[Valid RSS]
September 24, 2022, 8:34 pm
Treanding
GIZ Bangladesh’s training held on SDG localisation in Khulna ছোটদের সহজ প্রোগ্রামিং শিক্ষায় প্রকাশিত হল বাংলা স্ক্র্যাচ বই Ditching Russian gas no way to reach climate goals : Putin চট্টগ্রামে নিরাপদ খাদ্য বিষয়ে প্রচারনা কর্মসূচি সমাপ্ত Samsung brings month-long smartphone campaign On September 6–7, Vladimir Putin will make working trip to Vladivostok Two Russian embassy workers killed in ‘suicide bombing’ Shocked & devastated by the horrific attacks : Justin Trudeau  SSC, equivalent exams begin Sept 15: Dipu Moni Ten killed in Canadian stabbing spree Russia wants UN to pressure US : media Daraz Bangladesh Anniversary Campaign – Now LIVE! realme offers upto BDT 3400 off on occasion of Daraz’s 8th anniversary General Pharmaceuticals employees will receive insurance from MetLife চট্টগ্রামের কলেজিয়েট স্কুলে নিরাপদ খাদ্য বিষয়ে প্রচারনা কর্মসূচি শুরু Bangladesh a secular country, immediate action is taken whenever minorities are attacked: PM  Two more mortar shells from Myanmar land in Bangladesh OPPO launches killer device A57 in 15-20K price range ShareTrip and Grameenphone join hands to offer exciting travel privileges ড্যাপ ২০২২-২০৩৫ এর পরিপূর্ণ বাস্তবায়নের দাবী বিআইপির

৫ জুন এক নজরে বাংলাদেশ 

Bangladesh Beyond
  • Updated on Monday, June 6, 2022
  • 111 Impressed

৫ জুন এক নজরে বাংলাদেশ 

 

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে অপপ্রচার প্রতিহত করতে প্রবাসীদের প্রতি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আহ্বান

ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন):

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে যারা মিথ্যা তথ্য দিয়ে অপপ্রচার চালায়, দেশের শত্রুতা করে, তাদের প্রতিহত করতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। গতকাল সুইডেনের স্টকহোমে সুইডেন আওয়ামী লীগের পক্ষ হতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এ আহ্বান জানান।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা বিদেশে বাংলাদেশ মিশনগুলোতে বাংলাদেশ সম্পর্কিত তথ্যভাণ্ডার সমৃদ্ধ করেছি এবং আমরা পাবলিক ডিপ্লোম্যাসির মাধ্যমে এগুলো প্রচার করছি। তবে মিশনগুলোর পাশাপাশি প্রবাসী বাংলাদেশিদেরও এসব তথ্য তুলে ধরা প্রয়োজন। তিনি বলেন, রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার দৃঢ়তায় বর্তমান বাংলাদেশ একটি সম্ভাবনার দেশে পরিণত হয়েছে, সেটা বিদেশিদের কাছে তুলে ধরতে হবে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গত ১২ বছর বাংলাদেশের জন্য একটি স্বর্ণযুগ উল্লেখ করে ড. মোমেন বলেন, জিডিপির গড় প্রবৃদ্ধির হারে বাংলাদেশ বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় দেশগুলোর অন্যতম স্থান অর্জন করেছে এবং মাথাপিছু আয় প্রতিবেশী দেশগুলোর চেয়ে বৃদ্ধি পেয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী দেশের উন্নয়নে অবদান রাখায় প্রবাসী বাংলাদেশিদের প্রতি অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, প্রবাসী বাংলাদেশিরা আমাদের অর্থনৈতিক উন্নয়নের যোদ্ধা, প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্স এবং রপ্তানি আয় থেকে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ অনেক সমৃদ্ধ হয়েছে। 

বিদেশস্থ বাংলাদেশ মিশনগুলোর মাধ্যমে সেবার মান বৃদ্ধিতে গৃহীত পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মিশনগুলোতে সেবা প্রদানের জন্য ‘দূতাবাস’ এবং ‘মাই গভর্নমেন্ট’ নামে দু’টি মোবাইল এপ্লিকেশন চালু করা হয়েছে। ‘দূতাবাস’ প্যাকেজের মাধ্যমে ৩৪টি সেবা এবং ‘মাই গভর্নমেন্ট’ প্যাকেজের মাধ্যমে ৬৮টি সেবা প্রদান করা যাবে এবং পর্যায়ক্রমে সকল মিশনে এই সেবা চালু হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

সুইডেন আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর কবিরের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক ড. ফরহাদ আলী খানের সঞ্চালনায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে সুইডেনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোঃ নাজমুল ইসলাম, সুইডেন প্রবাসী বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ, সুইডেন আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ এবং বাংলাদেশ কমিউনিটির সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আজ রাতেই শ্রম মন্ত্রণালয় থেকে সীতাকুণ্ডের

দুর্ঘটনায় আহত শ্রমিকদের চিকিৎসা সহায়তা দেওয়া হবে

 

ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন) :

          শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন তহবিল থেকে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বি এম কন্টেইনার ডিপোর ভয়াবহ অগ্নি-দুর্ঘটনায় চট্টগ্রামের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহত শ্রমিকদের জরুরিভিত্তিতে আজ রাতেই চিকিৎসা সহায়তা হিসেবে প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে প্রদান করা হবে।

          শ্রম প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ানের নির্দেশে আজ শ্রম মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোঃ মাসুদ করিম এবং উপসচিব মোহাম্মদ আহম্মেদ আলী শ্রমিকদের জরুরি চিকিৎসায় আর্থিক সহায়তার চেক নিয়ে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন। আজ রাতেই চট্টগ্রামের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অন্তত ২৯ জন শ্রমিককে ৫০ হাজার টাকা করে চিকিৎসা সহায়তার চেক দেয়া হবে। আগামীকাল সকাল থেকে আরো জরুরি চিকিৎসা সহায়তার চেক প্রদান করা হবে। এছাড়া এ দুর্ঘটনায় ঢাকায় শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন শ্রমিকদেরও আগামীকাল সহায়তা দেওয়া হবে। এ দুর্ঘটনায় আহত প্রত্যেক শ্রমিক এ সহায়তা পাবেন।

          এর আগে শ্রম প্রতিমন্ত্রী স্মরণকালের ভয়াবহ দুর্ঘটনায় যেসকল শ্রমিক নিহত হয়েছেন তাদের প্রত্যেক পরিবারকে শ্রম মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন তহবিল থেকে ২ লাখ টাকা এবং যারা আহত হয়েছেন তাদের প্রত্যেককে চিকিৎসার জন্য জরুরি ভিত্তিতে ৫০ হাজার টাকা করে সহায়তার ঘোষণা দেন। আহতদের চিকিৎসায় আরো সহায়তার প্রয়োজন হলে তাও দেওয়া হবে বলে প্রতিমন্ত্রী জানান।

জেটরো-জেবিসিসিআই’র সেমিনারে বাণিজ্যমন্ত্রী

জাপানের সাথে এফটিএ স্বাক্ষরের কার্যক্রম শুরু করা প্রয়োজন

 

ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন) :

          বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, জাপান বাংলাদেশের বন্ধুরাষ্ট্র এবং উন্নয়ন সহযোগী। জাপান বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ বাণিজ্য এবং বিনিয়োগের অংশীদার। জাপানের সাথে এফটিএ বা ইপিএ স্বাক্ষরের বিষয়ে পদক্ষেপ নেয়া প্রয়োজন। এ বিষয়ে সম্ভাব্যতা যাচাই শুরু করার সময় এসেছে। বাংলাদেশ সরকার বিদেশি বিনিয়োগ উৎসাহিত করতে বিনিয়োগকারীদের জন্য বিশেষ সুযোগ সুবিধা প্রদান করছে।

