[Valid RSS]
October 1, 2022, 2:17 pm
Treanding
GIZ Bangladesh’s training held on SDG localisation in Khulna ছোটদের সহজ প্রোগ্রামিং শিক্ষায় প্রকাশিত হল বাংলা স্ক্র্যাচ বই Ditching Russian gas no way to reach climate goals : Putin চট্টগ্রামে নিরাপদ খাদ্য বিষয়ে প্রচারনা কর্মসূচি সমাপ্ত Samsung brings month-long smartphone campaign On September 6–7, Vladimir Putin will make working trip to Vladivostok Two Russian embassy workers killed in ‘suicide bombing’ Shocked & devastated by the horrific attacks : Justin Trudeau  SSC, equivalent exams begin Sept 15: Dipu Moni Ten killed in Canadian stabbing spree Russia wants UN to pressure US : media Daraz Bangladesh Anniversary Campaign – Now LIVE! realme offers upto BDT 3400 off on occasion of Daraz’s 8th anniversary General Pharmaceuticals employees will receive insurance from MetLife চট্টগ্রামের কলেজিয়েট স্কুলে নিরাপদ খাদ্য বিষয়ে প্রচারনা কর্মসূচি শুরু Bangladesh a secular country, immediate action is taken whenever minorities are attacked: PM  Two more mortar shells from Myanmar land in Bangladesh OPPO launches killer device A57 in 15-20K price range ShareTrip and Grameenphone join hands to offer exciting travel privileges ড্যাপ ২০২২-২০৩৫ এর পরিপূর্ণ বাস্তবায়নের দাবী বিআইপির

Huawei launches its largest-ever regional Seeds for the Future Program

Bangladesh Beyond
  • Updated on Saturday, August 20, 2022
  • 116 Impressed

Huawei launches its largest-ever regional Seeds for the Future Program

 

Dhaka August 20 2022 :

 

Huawei has launched Asia Pacific Seeds for the Future in collaboration with the ASEAN Foundation and Tourism Authority of Thailand (TAT) on August 19 to shape the future through inspiring digital talents.

The opening ceremony of the program was attended by distinguished guests, including Jurin Laksanawisit, Honorable Deputy Prime Minister and Minister of Commerce of Thailand; Dr. Dipu Moni, Honorable Minister, Ministry of Education of the People’s Republic of Bangladesh; Dato Lim Jock Hoi, Secretary-General, ASEAN; Dr. Yang Mee Eng Executive Director, ASEAN Foundation; Simon Lin, President of Huawei Asia Pacific; government officials; and representatives of multiple international organizations. Speakers at the event highlighted multi-party collaboration’s important role in creating a solid foundation for the region’s digital talent ecosystem.

This regional round program will bring together 120 outstanding students from 16 countries across the Asia Pacific region including eight students of Bangladesh for a 9-day digital boot camp in Thailand.

The participants will get immersed in technologies and cross-cultural experiences and propose technical solutions to address social problems through Tech4Good projects. 56 of the 120 participants this year are women, making the 2022 cohort the most gender-balanced in the region since the program was initiated in 2008.

Dr. Dipu Moni, Honorable Minister, Ministry of Education of Bangladesh, spoke on how digital talent can bridge historical gender gaps: “It is increasingly important that we include our female students in STEM-based learning and creates an equal opportunity for them to grow. Seeds for the Future seems very sincere about that.

We are excited to have five excellent female young professionals from Bangladesh joining the camp, and I believe their success will empower more women to contribute to Bangladesh’s digital economy.”

President of Huawei Asia Pacific, Simon Lin, reiterated Huawei’s commitment to talent development: “The ‘seeds’ represent hope, passion, and future. As the corporate-level flagship CSR project with the longest history, this program has been brought to nearly 140 countries and regions, reaching over 12,000 students from 500 universities.

The ‘Seeds’ have grown to a global ‘forest’.” “Digitalization is the driving force for our future. Talent is the key to digital transformation and sustainable growth. We deeply believe that the young generation will grow as the constructors of Asia Pacific when pursuing their tech dreams.” Simon Lin added.

The official start of the program was jointly announced by ASEAN Foundation’s Dr. Yang Mee Eng, TAT’s Deputy Governor for Digitization Research and Development Mr. Nithee Seeprae, Huawei Asia Pacific President Mr. Simon Lin and Huawei Thailand CEO Mr. Abel Deng.

From today, the students will embark on a cultural and digital journey filled with site visits, including the United Nations Regional Hub in Bangkok, the Metaverse Expo, and the Grand Palace in Bangkok. At the same time, the participants will be provided training in cutting-edge technologies like 5G, AI, and cloud computing from industry-leading experts.

