনীতি লাশের ওপরে প্রতিষ্ঠিত, সেই কারণে তারা লাশ সৃষ্টি করতে চায়। আর আগস্ট মাস এলেই তাদের এই প্রবণতা বেড়ে যায়। সেজন্যই ভোলাতে পুলিশের সাথে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটিয়েছে বিএনপি। প্রকারান্তরে তাদের মৃত্যুর জন্যও বিএনপি দায়ী।’

 

‘বিএনপি সারা বাংলাদেশে এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়ে লাশ সৃষ্টির অপচেষ্টা চালাবে, মির্জা ফখরুল সাহেবের গত কয়েক দিনের উস্কানিমূলক বক্তব্যে এটিই প্রমাণিত হয়, তবে জনগণ তাদেরকে সেই সুযোগ দেবে না’ উল্লেখ করেন হাছান মাহ্‌মুদ। 

 

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘জিয়াউর রহমান লাশের ওপর পাড়া দিয়েই হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করেছিল এবং ক্রমাগতভাবে বহু সেনাসদস্যের লাশের ওপর দাঁড়িয়ে দেশ পরিচালনা করেছে। ১৯টা ক্যু হয়েছে, শতশত নয় কয়েক হাজার সেনা, বিমান ও নৌ বাহিনীর অফিসার এবং জওয়ানকে হত্যা করেছে জিয়াউর রহমান। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের হাজার হাজার নেতাকর্মীকেও হত্যা করেছে।’

 

এরপর বেগম খালেদা জিয়াও একইপথ অনুসরণ করেছে উল্লেখ করে মন্ত্রী হাছান বলেন, ২০১৩, ১৪ ও ১৫ সালে কিভাবে অগ্নিসন্ত্রাস করে মানুষকে পুড়িয়ে লাশ বানিয়ে অঙ্গার করে ফেলেছে, জাতি তা দেখেছে।

 

ড. হাছান বলেন, ‘ভোলায় বিএনপির সমাবেশ থেকে দোকানপাট ভাঙচুর, পুলিশের প্রতি ইট পাটকেল নিক্ষেপ ও গুলি ছোঁড়া হয়েছে। সেই গুলিতে পুলিশের একজন কনস্টেবল আহত হয়েছেন। আত্মরক্ষার্থে পুলিশকে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হয়েছে। তাদের যে দু’জন কর্মী মৃত্যুবরণ করেছে, তার মধ্যে ৩১ জুলাই যিনি মৃত্যুবরণ করেছে, ডাক্তারের রিপোর্ট হচ্ছে তার মৃত্যু হেড ইনজুরিতে অর্থাৎ মাথায় ইট-পাটকেলের আঘাতেই হয়েছে বলে প্রতীয়মান হয়। ইট পাটকেল তো বিএনপিই ছুঁড়েছে। পুলিশের সাথে সংঘর্ষে জড়ানোর দায় বিএনপির।’

 

বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর সাথে ব্রিটিশ হাইকমিশনারের সাক্ষাৎ

 

ঢাকা, ১৯ শ্রাবণ (৩ আগস্ট) :

            বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদের সাথে আজ সচিবালয়ে তাঁর অফিসকক্ষে সাক্ষাৎ করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটারটন ডিকসন (Robert Chatterton Dickson)। এ সময় তাঁরা পারস্পারিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। 

            প্রতিমন্ত্রী বৈশ্বিক প্রেক্ষাপট বর্ণনা করে বলেন, জ্বালানির চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় হাইড্রোজেনসহ নতুন নতুন উৎস ও আধুনিক প্রযুক্তির ওপর গুরুত্ব দিতে হবে। এছাড়া জ্বালানি সাশ্রয়ী কার্যক্রম বাড়ানো আবশ্যক। তিনি বলেন, ক্লিন এনার্জির প্রসারে সরকার আন্তরিকভাবে কাজ করছে। নেপাল থেকে জলবিদ্যুৎ আমদানির প্রক্রিয়া প্রায় চূড়ান্ত হয়ে আছে। সৌর বিদ্যুতের জন্য বিদ্যুতের মূল্য ও জমির পরিমাণ অন্যতম প্রধান প্রতিবন্ধক। গ্রিডের আধুনিকায়নের জন্যও আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