          আজ ঢাকায় হোটেল লেকশোর এ জাপান এক্সটার্নাল ট্রেড অর্গানাইজেশন (জেটরো) এবং জাপান-বাংলাদেশ চেম্বার অভ্ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি (জেবিসিসিআই) আয়োজিত ‘দি সার্ভে অন এফটিএ/ইপিএ বিটুইন জাপান এন্ড বাংলাদেশ’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

          বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ এলডিসি গ্রাজুয়েশনের পর বিভিন্ন দেশের সাথে প্রিফারেনসিয়াল ট্রেড এগ্রিমেন্ট (পিটিএ) বা ইকনোমিক পার্টনারশিপ এগ্রিমেন্ট (ইপিএ) এর মতো চুক্তি করে বাণিজ্য সুবিধা আদায়ের প্রচেষ্টা শুরু করেছে। বাংলাদেশ ইতোমধ্যে ভুটানের সাথে এফটিএ স্বাক্ষর করেছে। বাংলাদেশ গুরুত্বপূর্ণ ব্যবসায়িক অংশীদার কানাডা, জাপান, চায়না, ইন্ডিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, অষ্ট্রেলিয়া এবং রাশিয়ার সাথে এ ধরনের চুক্তি স্বাক্ষরের প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ব্যবসায়িকভাবে গুরুত্বপূর্ণ দেশের সাথে এ ধরনের বাণিজ্যচুক্তি স্বাক্ষরের নির্দেশনা দিয়েছেন। এতে বাংলাদেশ সাময়িকভাবে শুল্ক হারালেও দীর্ঘমেয়াদে লাভবান হবে।

          মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ বিনিয়োগের জন্য এখন খুবই আকর্ষণীয় স্থান। বিনিয়োগ এবং বাণিজ্য বৃদ্ধির জন্য বাংলাদেশ উন্নত এবং উন্নয়নশীল দেশের সাথে প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। বাংলাদেশ যে সকল দেশে রপ্তানি বেশি করে সে  দেশগুলোর সাথেও আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে।

           সেমিনারে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ঢাকায় নিযুক্ত জাপানের এম্বাসেডর নাওকি ইটো (Naoki ITO), বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব তপন কান্তি ঘোষ এবং বাংলাদেশ ট্রেড এন্ড টেরিফ কমিশনের চেয়ারম্যান মাহফুজার আকতার। সেমিনারে বিষয়ের ওপর মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন জেটরো ঢাকা এবং জেবিসিসিআই এর পরিচালক এর কান্ট্রি রিপ্রেজেনটেটিভ ইউজি আনদো (Yuji Ando). প্যানেল আলোচনায় অংশ নেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব নূর মোহাম্মদ মাহবুবুল হক, জেবিসিসিআই এর প্রতিষ্ঠাতা প্রেসিডেন্ট মতিউর রহমান, পলিসি এক্সচেঞ্জ বাংলাদেশের চেয়ারম্যান এন্ড সিইও মাসরুর রেজা, জাপানিস কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি এ্যাসোসিয়েশন অভ্ বাংলাদেশ এর ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইয়ংহো লি (My ungho LEE), সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেবিসিসিআই এর প্রেসিডেন্ট আসিফ এ চৌধুরী। সেমিনারের মডারেটরের দায়িত্ব পালন করেন জেবিসিসিআই এর সেক্রেটারি জেনারেল তারেক রাফি ভূঁইয়া জান।

 

রাষ্ট্রপতির সাথে নবনিযুক্ত বিচারপতিগণের সাক্ষাৎ

ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন) :

রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদের সাথে আজ সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে সুপ্রীম কোর্টের আপিল বিভাগের নবনিযুক্ত বিচারপতি বোরহান উদ্দিন, বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম এবং বিচারপতি কৃষ্ণা দেবনাথ সাক্ষাৎ করেন।

 

নতুন বিচারপতিগণকে অভিনন্দন জানিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, এর ফলে আপিল বিভাগের অনিষ্পন্ন মামলা নিষ্পত্তিতে গতি আসবে। রাষ্ট্রপতি আশা করেন বিচার বিভাগের ভাবমূর্তি ও জনগণের ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে বিচারপতিগণ নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করবেন। তিনি বলেন, করানোর মতো দুর্যোগ মুহূর্তেও জনগণ যাতে ন্যায় বিচার পায় সে ব্যাপারে বিচার বিভাগকে প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখতে হবে। বিচার কার্যক্রম ত্বরান্বিত করতে তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার বাড়ানোর তাগিদ দেন রাষ্ট্রপতি।

 

সাক্ষাৎকালে রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সচিব সম্পদ বড়ুয়া, সামরিক সচিব মেজর জেনারেল এস এম সালাহ উদ্দিন ইসলাম, রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব মোঃ জয়নাল আবেদীন এবং সচিব সংযুক্ত মোঃ ওয়াহিদুল ইসলাম খান উপস্থিত ছিলেন।

ত্রাণ প্রতিমন্ত্রীর সাথে জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারীর নেতৃত্বে প্রতিনিধিদলের সাক্ষাৎ

ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন) :

          দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মোঃ এনামুর রহমানের সাথে আজ বাংলাদেশ সচিবালয়ে তাঁর দপ্তরে জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী Gwyn Lewis এর নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল সাক্ষাৎ করে।

          সাক্ষাৎকালে কক্সবাজারের শরণার্থী ও তাদের শিশুদের লেখাপড়া, ক্যাম্পসমূহের অতি ঘনবসতি এবং আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়।

          প্রতিমন্ত্রী মিয়ানমারের জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত নাগরিক রোহিঙ্গাদের তাদের নিজ দেশে প্রত্যাবর্তনের ওপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন, রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী তাদের নিজ দেশে প্রত্যাবর্তনের পর যাতে হাতে-কলমে কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করতে পারে সে লক্ষ্যে তাদেরকে কারিগরি ও অন্যান্য বিষয়ে লেখাপড়ার ওপর গুরুত্ব দিয়ে সরকার কাজ করছে। রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নিজ দেশে প্রত্যাবর্তনে মিয়ানমারের ওপর চাপ সৃষ্টির লক্ষ্যে বিশ্ব জনমত গঠনে এগিয়ে আসতে প্রতিমন্ত্রী বিশ্ব নেতৃবৃন্দের প্রতি আহ্বান জানান।

          এসময় মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ কামরুল হাসান উপস্থিত ছিলেন।

‍বাজেট শুধু বাৎসরিক দলিল নয়, আশা আকাঙ্ক্ষার প্রতীক : স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন):

স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম বলেছেন, বাজেট সরকারের শুধু বাৎসরিক আয়-ব্যয়ের দলিল নয়। বাজেট ঘোষণার মাধ্যমে দেশের মানুষের আশা আকাঙ্ক্ষার প্রতিফলন ঘটে থাকে।

আজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে বণিক বার্তা ও গণতান্ত্রিক বাজেট আন্দোলনের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত ‘জন-বাজেট সংসদ ২০২২’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যকালে মন্ত্রী একথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, সরকার সকল শ্রেণি-পেশার মানুষকে অন্তর্ভুক্ত করেই বাজেট ঘোষণা করে থাকে। কারণ এর মাধ্যমে মানুষের আশা আকাঙ্ক্ষা পূরণ হয়। দেশের কোনো মানুষকে বাদ দিয়ে উন্নত দেশে গড়া সম্ভব না। দেশের প্রবৃদ্ধি বৃদ্ধি পায় সকল মানুষের অংশগ্রহণের ফলে। এবারের বাজেটেও জাতির আশা-আকাঙ্ক্ষার প্রতিফলিত ঘটবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

মোঃ তাজুল ইসলাম জানান, দেশ অর্থনীতির সকল সূচকে অনেক এগিয়েছে। এটি সবাইকে মানতে হবে। কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছতে অনেক চ্যালেঞ্জ আছে। সেগুলোকে চিহ্নিত করে সমাধান করতে হবে। আর এটি একদিনে হবে না। স্বাধীনতার পর মাথাপিছু আয় ছিল ১২৫ ডলার। এখন এটি বহুগুণ ছাড়িয়ে গেছে। খাদ্য, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যোগাযোগসহ সকল খাতে অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জিত হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, দেশে একসময় ভয়াবহ দরিদ্রতা ছিল। আমি নিজে দরিদ্রতা দেখেছি। না খেয়ে থাকা মানুষের আহাজারি শুনেছি। মানুষ দরজায় এসে বলতো ‘মাগো সারাদিন কিছু খাই না, দয়া করে ক’টা খাবার দেন’। কিন্তু এখন মানুষ না খেয়ে মরছে না। মানুষ এখন খেতে পারছে। তিনি বলেন, প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের প্রকোপ কেটে উঠতে না উঠতেই ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের কারণে পুরো বিশ্বে টালমাটাল শুরু হয়েছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের পাশাপাশি অনেক জিনিস-পত্রের দাম বেড়েছে। সরকার পণ্যের মূল্য নিয়ন্ত্রণে চেষ্টা করছে। সরকার নানাভাবে এই সমস্যা সমাধানে কাজ করছে।

মন্ত্রী জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার ২০৪১ সালের মধ্যে দেশকে উন্নত-সমৃদ্ধ করার জন্য পথ নকশা তৈরি করেছে। এই লক্ষমাত্রা অর্জনে পঞ্চম বার্ষিকীসহ বিভিন্ন প্রোগ্রাম বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। দেশে যে অর্থনৈতিক কর্মযজ্ঞ চলছে তা বাস্তবায়িত হলে প্রচুর কর্মসংস্থান তৈরি হবে। দেশ পৌঁছে যাবে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মমতাজ উদ্দীন আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ও চেয়ারম্যান ড. এম এম আকাশ, রাজস্ব বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান ড. মুহাম্মদ আব্দুল মজিদ, দ্যা এশিয়া ফাউন্ডেশনের কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ কাজী ফয়সাল বিন সিরাজ। 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মূলনীতি গ্রাম শহরের উন্নতি : আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ্

আগৈলঝাড়া (বরিশাল), ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন) :

পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন ও পরিবীক্ষণ কমিটির আহ্বায়ক (মন্ত্রী পদমর্যাদা) আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ্ বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মূলনীতি গ্রাম শহরের উন্নতি। বর্তমান গণতান্ত্রিক সরকার এ দর্শনকে ধারণ করে দেশের স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানসমূহের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে গণতান্ত্রিক অধিকার সমুন্নত রাখতে সক্ষম হয়েছে। 

 

আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ্ আজ বরিশাল জেলার আগৈলঝাড়াস্থ সেরালে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদস্যদের সাথে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন। এ সময় জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ বলেন, সরকার সারা দেশে পরিকল্পিত, গণমুখী ও বাসযোগ্য টেকসই গ্রামীণ সমাজ ব্যবস্থা নিশ্চিত করার জন্য বিভিন্ন কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়ন করছে। তিনি নির্বাচিত প্রতিনিধিদের সরকারের মুখাপেক্ষী না থেকে স্থানীয় পর্যায়ে বিভিন্ন আয়বর্ধক কর্মসূচি গ্রহণের মাধ্যমে স্বাবলম্বী প্রতিষ্ঠান হিসেবে জনসেবা সুনিশ্চিত করার পরামর্শ দেন।

 

জনাব আবুল হাসানাত বলেন, বর্তমান সরকারের ‘রুপকল্প ২০২১’ এর সফল বাস্তবায়ন এবং অভীষ্ট লক্ষ্য অর্জনে স্থানীয় পর্যায়ে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের সরকারের সেতুবন্ধন হিসেবে কাজ করতে হবেনির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের দলমতের ঊর্ধ্বে উঠে সর্বস্তরের জনগণের সার্বিক কল্যাণে সমন্বিত ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান। তিনি বরিশালের স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানসমূহের উন্নয়নে সার্বিক সহায়তার আশ্বাস দেন।

 

অপরদিকে আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ্ চট্টগ্রাম জেলার সীতাকুণ্ডে কন্টেইনার ডিপোতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের জন্য গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। তিনি নিহতদের রুহের মাগফিরাত কামনা করে আহতদের আশুআরোগ্য কামনা করেন।

এ বছর জেএসসি পরীক্ষা হবে না : শিক্ষামন্ত্রী

ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন):

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষা এ বছর হচ্ছে না। এ স্তরের শিক্ষার্থীদের নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের শ্রেণি মূল্যায়নের মাধ্যমে পরবর্তী ক্লাসে উত্তীর্ণ করা হবে। তবে তারা শিক্ষা বোর্ড থেকে সনদ পাবে। নির্বাচিত প্রার্থীদের পুলিশ বা নিরাপত্তা ভেরিফিকেশনের পরে নিয়োগ সুপারিশ করা হবে বলেও জানান তিনি।

আজ শিক্ষা মন্ত্রণালয় আয়োজিত বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগের ফলাফল অবহিতকরণ সংক্রান্ত প্রেস ব্রিফিংয়ে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

দেশের বিভিন্ন বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শূন্যপদের বিপরীতে শিক্ষক নিয়োগের সুপারিশের ফলাফল প্রকাশ অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আবু বকর ছিদ্দীক, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফরের মহাপরিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমেদ, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের পরিচালক অধ্যাপক শাহেদুল খবির, এনটিআরসিএ’র চেয়ারম্যান এনামুল কাদের খান প্রমুখ।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘নতুন শিক্ষাক্রমে জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা থাকছে না। ২০২৩ সালে এ পরীক্ষা নেওয়ার প্রয়োজন দেখছি না। তাই বলা যায়, আর অষ্টম শ্রেণির পাবলিক পরীক্ষা নেওয়া হবে না। নতুন আর এ পরীক্ষা নেওয়ার কোনও চিন্তা-ভাবনা নেই।’

নতুন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এক সপ্তাহের মধ্যে নতুন বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করার ঘোষণা দেওয়া হবে আশা করছি। ঘোষণার দিন থেকে শিক্ষক-কর্মচারীরা এমপিও সুবিধা প্রাপ্য হবেন।

শিক্ষক নিয়োগ ফলাফলের বর্ণনা তুলে ধরে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, দেশের বিভিন্ন বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শূন্যপদের বিপরীতে ১১ হাজার ৭৬৯ জন শিক্ষক নিয়োগের সুপারিশ করা হয়েছে। ‘বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তি’ ও ‘ওয়েটিং লিস্ট’ থেকে এ শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ করা হয়। এনটিআরসিএ প্রকাশিত বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তি ২০২২ এর আওতায় ১৫ হাজার ১৬৩টি শূন্য পদে নিয়োগ সুপারিশের জন্য এবং ৩য় গণবিজ্ঞপ্তির আওতায় নিয়োগ সুপারিশের পর যে সব পদে কেউ যোগদান করেনি বা পুলিশ ভেরিফিকেশন ফরম দাখিল করেননি এমন ৩ হাজার ৭৮১টি পদে প্রার্থী নির্বাচন করা হয়েছে।