            এসময় এনডিসি (Nationally Determined Contribution (NDC)), ক্লাইমেট চেঞ্জ, আঞ্চলিক ও উপ-আঞ্চলিক পাওয়ার শেয়ারিং, বিদ্যুৎ আমদানি, পারমাণবিক বিদ্যুৎ, নবায়নযোগ্য জ্বালানি, সোলার হোমসিস্টেম, স্মার্ট গ্রিড, প্রাথমিক জ্বালানি, নেট মিটারিং সিস্টেম, ইলেকট্রিক ভেহিক্যাল, লিথিয়াম ব্যাটারি, অনসুর ও অফসের বায়ু বিদ্যুৎ ইত্যাদি নিয়ে আলোচনা-পর্যালোচনা করা হয়।

            এ সময় অন্যান্যের মাঝে সিনিয়র ক্লাইমেট এন্ড এনভরনমেন্ট এডভাইজার আন্না ব্যালান্স (Anna Ballance), ক্লাইমেট চেঞ্জ পলিসি ম্যানেজার মারজান নূর (Marjan Nur) উপস্থিত ছিলেন। 

 

ত্রাণ প্রতিমন্ত্রীর সাথে ইসিএইচও’র বাংলাদেশ প্রতিনিধির সাক্ষাৎ

 

ঢাকা, ১৯ শ্রাবণ (৩ আগস্ট) :

            দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মোঃ এনামুর রহমানের সাথে আজ বাংলাদেশ সচিবালয়ে প্রতিমন্ত্রীর অফিসকক্ষে ডাইরেক্টরেট জেনারেল ফর ইউরোপিয়ান সিভিল প্রটেকশন এন্ড হিউম্যানিটিরিয়ান এইড অপারেশনস (উএ ঊঈঐঙ) এর বাংলাদেশ হেড অভ্ অফিস অহহধ ঙৎষধহফরহর সাক্ষাৎ করেন।

            সাক্ষাৎকালে প্রতিমন্ত্রী মিয়ানমারের জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত নাগরিক রোহিঙ্গাদের তাদের নিজ দেশে প্রত্যাবর্তনের উপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন, রোহিঙ্গা নাগরিকদেরকে যত তাড়াতাড়ি তাদের নিজ দেশে প্রত্যাবর্তন করানো যায় সবার জন্যই তা মঙ্গল।

            প্রতিমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু ১৮ হাজার স্বেচ্ছাসেবক নিয়ে সিপিপি’র যাত্রা শুরু করেছিলেন যারা আগাম সতর্ক সংকেত প্রচার এবং সন্ধান ও উদ্ধার কার্যক্রমের মাধ্যমে মানুষের জানমাল রক্ষায় ব্যাপক ভূমিকা রেখে আসছে। বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিক-নির্দেশনায় সিপিপি স্বেচ্ছাসেবক সংখ্যা ৭৬ হাজার ২০ জনে উন্নীত হয়েছে। এই স্বেচ্ছাসেবকদের শতকরা ৫০ ভাগ নারী। তিনি বলেন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচি (সিপিপি)’র নারীর ক্ষমতায়ন উদ্যোগের স্বীকৃতি হিসেবে ‘জাতিসংঘ জনসেবা পদক ২০২১’ এ ভূষিত হয়েছে।

            এরপর প্রতিমন্ত্রীর সাথে ইউএনডিপি’র আবাসিক প্রতিনিধি সুদীপ্ত মুখার্জি সাক্ষাৎ করেন। এ সময় মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ কামরুল হাসান উপস্থিত ছিলেন।

 

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন

 

ঢাকা, ১৯ শ্রাবণ (৩ আগস্ট) :  

          স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর)-এর তথ্যানুযায়ী গতকাল মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে বুধবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৩৭৫ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ পাওয়া গেছে। নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে রোগী শনাক্তের হার ৬ দশমিক ৫৩ শতাংশ। এ সময় ৫ হাজার ৭৪২ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ পর্যন্ত ২৯ হাজার ২৯৮ জন করোনায় মৃত্যুবরণ করেছেন। করোনাভাইরাস আক্রান্তদের মধ্যে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৯ লাখ ৪৫ হাজার ৮৮ জন। 