মন্ত্রী আরো বলেন, এনটিআরসিএ’র ৩য় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির আওতায় যে সব পদে কেউ আবেদন করেননি এমন ১৫ হাজার ১৬৩টি শূন্য পদে নিয়োগ সুপারিশ করার জন্য গত ৬ ফেব্রুয়ারি বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে ৩ লাখ ৪৩ হাজার ৪০৭টি আবেদন পাওয়া যায়। এই আবেদনগুলো টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেডের সফটওয়্যারের মাধ্যমে মেধা ও চাহিদা অনুযায়ী যাচাই-বাছাই করা হয়। এতে মোট ৮ হাজার ৩৫৯ জনের আবেদন পাওয়া গেছে। তার মধ্য থেকে মেধা ও চাহিদার ভিত্তিতে ৪ হাজার ৭৫২ জন প্রার্থীকে নিয়োগ সুপারিশের জন্য নির্বাচন করা হয়।

শেখ হাসিনার সততা, সাহসিকতা ও দেশপ্রেমের কারণেই পদ্মাসেতু হয়েছে : পানি সম্পদ উপমন্ত্রী

ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন):

পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সততা, সাহসিকতা, দেশপ্রেম দিয়ে সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়ে দেশি-বিদেশি সকল ষড়যন্ত্র উপেক্ষা করে
পদ্মা সেতু বাস্তবায়ন করেছেন। তিনি বিশ্ববাসীকে বাংলাদেশের সক্ষমতা আরো একবার চিনিয়েছেন। পদ্মা সেতু শুধু একটি সেতুই নয়, এটি আমাদের অনন্য গৌরব, মর্যাদা আর অহংকারের প্রতীক। দেশের মানুষের স্বপ্ন পূরণের অনবদ্য উপাখ্যান। মাথা না নোয়ানো বাংলাদেশের দিকে অবাক বিস্ময়ে বিশ্ববাসীর তাকিয়ে থাকার প্রোজ্জ্বল উপলক্ষ্য। এ সেতুর প্রতিটি পরতে পরতে জাতির পিতার সুযোগ্য উত্তরসূরি শেখ হাসিনার প্রত্যয় আর দৃঢ়তার প্রতিচ্ছবি।

আজ শরীয়তপুরের সখিপুর থানার উত্তর তারাবুনিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের বর্ধিত সভা এবং সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কর্মসূচিতে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

উপমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা ও উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিকল্প নেই। তাঁর সুযোগ্য নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বিশ্ববাসীর কাছে অনুকরণীয় একটি দেশ হিসেবে পরিণত হয়েছে। তিনি জানেন কীভাবে এ দেশের মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন হবে, কীভাবে এ দেশের মানুষের মুখে হাসি ফুটবে। তিনি জানেন কীভাবে একটি অঞ্চলকে গুরুত্বপূর্ণ জনপদে রূপান্তর করতে হবে। কীভাবে একটি জাতিকে আত্মমর্যাদায় শীর্ষে পৌঁছে দেওয়া যাবে। পদ্মা সেতুর সামাজিক, অর্থনৈতিক ও আন্তর্জাতিক গুরুত্ব ব্যাপক।

এনামুল হক শামীম বলেন, পদ্মা সেতু নিয়ে কোনো দুর্নীতি হয়নি। এটি কানাডার ফেডারেল কোর্টে প্রমাণিত হয়েছে। মিথ্যা তথ্য দিয়ে দেশের ভাবমুর্তি ক্ষুণ্ণ করেছে। বিগত সময়ে বিএনপির দুর্নীতি অপকর্ম ঢাকতেই উন্নয়ন কর্মকাণ্ড নিয়ে এ ধরনের অপবাদ দিতে চাইছে। তারা ক্ষমতায় থাকতে বাংলাদেশ দুর্নীতিতে ৫বার বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলো। তাদের দলের নেতারা দুর্নীতির দায়ে সাজাপ্রাপ্ত। তাদের মুখে আবার দুর্নীতিবিরোধী কথা শোভা পায় না। মিথ্যাচার করা বিএনপির মজ্জাগত স্বভাব।

আগামী ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষ্যে শিবচরের কাঁঠালবাড়িতে আওয়ামী লীগ আয়োজিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভা সফল করার লক্ষ্যে সবাইকে উপস্থিত থাকার আহ্বান জানান উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম।

উত্তর তারাবুনিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি টুকু বেপারীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন মাঝির সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সখিপুর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ভেদরগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব হুমায়ুন কবির মোল্যা, সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান মানিক সরকার প্রমুখ।

 

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাতে তাৎক্ষণিক সেবা পৌঁছাতে কল সেন্টার চালু করা হয়েছে : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন) :

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাতে মানুষের দ্বারপ্রান্তে তাৎক্ষণিক সেবা পৌঁছে দিতে কল সেন্টার চালু করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

 

আজ রাজধানীর মৎস্য ভবনে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় বাস্তবায়নাধীন ‘মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাতে ই-সেবা কার্যক্রম চালুকরণ’ প্রকল্পের আওতায় মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সেবা কল সেন্টারের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী একথা জানান।

 

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মুহাম্মদ ইয়ামিন চৌধুরী, অতিরিক্ত সচিব শ্যামল চন্দ্র কর্মকার ও মো. তৌফিকুল আরিফ, মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক খ. মাহবুবুল হক, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. মনজুর মোহাম্মদ শাহজাদা, সংশ্লিষ্ট প্রকল্প পরিচালক পুলকেশ মন্ডলসহ মন্ত্রণালয়, মৎস্য অধিদপ্তর ও প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

 

মন্ত্রী বলেন, আধুনিক বাংলাদেশ বিনির্মাণের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ দিক হচ্ছে ডিজিটাল বাংলাদেশ। কল সেন্টারের মাধ্যমে ডিজিটাল বাংলাদেশের অপ্রতিরোধ্য গতিতে মৎস্য অধিদপ্তর ও প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর সংযুক্ত হয়েছে। প্রান্তিক পর্যায় থেকে শুরু করে যে কোন ব্যক্তি তার প্রয়োজনে সরাসরি সংযুক্ত হওয়ার জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে এই ই-সেবা শুরু করা হয়েছে। গতানুগতিক পদ্ধতির বাইরে দ্রুততম সময়ে যাতে মানুষের পাশে দাঁড়ানো যায় সেজন্য কল সেন্টার চালু করা হয়েছে।

 

 মন্ত্রী আরো বলেন, প্রাণিসম্পদ ও মৎস্য খাতে যে সমৃদ্ধি এসেছে তা ধরে রেখে এ খাতকে আমরা আরও উত্তরোত্তর সমৃদ্ধ করতে চাই। শুধু সমৃদ্ধিই নয় গুণগত পরিবর্তনও এক্ষেত্রে আমাদের লক্ষ্য। কোন খামারি প্রতিকূল অবস্থার মুখোমুখি হলে বা কোন সমস্যায় পড়লে তাদের কাছে তাৎক্ষণিক সুবিধা উন্মুক্ত করার জন্য এ কল সেন্টার কাজ করবে। দেশের মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাতকে বিশ্বে বিস্ময়কর ও আধুনিক স্থানে নিয়ে যাওয়ার জন্য কল সেন্টার হবে বড় ধরনের সহায়ক।

 