 

 

বাংলাদেশ ডিজিটাল জরিপ মামলা-মোকদ্দমা কমিয়ে জনগণের ভোগান্তি কমাবে : ভূমিমন্ত্রী

পটুয়াখালী, ১৯ শ্রাবণ (৩ আগস্ট) :

ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী বলেছেন, প্রচলিত ভূমি জরিপে যেখানে ২০-২৫ বছর লাগে, সেখানে খুব অল্প সময়ে বাংলাদেশ ডিজিটাল জরিপ করা সম্ভব হবে। এই জরিপ শুরুর সাথে সাথে খসড়া ম্যাপ তৈরি করে ওয়েবসাইটে দেয়া হবে যাতে জমির মালিক পৃথিবীর যেকোনো স্থান থেকে তার জমির ম্যাপ দেখে জমির পরিমাণ কম-বেশি হলে সাথে সাথে আপত্তি দাখিল করতে পারেন। ডিজিটাল জরিপে যাবতীয় তথ্য ডিজিটাল ও নির্ভুল হওয়ায় জরিপে স্বচ্ছতা আসবে মামলা-মোকদ্দমা কমে আসবে, সাথে জনগণের ভোগান্তিও কমে আসবে।

আজ পটুয়াখালীর জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সংলগ্ন মাঠে বাংলাদেশ ডিজিটাল জরিপ (বাংলাদেশ ডিজিটাল সার্ভে – বিডিএস)-এর পাইলটিং এর উদ্বোধন করার পর বক্তব্য প্রদান করার সময় মন্ত্রী একথা বলেন। এই সময় ভূমি সচিব মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো সর্বাধুনিক ফোর্থ জেনারেশন সার্ভে ড্রোনের মাধ্যমে ডিজিটাল জরিপের পাইলটিং পটুয়াখালী থেকে শুরু হচ্ছে। পটুয়াখালী ও বরগুনা জেলায় এসএ জরিপের পর আরএস জরিপ সম্পন্ন না হওয়ায় উক্ত দুটি জেলার ১৪ টি উপজেলা বিডিএস এর জন্য বাছাই করা হয়েছে। পটুয়াখালী সদর উপজেলার ইটবাড়িয়া ইউনিয়ন থেকে শুরু হবে এই জরিপ।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পটুয়াখালী আওয়ামী লীগের জেলা শাখার সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী আলমগীর, সাধারণ সম্পাদক বীর মক্তিযোদ্ধা ভিপি আবদুল মান্নান এবং সংরক্ষিত নারী আসন-২৯ থেকে নির্বাচিত জাতীয় সংসদ সদস্য কাজী কানিজ সুলতানা হেলেন। বরিশালের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মোঃ ওয়াহেদুর রহমান, ভূমি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব প্রদীপ কুমার দাস, বিডিএস কার্যক্রমের প্রকল্প পরিচালক মোঃ আব্দুল মান্নান, ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তরের পরিচালক এ টি এম নাসির মিয়া এবং পটুয়াখালীর জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামাল হোসেন, পটুয়াখালীর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শহীদুল্লাহসহ ভূমি মন্ত্রণালয় ও পটুয়াখালী জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ, স্থানীয় রাজনীতিবিদ, স্থানীয় সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ এবং গণমাধ্যম সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

মন্ত্রী বলেন, আমাদের অন্য একটি প্রকল্পের মাধ্যমে স্যাটেলাইট ইমেজ কিনে সেটা মৌজা ম্যাপের সাথে সমন্বয় করে ডিজিটাল ল্যান্ড জোনিং ম্যাপ তৈরি করা হচ্ছে, এর ফলে কৃষিজমি, জলাভূমি, পাহাড় ও বনভূমি রক্ষাসহ জমির পরিকল্পিত ব্যবহার করাও সম্ভব হবে। এনআইডি ইন্টিগ্রেশন থাকায় এখানে জমির মালিকানা, শ্রেণি ও ধরন ইত্যাদি বিষয়ে ডিজিটাল তথ্যভাণ্ডার গড়ে উঠবে, যা দিয়ে জেলা, উপজেলা ও বিভাগভিত্তিক জাতীয় তথ্যভাণ্ডার গড়ে উঠবে, ফলে ভূমি ব্যবস্থাপনায় যুগান্তকারী পরিবর্তন আসবে বলে মনে করেন সাইফুজ্জামান চৌধুরী। তিনি বলেন, বিডিএস একবার ঠিকভাবে করা সম্ভব হলে পুনরায় মাঠ জরিপ করার প্রয়োজন হবে না কারণ জমি হস্তান্তর হলে এসিল্যান্ড প্রয়োজনীয় ডাটা ইনপুট দিয়ে নিজেই ম্যাপ পার্টিশন করে নিতে পারবেন। ম্যাপে সুনির্দিষ্ট দাগে ক্লিক করে ঐ দাগের জমির মালিকানা, জমির পরিমাণ, চৌহদ্দি ও শ্রেণিসহ অন্যান্য তথ্য পাওয়া যাবে।

বিডিএস পাইলটিং-এর ম্যাপ তৈরি করার জন্য পরীক্ষামূলকভাবে প্রথমবারের মতো ডিজিটাল ভূমি জরিপ কাজে সক্ষম বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে জানিয়ে ভূমিমন্ত্রী বলেন, তবে জরিপের খতিয়ান প্রস্তুত এবং মালিকানা নির্ণয়ের পর্যায়ের কাজ সরকারিভাবেই করা হবে। এই পাইলটিং এর অভিজ্ঞতা নিয়ে পরবর্তীতে দেশের বাকি জেলায় একযোগে শুরু করার পরিকল্পনা করা বিডিএস-এর উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রী করবেন বলে আশা প্রকাশ করেন ভূমিমন্ত্রী।

 

সারের দাম বৃদ্ধির ফলে উৎপাদনে প্রভাব পড়বে না আন্তর্জাতিক বাজারে দাম কমলে দেশেও কমানো হবে : কৃষিমন্ত্রী

 

বরিশাল, ১৯ শ্রাবণ (৩ আগস্ট):

 

          ইউরিয়া সারের দাম কেজিতে ৬ টাকা বৃদ্ধির ফলে উৎপাদনে প্রভাব পড়বে না বলে মন্তব্য করেছেন কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. মো: আব্দুর রাজ্জাক। একইসাথে, আন্তর্জাতিক বাজারে সারের দাম কমলে দেশেও সারের দাম কমানো হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

          আজ বরিশাল শহরের শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে বরিশাল বিভাগসহ উপকূলীয় অঞ্চলে তেল ফসল ও ধানের উৎপাদন বৃদ্ধি শীর্ষক কর্মশালা শুরুর আগে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

          মন্ত্রী বলেন, সরকার ইউরিয়া সারের সুষম ব্যবহারের উপর গুরুত্বারোপ করে আসছে। ইউরিয়া সারের অপ্রয়োজনীয় ও মাত্রাতিরিক্ত ব্যবহার কমিয়ে আনার জন্য সরকার ডিএপি সারের মূল্য প্রতি কেজি ৯০ টাকা থেকে কমিয়ে প্রথমে ২৫ টাকা (২০০৯ সালে) এবং পরে ২০১৯ সালে ২৫ টাকা থেকে কমিয়ে ১৬ টাকা করে কৃষকদের দিয়ে যাচ্ছে। এ উদ্যোগের ফলে বিগত কয়েক বছরে ডিএপি সারের ব্যবহার দ্বিগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। ডিএপি’র ব্যবহার বৃদ্ধির ফলে ভেবেছিলাম ইউরিয়া সারের ব্যবহার কমবে, কিন্তু কমেনি। দাম বৃদ্ধির ফলে ইউরিয়া সারের ব্যবহার কমবে বলে আশা প্রকাশ করেন মন্ত্রী।