মন্ত্রী বলেন, কল সেন্টার একটি জরুরি সেবা। এখানে সেবার মনোভাবের পরিবর্তে দায়সারা কোন কার্যক্রম যেন না হয় সেটি লক্ষ্য রাখতে হবে। কল সেন্টারে যিনি কল করছেন তিনি এদেশের নাগরিক। সে নাগরিকের সেবা পাওয়ার সাংবিধানিক অধিকার রয়েছে। সেবা প্রত্যাশীদের প্রতিটি কল গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করতে হবে। নাগরিকদের সেবা দেয়া আমাদের লক্ষ্য। তাদের সমস্যা সমাধানে ভূমিকা রাখতে হবে। এভাবে ডিজিটালাইজেশনের ধারা অব্যাহত রেখে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাতে আমূল পরিবর্তন চতুর্দিকে ছড়িয়ে দেওয়া হবে।

 

উল্লেখ্য, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি ব্যবহার করে রাজধানীতে মৎস্য অধিদপ্তরের সদর দপ্তরে ১টি ও প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের সদর দপ্তরে অপর ১টিসহ মোট ২টি কল সেন্টার স্থাপন করা হয়েছে। মৎস্য অধিদপ্তরের কল সেন্টারের নম্বর ১৬১২৬ এবং প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের কল সেন্টারের নম্বর ১৬৩৫৮। আপাতত সপ্তাহে ৫দিন (রবিবার থেকে বৃহস্পতিবার) সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত মৎস্য খাতের ও প্রাণিসম্পদ খাতের খামারি ও উদ্যেক্তারা কলসেন্টার থেকে সরাসরি সেবা পাবেন। মৎস্যচাষি ও খামারিগণ মৎস্য চাষ, মাছের রোগবালাই ইত্যাদি সম্পর্কে টেলিফোন কল সেন্টার থেকে তথ্য ও সেবা পাবেন। একইভাবে প্রাণিসম্পদ খাতের খামারি ও উদ্যোক্তাগণ প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের কল সেন্টার থেকে গবাদিপশু পালন ও ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে তাৎক্ষণিকভাবে পরামর্শ ও সেবা পাবেন।

 

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে অগ্নিকাণ্ডে হতাহতের ঘটনায় মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীর শোক

ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন) :

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম কনটেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ডে হতাহতের ঘটনায় গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন; সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ; ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী; রেলপথমন্ত্রী মোঃ নূরুল ইসলাম সুজন; পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন ও পরিবীক্ষণ কমিটির আহ্বায়ক (মন্ত্রী পদমর্যাদা) আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ্; সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী মোঃ আশরাফ আলী খান খসরু; পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক; সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এবং পানিসম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম।  

পৃথক শোকবার্তায় মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীগণ বলেন, গতকাল (শনিবার) রাতে সীতাকুণ্ডের কনটেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ডে হতাহতের ঘটনা অত্যন্ত বেদনাদায়ক। তাঁরা এ দুর্ঘটনায় নিহতদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। এছাড়া তাঁরা আহতদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন।

পদ্মা সেতু উদ্বোধনের সময় খালেদা জিয়াকে দাওয়াত দিতে আইনি বাধা নেই :  আইনমন্ত্রী

ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন):

বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে পদ্মা সেতু উদ্বোধনের সময় দাওয়াত দিতে আইনি কোনো বাধা নেই বলে জানিয়েছেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক। মন্ত্রী বলেন, খালেদা জিয়ার ব্যাপারে দু’টি শর্ত আছে, তা হলো তিনি বাংলাদেশের ভিতরে চিকিৎসা গ্রহণ করবেন আর বিদেশে যেতে পারবেন না। সে কারণে পদ্মা সেতু উদ্বোধনের সময় তাকে দাওয়াত দিতে আইনি কোনো বাধা নেই।

আজ ঢাকায় বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট/চিফ মেট্রোপলিটান ম্যাজিস্ট্রেটগণের জন্য আয়োজিত ১৪৬তম রিফ্রেসার কোর্সের উদ্বোধন অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন মন্ত্রী।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের বরাত দিয়ে মন্ত্রী বলেন, সরকার খালেদা জিয়াকে পদ্মা সেতু উদ্বোধনের সময় দাওয়াত দেবে। এ বিষয়ে আইনি কোনো বাধা নেই বলে তিনি সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীকে আজ জানিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার বিদ্বেষের বশীভূত হয়ে কারও প্রতি কোন ‘একশন’ নেন না। ২০০৭ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে খালেদা জিয়া ও তার পুত্রদ্বয়ের বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলা দেওয়া হয়েছিল। সেগুলো দুদকের তদন্ত ও বিচার প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সম্পন্ন হয়েছে। তারা যদি এটা বলে যে, আওয়ামী লীগ সরকার এই মামলাগুলো করেছে, তাহলে আমার মনে হয় যে, তারা শুধু শুধু জনগণ যেটা বিশ্বাস করে তাদের দুর্নীতির ব্যাপারে, সেটাকে অন্যদিকে প্রবাহিত করার জন্য আওয়ীমী লীগ সরকারকে দোষারোপ করছে। তাদের দোষারোপ করাটা ভিত্তিহীন। তিনি বলেন, দুদক একটি স্বাধীন প্রতিষ্ঠান। ২০০৪ সালের আইনের পরে ২০০৬ সাল পর্যন্ত দুদককে চেয়ার টেবিলও দেয়নি বিএনপি সরকার। ২০০৭ সালে এটাকে প্রকৃত কার্যকর করা হয়েছে।

বিচার বিভাগের বাজেট বাড়ানো প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, যুক্তিসংগত যে কোনো প্রয়োজনে অর্থ দিতে অর্থ মন্ত্রণালয় কার্পণ্য করবে না। জাতীয় বাজেটে আইন মন্ত্রণালয়কে যে টাকা দেওয়া হয় তা আগে কোন সরকার দেয়নি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারই প্রথম বিচারকদের প্রশিক্ষণের জন্য অর্থ বরাদ্দ দিয়েছে। সুপ্রিম কোর্টে ই-জুডিসিয়ারি প্রকল্পের একটি অংশ বাস্তবায়নের জন্য ২১৭ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে সরকার। এটা আইন মন্ত্রণালয়ের নামে বরাদ্দকৃত মূল বাজেটের বাইরে। 

এর আগে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী আবারও বলেন, বাক্‌ স্বাধীনতা ও সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতা বন্ধ করার জন্য ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করা হয়নি। সাইবার ক্রাইম প্রতিরোধ করার জন্য এই আইন করা হয়েছে।

বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক বিচারপতি নাজমুন আরা সুলতানার সভাপতিত্বে ভাচুয়াল অনুষ্ঠানে আইন ও বিচার বিভাগের সচিব মো. গোলাম সারওয়ার, কোর্স পরিচালক মীর মো. এমতাজুল হক বক্তৃতা করেন।

অভিযানের পর চালের দামে নিম্নগতি : খাদ্যমন্ত্রী

ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ  (৫ জুন):

          অবৈধ মজুতের বিরুদ্ধে অভিযানের প্রেক্ষিতে চালের দামে নিম্নগতি এসেছে বলে জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।

আজ সচিবালয়ে খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে “আন্তর্জাতিক নিউট্রিশন অলিম্পিয়াড ২০২২ এর লেগো উন্মোচন এবং আনুষ্ঠানিক ঘোষণা” অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, গত সোমবার কেবিনেট বৈঠকে ধান-চালের অবৈধ মজুতের বিরুদ্ধে অভিযান নিয়ে আলাপ হয়। মঙ্গলবার বিকেল থেকে আমরা অভিযান শুরু করি। বুধবার থেকে অভিযান সারাদেশে শুরু হয়। সারা দেশে একসাথে সাঁড়াশি অভিযানের মতো আমাদের এটা চলছে। বুধ-বৃহস্পতিবারও অভিযান হয়েছে। শুক্র-শনিবার বন্ধের দিনেও আমাদের অভিযান চলেছে।

মন্ত্রী বলেন, আমরা অনেক জায়গায় অনেক চাল অবৈধ মজুত পেয়েছি, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এ অবস্থায় বাজারে চালের দামের নিম্নগতি রয়েছে, একেবারে কন্ট্রোল হয়েছে, এ কথা আমি বলবো না। সরকার কাজ করছে। এটা অব্যাহত রাখা হবে। অভিযানের পর একটি বিষয় পরিলক্ষিত হচ্ছে, আসল চিত্রটা আমরা পাচ্ছি। মজুত কত আছে, অবৈধ মজুদ কত আছে, আমরা যা বলছি সেই পরিমাণ মজুদ আছে কি না? টোটাল একটা হিসাবের মধ্যেও আমরা আসতে পারছি।

আগামীকাল খাদ্য বিষয়ে সরকারের সর্বোচ্চ কমিটি খাদ্য পরিকল্পনা ও পরিধারণ কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হবে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, সেই মিটিং-এ আমরা এ বিষয়গুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব, বাজারদর নিয়ন্ত্রণ করার জন্য আর কী কী ব্যবস্থা নেওয়া যায়। চালের দাম কবে কমবে জানতে চাইলে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, কমতে শুরু করেছে তবে কবে কমবে এটা সুনির্দিষ্ট করে বলা যাবে না। তিনি বলেন, সুনির্দিষ্টভাবে যেখানে অভিযোগ পাচ্ছি সেই সব মিলে আমরা অভিযান চালাচ্ছি।

এর আগে “আন্তর্জাতিক নিউট্রিশন অলিম্পিয়াড ২০২২ এর লোগো উন্মোচন এবং আনুষ্ঠানিক ঘোষণা” অনুষ্ঠানে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, নিউট্রিশন অলিম্পিয়াড তরুণ ও কিশোর কিশোরীদের উদ্ভাবনী সক্ষমতাকে কাজে লাগিয়ে পুষ্টি বিষয়ে তৃণমূলে সচেতনতা তৈরি করবে। তিনি বলেন, নিউট্রিশন অলিম্পিয়াড আমাদের তরুণদের জন্য একটি বড় প্লাটফরম, যেখানে অন্য দেশের তরুণদের সাথে চিন্তা ভাবনা বা অভিজ্ঞতা শেয়ার করার সুযোগ তৈরি করে দেবে।

অনুষ্ঠানে খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম, শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. মোঃ শাহিদুর রহমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পুষ্টিবিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের প্রফেসর নাজমা শাহিন, ফুড প্রকিউরিং এন্ড মনিটরিং ইউনিটের মহাপরিচালক মোঃ শহীদুজ্জামান ফারুকী, গ্লোবাল এ্যালায়েন্স ফর ইম্প্রুভড নিউট্রিশনের কান্ট্রি ডিরেকটর রুদাবা খন্দকার এবং বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অভ্‌ আইসিটি ইন ডেভলপমেন্ট ফাউন্ডেশনের সিইও শহিদ উদ্দিন আকবর বক্তব্য রাখেন।

 

শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকিদাতাদের কঠোরভাবে মোকাবিলা করা হবে : কৃষিমন্ত্রী

ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন) :

কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, স্বাধীনতাবিরোধী ও একাত্তরের পরাজিত শক্তি ১৯৭৫ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করেছিল। সেই শক্তিই ‘পঁচাত্তরের হাতিয়ার গর্জে উঠুক আরেকবার’ বলে স্লোগান দিচ্ছে। তারাই ধরিত্রীর নেত্রী, মানবতার নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করতে চায়। বাংলাদেশকে আবার পাকিস্তান বানাতে চায়। কিন্তু এ দেশের জনগণ ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা এদেরকে কঠোরভাবে মোকাবিলা করবে। এদেশে ’৭৫ আর ফিরে আসবে না।

আজ ঢাকায় জাতীয় জাদুঘর মিলনায়তনে পরিবেশ দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপকমিটি ‘এক পৃথিবী: বাংলাদেশ প্রেক্ষিত এবং বিশ্ব পরিবেশ দিবস’ শীর্ষক এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।  

মন্ত্রী বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের বড় ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ। জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে দেশের খাদ্য নিরাপত্তা ব্যবস্থা হুমকির মুখে পড়তে পারে। এ বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে সরকার অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে জলবায়ু পরিবর্তনের অভিঘাত মোকাবিলায় কাজ করে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার জলবায়ু মোকাবিলায় সঠিক পথে রয়েছে। এসডিজির লক্ষ্যমাত্রা অর্জনেও সঠিক পথে রয়েছে।

মন্ত্রী আরো বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন হোক বা না হোক  কৃষিতে আমাদের চ্যালেঞ্জ একটিই, সেটি হলো খাদ্য নিরাপত্তা। সেজন্য, আমরা জলবায়ু পরিবর্তনের সাথে তাল মিলিয়ে ও প্রতিকূলতাকে মোকাবিলা করে কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধির ওপর জোর দিচ্ছি। জলবায়ু পরিবর্তনসহনশীল বা প্রতিকূল পরিবেশে চাষের উপযোগী ধানসহ বিভিন্ন ফসলের জাত উদ্ভাবন ও সম্প্রসারণে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। ইতোমধ্যে লবণ, জলমগ্নতা, খরাসহনশীল অনেকগুলো জাত উদ্ভাবিত হয়েছে এবং তা সম্প্রসারণ করা হচ্ছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রিয়াজুল কবীর কাওছার বক্তব্য রাখেন। বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপকমিটির চেয়ারম্যান অধ্যাপক খন্দকার বজলুল হকের সভাপতিত্বে এবং বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেনের সঞ্চালনায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞানের অধ্যাপক সাদেকা হালিম, বিসিএসআইআরের চেয়ারম্যান আফতাব আলী শেখ ও দৈনিক জনকণ্ঠের সিনিয়র সাংবাদিক কাওছার রহমান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

 

বিএনপি গায়েবানা দলের সাথে সংলাপ করছে : তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী

 

ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন) :   

 

বিএনপি তাদের জোটের দলগুলোর সাথে অর্থাৎ নিজেরা নিজেদের সাথে এবং কিছু গায়েবানা দলের সাথে সংলাপ করছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান
মাহ্‌মুদ। 

 

আজ সচিবালয়ে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশন অভ্ বাংলাদেশ-ক্র্যাব এর নবনির্বাচিত কমিটির সাথে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকরা বিএনপির সাম্প্রতিক কর্মকাণ্ড নিয়ে প্রশ্ন করলে মন্ত্রী একথা বলেন। 

 

ড. হাছান বলেন, ‘পত্রপত্রিকায় দেখেছি বিএনপি যেসব দলের সাথে সংলাপ করছে, তারা বিএনপির কথিত ২২ দলীয় জোটভুক্ত, যদিও ২২ দল থেকে কিছু পালিয়ে গেছে। অর্থাৎ নিজেরা নিজেদের সাথে সংলাপ করছে। আর অন্য কিছু দলের সাথে তারা বৈঠক করার পরই কেবল আমরা জানতে পারছি যে, সে ধরনের দল বাংলাদেশে আছে, যাদের অনেকের কোনো নিবন্ধনই নেই। নিবন্ধনহীন পত্রিকাকে যেমন সাংবাদিকরা গায়েবানা পত্রিকা বলে, এ দলগুলোও তেমনি গায়েবানা দল। এদের সাথে বিএনপির সংলাপ শুধু হাস্যকর নয়, এতে বিএনপির রাজনৈতিক দৈন্যই প্রকাশ পাচ্ছে।’ 