          উল্লেখ্য, সরকার ইউরিয়া সারের দাম ০১ আগস্ট ২০২২ তারিখ থেকে ডিলার পর্যায়ে সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য প্রতি কেজি ১৪ (চৌদ্দ) টাকা হতে ৬ টাকা বৃদ্ধি করে প্রতি কেজি ২০ (বিশ) টাকা এবং কৃষক পর্যায়ে প্রতি কেজি ১৬ (ষোল) টাকা হতে বৃদ্ধি করে প্রতি কেজি ২২ (বাইশ) টাকা পুননির্ধারণ করেছে। আন্তর্জাতিক বাজারে প্রতি কেজি ইউরিয়ার সারের বর্তমান দাম ৮১ টাকা।

 

আন্তর্জাতিক সংকট থেকে ফায়দা নেয়ার চেষ্টা করছে বিএনপি: কৃষিমন্ত্রী

 

          একই অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে কৃষিমন্ত্রী ড. মো: আব্দুর রাজ্জাক বলেন, আন্তর্জাতিক সংকটকে কাজে লাগিয়ে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার ও সংকট থেকে ফায়দা নেয়ার চেষ্টা করছে বিএনপি। জনগণ বিএনপি’র অপশাসন, লুটতরাজ ও দুর্নীতি ভুলে যায়নি। বিএনপি’র আমলে দেশের অর্থনীতি ভেঙে পড়েছিল, দেশে সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম হয়েছিল, নৈরাজ্যকর অবস্থা সৃষ্টি হয়েছিল।

          মন্ত্রী বলেন, বর্তমান বৈশ্বিক সংকট মোকাবিলায় উন্নতদেশগুলোও হিমশিম খাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জার্মানি, তুরস্ক, পাকিস্তানসহ অনেক দেশেই বাংলাদেশের চেয়ে মূল্যস্ফীতি অনেক বেশি। আন্তর্জাতিক সংকটের ফলে দেশের মানুষের কিছুটা সাময়িক কষ্ট হচ্ছে। কিন্তু দেশে চরম কোনো খাদ্য সংকট হবে না।

কৃষিসচিব মো: সায়েদুল ইসলামের সভাপতিত্বে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ, ব্রির মহাপরিচালক শাহজাহান কবীর, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বেনজীর আলম, বিএডিসির চেয়ারম্যান এএফএম হায়াতুল্লাহ, বারির মহাপরিচালক দেবাশীষ সরকার প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

 

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী ও ইউএসটিডিএ’র ডিরেক্টরের বৈঠক

বাংলাদেশ সরকারের চলমান অগ্রগতি কার্যক্রমের ভূয়সী প্রশংসা

 

ঢাকা, ১৯ শ্রাবণ (৩ আগস্ট) :

বাংলাদেশ সরকারের চলমান অগ্রগতি কার্যক্রমের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন ইউএস ট্রেড এন্ড ডেভেলপমেন্ট এজেন্সির (ইউএসটিডিএ) ডিরেক্টর এনো এবাং (ENOH EBONG)। বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহণ খাতে অব্যাহত অগ্রগতিতে আমেরিকা সরকারের সহযোগিতার কথা তিনি  পুনর্ব্যক্ত করেন।

ইউএসটিডিএ’র ডিরেক্টর সোমবার ওয়াশিংটন ডিসির সদর দফতরে সফররত নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরীর সাথে এক বৈঠকে এসব কথা বলেন।

নৌপরিবহণ প্রতিমন্ত্রী বাংলাদেশের অগ্রগতিতে আমেরিকা সরকারের সহযোগিতার জন্য কৃতজ্ঞতা  প্রকাশ করেন। তাঁরা ধন্যবাদ জানানোর পাশাপাশি একে অপরের  মাঝে শুভেচ্ছা স্মারক বিনিময় করেন।

এ সময় বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের সদস্য বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহণ কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কমডোর গোলাম সাদেকসহ অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিমন্ত্রী ইউএসটিডিএ’র আমন্ত্রণে এবং ইউএসটিডিএ আয়োজিত ‘বাংলাদেশ ইনল্যান্ড ওয়াটারওয়েজ ম্যানেজমেন্ট রিভার্স ট্রেড মিশনে’ অংশ নিতে ইউএস সফর করছেন।