 

এ সময় শনিবার রাতে চট্টগ্রামের সীতাকুন্ডে কনটেইনার ডিপোতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের কারণ সম্পর্কে প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী নিজে বিষয়টি দেখছেন, সবাইকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিয়েছেন। আমাদের দলের নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দেয়া আছে যেখানে রক্ত লাগে সেখানে রক্ত দেয়া এবং সার্বিক সহযোগিতা করার জন্য। যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগসহ আওয়ামী লীগ ও অন্যান্য সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা ঝাঁপিয়ে পড়েছে। বিষয়টি দুর্ঘটনা না নাশকতা সেটিও খতিয়ে দেখা হবে। কারণ এত বড় একটি ঘটনা কি সত্যিকার অর্থে দুর্ঘটনা না কি নাশকতা, সেটিও খতিয়ে দেখা প্রয়োজন।’ 

 

এর আগে মন্ত্রী ক্র্যাবের নবনির্বাচিত কমিটিকে অভিনন্দন জানান এবং বলেন, অপরাধ বিষয়ক প্রতিবেদন করতে গিয়ে তাদেরকে অনেক সময় বড় ঝুঁকির সম্মুখীন হতে হয়। একই সাথে কোনো রিপোর্ট করার সময় কারো ব্যক্তিগত গণ্ডিতে যেন অনুপ্রবেশ না হয়, আইন দ্বারা সুরক্ষিত অধিকার যাতে খর্ব না হয়, সেদিকেও খেয়াল রাখা প্রয়োজন। এ বিষয়ে প্রশিক্ষণ দিয়ে রিপোর্টারদের দক্ষতা বাড়াতে পারে। প্রশিক্ষণ প্রদানের জন্য প্রেস ইনস্টিটিউটকে নির্দেশনা দেবেন বলে জানান হাছান মাহমুদ। 

 

ক্র্যাব সভাপতি মির্জা মেহেদী তমাল, সহ-সভাপতি মুহ. জাহাঙ্গীর আলম, সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান বিকু, যুগ্ম-সম্পাদক ইমরান হোসেন সুমন, অর্থ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম মন্টু, সাংগঠনিক সম্পাদক আতাউর রহমান, দপ্তর সম্পাদক ইসমাঈন হুসাইন ইমু, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক রুদ্র রাসেল, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক এস এম মিন্টু হোসেন, প্রশিক্ষণ ও তথ্য প্রযুক্তি সম্পাদক সাজ্জাদ মাহমুদ খান, কল্যাণ সম্পাদক নাহিদ তন্ময়, আন্তর্জাতিক সম্পাদক শাহীন আলম, কার্যনির্বাহী সদস্য মোঃ আমানুর রহমান রনি, সিরাজুল ইসলাম ও মোহাম্মদ জাকারিয়া মন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান ও মতবিনিময়ে অংশ নেন।

 আগামী ৬-৮ জুন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ ২০২২

 

ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন):

“অনুপ্রেরণামূলক ক্ষমতায়ন এবং উদ্ভাবন” এই থিম নিয়ে আগামী ৬-৮ জুন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ ২০২২।

আজ বিসিসি’র উদ্যোগে আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল মিলনায়তনে ‘ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ- ২০২২’ উপলক্ষ্যে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়। 

সংবাদ সম্মেলনে আরো জানানো হয়, পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান প্রধান অতিথি হিসেবে ৬ জুন, রবিবার সকাল সাড়ে ১০ টায় বাংলাদেশ কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট (কেআইবি) মিলনায়তনে ‘ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ ২০২২’ এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানের পর অংশগ্রহণকারী দলগুলো তাদের প্রজেক্টসমূহ প্রদর্শন করবে। ব্লকচেইন প্রযুক্তিতে আগ্রহী সাধারণ জনগণের জন্যও এই প্রদর্শনী উন্মুক্ত থাকবে। এ ইভেন্টে অনেক স্বনামধন্য বুদ্ধিজীবী, উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ব্লকচেইন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ অতিথি, বিচারক ও বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।

এছাড়া ৪টি সেমিনার, অনস্পট কুইজ, গালা ডিনার, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। সবশেষে পুরস্কার বিতরণ ও সমাপন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে তিন দিনব্যাপী চলমান এই ইভেন্টটি ৮ জুন, বুধবার সমাপ্ত হবে। সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

প্রতি নিহত শ্রমিকদের ২ লাখ এবং আহতদের ৫০ হাজার টাকা সহায়তা দেওয়া হবে : শ্রম প্রতিমন্ত্রী

 

ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন):

চট্রগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম কন্টেইনার ডিপোতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে হতাহতের ঘটনায় শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

          আজ এক শোকবার্তায় শ্রম প্রতিমন্ত্রী নিহত শ্রমিকদের রুহের মাগফেরাত এবং আহতদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন।

          শ্রম প্রতিমন্ত্রী এ দূর্ঘটনায় যেসকল শ্রমিক নিহত হয়েছেন তাদের প্রত্যেক পরিবারকে বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন তহবিল থেকে ২ লাখ টাকা এবং যারা আহত হয়েছেন তাদের চিকিৎসার জন্য জরুরি ভিত্তিতে ৫০ হাজার টাকা করে সহায়তার ঘোষণা দিয়েছেন। আহতদের চিকিৎসায় আরো সহায়তার প্রয়োজন হলে তা দেওয়া হবে বলে প্রতিমন্ত্রী জানান।

          সীতাকুণ্ডের বিএম কন্টেইনার ডিপোতে ভয়াবহ এ দূর্ঘটনায় হতাহতের জন্য শ্রম মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. এহছানে এলাহীও গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

          এ দূর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের চট্রগামের উপমহাপরিদর্শক আব্দুল্লাহ আল সাকিব মুবারাত ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন। এছাড়া বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ তহবিল থেকে দ্রুত আর্থিক সহায়তা প্রদানের লক্ষ্যে উপমহাপরিদর্শক নিহত এবং আহত শ্রমিকদের তথ্য সংগ্রহের জন্য ১৩ সদস্যের আরো একটি কমিটি গঠন করেছেন।

          অন্যদিকে এ দূর্ঘটনায় সার্বিক শ্রম পরিস্থিতি নিয়ে বিভাগীয় শ্রম দপ্তর চট্রগ্রামের পরিচালক এস এম এনামুল হক তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করেছেন।

 

৪১০ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকা ছেড়েছে প্রথম হজ ফ্লাইট

 

ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন):

চলতি বছরের প্রথম হজ ফ্লাইট ৪১০ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকা ছেড়েছে। আজ সকাল ৯টার দিকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ছেড়ে যায়। ফ্লাইটটি স্থানীয় সময় দুপুর ১২.৪৫ মিনিটে জেদ্দায় পৌঁছাবে। 

হজ ফ্লাইট ছেড়ে যাওয়ার সময় বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মোঃ মাহবুব আলী, ধর্ম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মোঃ ফরিদুল হক খান, বিমান পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান সাজ্জাদুল হাসান, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ মোকাম্মেল হোসেন, বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মোঃ মফিদুর রহমান, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. আবু সালেহ মোস্তফা কামাল সহ অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বিমানবন্দরে উপস্থিত থেকে হজযাত্রীদের বিদায় জানান। 