 

অভ্যন্তরীণ নৌপথ ব্যবস্থাপনায় মার্কিন সহায়তাকে স্বাগত জানিয়েছেন নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী

 

ওয়াশিংটন ডিসি, (৩ আগস্ট):

 

যুক্তরাষ্ট্রের বিনিয়োগ ও প্রযুক্তি বাংলাদেশের নৌপথ ব্যবস্থাপনার উন্নতি ঘটাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

সোমবার ওয়াশিংটন ডিসিতে বাংলাদেশ দূতাবাসের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে তাঁর সম্মানে আয়োজিত এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী এ কথা বলেন। তিনি মার্কিন বাণিজ্য ও উন্নয়ন সংস্থার (ইউএসটিডিএ) আমন্ত্রণে যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশ ওয়াটারওয়েজ ম্যানেজমেন্ট রিভার্স ট্রেড মিশন দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বাংলাদেশের মতো নদীমাতৃক দেশের জন্য উপযুক্ত পরিবেশ বান্ধব এবং কম ব্যয়বহুল অভ্যন্তরীণ নৌপথ ও নৌপরিবহণ খাতে বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে সহযোগিতা আরো সম্প্রসারণের ওপর জোর দেন। তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন, বাংলাদেশ ওয়াটারওয়েজ ম্যানেজমেন্ট রিভার্স ট্রেড মিশন প্রতিনিধি দলের যুক্তরাষ্ট্র সফর দুই বন্ধুপ্রতীম দেশের মধ্যে দীর্ঘ ও টেকসই সহযোগিতার নতুন পথ খুলে দেবে।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) চেয়ারম্যান কমডোর গোলাম সাদেক তাদের যুক্তরাষ্ট্রে ১০ দিনের অবস্থানকালে বিভিন্ন বন্দর ও স্থাপনা পরিদর্শন এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠকের উদ্দেশ্য তুলে ধরেন। তিনি বিআইডব্লিউটি এর কার্যক্রম সম্পর্কেও অবহিত করেন।

যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোঃ সহিদুল ইসলাম ও ইউএসটিডি এর প্রতিনিধি মেহনাজ আনসারী- অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

এর আগে নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরীর নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলের সদস্যরা দূতাবাসের বঙ্গবন্ধু কর্নারে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আবক্ষ মূর্তিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে।

 

জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধির পরিচয়পত্র পেশ

 

নিউইয়র্ক, ৩ আগস্ট :   

        জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মোহাম্মদ আব্দুল মুহিত গতকাল জাতিসংঘ সদর দপ্তরে জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেজের কাছে তাঁর পরিচয়পত্র পেশ করেন। এর আগে গত ২৮ জুলাই স্থায়ী মিশনের দায়িত্বভার গ্রহণ করেন রাষ্ট্রদূত মুহিত।

পরিচয়পত্র প্রদান অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন মিশনের উপস্থায়ী প্রতিনিধি ড. মো: মনোয়ার হোসেন, মহাসচিবের শেফ দ্য ক্যাবিনেট কোর্টনে র‌্যাট্রে এবং পিসবিল্ডিং সাপোর্ট বিভাগের অ্যাসিসট্যান্ট সেক্রেটারি জেনারেল এলিজাবেথ ম্যারি।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশ ১৯৭৪ সালে জাতিসংঘের সদস্যপদ লাভ করে। মোহাম্মদ আব্দুল মুহিত হচ্ছেন জাতিসংঘে বাংলাদেশের ষষ্ঠদশ স্থায়ী প্রতিনিধি। পেশাদার কূটনীতিক মুহিত ১৯৯৩ সালে বাংলাদেশ পররাষ্ট্র সার্ভিসে যোগদান করেন। বর্তমান কর্মস্থলে যোগদানের পূর্বে তিনি অস্ট্রিয়ায় বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

 

Read us@googlenews

 

Social

More News
© Copyright: 2020-2022

Bangladesh Beyond is an online version of Fortnightly Apon Bichitra 

(Reg no: DA 1825)

Developed By Bangladesh Beyond