এ বছর বাংলাদেশ থেকে মোট ৫৭ হাজার ৫৮৫ হজযাত্রী সৌদি আরব যাবেন। এর মধ্যে ৫০ শতাংশ হিসেবে ২৮ হাজার ৭৯৩ হজযাত্রী পরিবহণ করবে বিমান। তবে প্রতিনিধিসহ ২৯ হাজার হজযাত্রী পরিবহণের পরিকল্পনা রয়েছে। হজযাত্রী পরিবহণে বিমানের নিজস্ব বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর উড়োজাহাজ ব্যবহৃত হচ্ছে। বিমান প্রি-হজে ৫ জুন থেকে ৩ জুলাই পর্যন্ত ৬৫টি ও পোস্ট-হজে ১৪ জুলাই থেকে ১৩ আগস্ট পর্যন্ত ৬৫ টি করে মোট ১৩০টি ডেডিকেটেড ফ্লাইট পরিচালনা করবে। বিমানের প্রি-হজ ও পোস্ট-হজ উভয় ফ্লাইটের ক্ষেত্রেই ৬৫ টি ফ্লাইটের ৫১ টি জেদ্দায় ও ১৪ টি মদিনায় পরিচালিত হবে। 

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ৩ জুন হজ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন । 

 

রোহিঙ্গাদের খাদ্য সহায়তায় ২৫৫ কোটি টাকা অনুদান দিবে বিশ্ব ব্যাংক : ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন):

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মোঃ এনামুর রহমান বলেছেন, কক্সবাজারের টেকনাফ ও উখিয়ায় মায়ানমার থেকে বলপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের খাদ্য সহায়তা প্রদানে বিশ্বব্যাংক অনুদান হিসেবে ২৫৫ কোটি টাকা দিবে।

প্রতিমন্ত্রী আজ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় এবং বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি (ডব্লিউএফপি) এর মধ্যে এ সংক্রান্ত একটি চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা জানান।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ সচিব মোঃ কামরুল হাসান মন্ত্রণালয়ের পক্ষে এবং ডব্লিউএফপি-এর পক্ষে কান্ট্রি ডিরেক্টর জিন্স পেয়ারস চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। এসময় মন্ত্রণালয় এবং ডব্লিউএফপি’র ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, এ চুক্তির অধীনে ডব্লিউএফপি সেফটি নেট সিস্টেম ফর দ্য পুওরেস্ট প্রকল্পের মাধ্যমে কক্সবাজারে অবস্থানরত রোহিঙ্গাদের খাদ্য সহায়তা প্রদান করবে। প্রকল্পটি বিশ্ব ব্যাংকের আর্থিক অনুদানে পরিচালিত হবে। তিনি আরো বলেন, এ প্রকল্পের মাধ্যমে মহিলাদেরকে পুষ্টি বিষয়ক শিক্ষা প্রদান, পাঁচ বছরের কম বয়সী শিশুদের স্বাস্থ্যকেন্দ্রে সহায়তা প্রদান, সবজি বাগান তৈরিতে উপকরণ সরবরাহ ও প্রশিক্ষণ দেওয়া, বৃক্ষরোপণ ও সংরক্ষণ করা, পাহাড়ের ঢাল সংরক্ষণ করা, রাস্তা ও নর্দমা পরিষ্কার করা এবং অসামাজিক কার্যকলাপ বন্ধ করার জন্য বিভিন্ন প্রকার সচেতনতামূলক কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে।

 

বিএম কন্টেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ডে হতাহতে নৌপরিবহণ প্রতিমন্ত্রীর শোক

 

ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন):

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম কন্টেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ডে হতাহতের ঘটনায় গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন নৌপরিবহণ প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

আজ এক শোকবার্তায় প্রতিমন্ত্রী নিহতদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। তিনি আহতদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন।

এ ঘটনায় পৃথক শোকবার্তায় নৌপরিবহণ সচিব মোঃ মোস্তফা কামালও শোক প্রকাশ করেন।

 

যৌক্তিক চিন্তাভাবনার জন্য শিশু-কিশোরদের প্রোগ্রামিং শিখতে হবে : ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী

ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন) :      

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, জ্ঞানভিত্তিক  ডিজিটাল সাম‌্যসমাজ প্রতিষ্ঠার জন‌্য উপযোগী মানবসম্পদ তৈরি করতেই হবে। এ লক্ষ‌্য অর্জনে শিশু-কিশোরদের মধ‌্যে ডিজিটাল প্রোগ্রামিং শিক্ষার প্রসার অপরিহার্য। যৌক্তিক চিন্তাভাবনার জন্য প্রোগ্রামিং শিখতে হবে। প্রোগ্রামিং বা কোডিং জানা থাকলে পৃথিবীর কোন কাজই কঠিন হবে না বলে মন্ত্রী মন্তব্য করেন।

মন্ত্রী  গতকাল রাজধানীর লালমাটিয়ায় ইএমকে সেন্টার ও বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের যৌথ উদ‌্যোগে আয়োজিত তিন দিনব‌্যাপী প্রাথমিক শিক্ষায় কোডিং বিষয়ে শিক্ষক প্রশিক্ষণের সমাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের প্রধান নির্বাহী সাংবাদিক মুনীর হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে শিক্ষাবিদ ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল, জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের প্রাথমিক শিক্ষাক্রম কমিটির সদস্য প্রফেসর ড. এ কে এম রিয়াজুল হাসান, সোয়াপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা পারভেজ হোসাইন এবং প্রশিক্ষণার্থী শিক্ষকদের পক্ষে বাংলাবাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ইসরাত জাহান বক্তৃতা করেন।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, ডিজিটাল যুগের জন‌্য দক্ষ‌ মানবসম্পদ তৈরি করতে না পারলে কাঙ্ক্ষিত বাংলাদেশ তৈরি করা যাবে না। সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে শিক্ষায় ডিজিটাল রূপান্তরের কাজ শুরু হয়েছে। দেশের ৬৫০টি প্রাথমিক বিদ‌্যালয়ে  ডিজিটাল শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হতে যাচ্ছে। প্রথম শ্রেণি থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত পাঠ‌্যক্রমের ডিজিটাল কন্টেন্ট তৈরি করা হয়েছে|  

ড. জাফর ইকবাল প্রশিক্ষণার্থীদের উদ্দেশ‌্যে বলেন, এই প্রশিক্ষণ কার্যক্রম প্রণয়নের মাধ্যমে আপনারা এমনভাবে প্রোগ্রামিং শেখানোর পদ্ধতি তৈরি করবেন, যেন শিক্ষার্থীদের প্রোগ্রামিং ভীতিটা গোড়া থেকেই দূর হয় এবং তারা বড় হয়ে সফটওয়্যারভিত্তিক জটিল সব সমস্যার সমাধান করতে পারে।   

 

সীতাকুণ্ডের অগ্নিকাণ্ডে হতাহতে এক কোটি টাকা বরাদ্দ

 

ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন):

 

গতকাল রাতে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম কন্টেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ডে হতাহত ও ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যার্থে মানবিক সহায়তা হিসেবে বিতরণের জন্য নগদ এক কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের দাফন-কাফন ও সৎকার এবং আহতদের চিকিৎসার্থে এ অর্থ ব্যয় করা হবে। এছাড়া অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের এক হাজার শুকনা ও অন্যান্য খাবারের প্যাকেট বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় থেকে আজ এ বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে।

 

Read us@googlenews

Social

More News
© Copyright: 2020-2022

Bangladesh Beyond is an online version of Fortnightly Apon Bichitra 

(Reg no: DA 1825)

Developed By Bangladesh Beyond