During the digital camp, the participants will be expected to team up and create a “Tech4Good” pitch where they will share their visions for a better digital world. The winning teams will be given a place in an accelerator camp in Singapore that will be held from August 29 to September 4. This camp will allow them to meet top-notch entrepreneurs and investors, further develop their initiatives, and bring their ideas to the market.

Seeds for the Future is Huawei’s flagship Corporate Social Responsibility program, bringing together young talent from top universities worldwide. The program was launched in Thailand in 2008 to inspire ICT talent and encourage them to tackle social challenges with digital solutions. By the end of 2021, the program had been implemented in 137 countries and regions, reaching 12,000 students from over 500 universities.

 

 

সবচেয়ে বড় রিজিওনাল সিডস ফর দ্যা ফিউচার প্রোগ্রাম উদ্বোধন করলো হুয়াওয়ে

 

ঢাকা ২০ আগস্ট ২০২২ :

 

ডিজিটাল ক্ষেত্রে তরুণদের উৎসাহিত করে উন্নত ভবিষ্যৎ গঠনের লক্ষ্যে আসিয়ান ফাউন্ডেশন ট্যুরিজম অথোরিটি অব থাইল্যান্ডের (টিএটি) সাথে মিলিতভাবে ১৯ আগস্ট এশিয়া প্যাসিফিক সিডস ফর দ্যা ফিউচার ২০২২ উদ্বোধন করেছে হুয়াওয়ে। 

প্রোগ্রামের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন থাইল্যান্ডের মাননীয় উপপ্রধানমন্ত্রী বাণিজ্য মন্ত্রী জুরিন লাকসানাউইজিত, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী ডা. দীপু মনি, আসিয়ানের মহাসচিব দাতো লিম জক হই, আসিয়ান ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক ইয়াং মি এং, হুয়াওয়ে অ্যাসিয়া প্যাসিফিকের প্রেসিডেন্ট সাইমন লিন, এবং অন্যান্য সরকারি কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিগণ সহ সম্মানিত অতিথিবৃন্দ। বিভিন্ন পক্ষের অংশীদারিত্বে এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলে একটি শক্তিশালী ডিজিটাল ট্যালেন্ট ইকোসিস্টেম তৈরির ব্যাপারে অনুষ্ঠানে গুরুত্ব আরোপ করেন বক্তারা।  

১৯ থেকে আগস্ট ২৭ আগস্ট পর্যন্ত অনুষ্ঠিতব্য এই প্রোগ্রামে বাংলাদেশের আট জনসহ এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের ১৬টি দেশের ১২০ জন মেধাবী শিক্ষার্থী থাইল্যান্ডে একটি ডিজিটাল বুট ক্যাম্পে অংশগ্রহণ করবেন। এই বুট ক্যাম্পের মাধ্যমে অংশগ্রহণকারীরা প্রযুক্তিগত বিষয়ে জ্ঞান এবং আন্তঃসাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে অনন্য অভিজ্ঞতা অর্জন করবেন।

পাশাপাশি, তাঁরা টেকফরগুড প্রকল্পের মাধ্যমে বিভিন্ন সামাজিক সমস্যা সমাধানের প্রস্তাবও উপস্থাপন করবেন। বছর ১২০ জন অংশগ্রহণকারীর মধ্যে ৫৬ জন নারী। ২০০৮ সালে প্রোগ্রাম শুরু হওয়ার পরে, বছরই সবচেয়ে বেশি নারী অংশগ্রহণকারী প্রোগ্রামে অংশগ্রহণ করবেন।  

ডিজিটাল ট্যালেন্ট কীভাবে লৈঙ্গিক বৈষম্য দূর করতে ভূমিকা রাখতে পারে সেই বিষয়ে আলোকপাত করেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেন, “আমাদের নারী শিক্ষার্থীদের স্টেমভিত্তিক (STEM: সায়েন্স, প্রযুক্তি, প্রকৌশল, গণিত) শিক্ষায় অন্তর্ভুক্ত করার পাশাপাশি তাদের বিকাশে সমান সুযোগ তৈরি করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং এর প্রয়োজনীয়তা বেড়েই চলেছে। আর এক্ষেত্রে সিডস ফর দ্যা ফিউচার নিবেদিতভাবে কাজ করছে।

বাংলাদেশ থেকে পাঁচজন মেধাবী নারী এই ক্যাম্পে অংশগ্রহণ করছে। এজন্য আমরা আনন্দিত। আমার বিশ্বাস, তাদের সাফল্য বাংলাদেশের ডিজিটাল অর্থনীতিতে অবদান রাখতে আরও নারীদের ক্ষমতায়নে ভূমিকা রাখবে।”

মেধাবী তরুণদের বিকাশে হুয়াওয়ের প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করে হুয়াওয়ে এশিয়া প্যাসিফিকের প্রেসিডেন্ট সাইমন লিন বলেন, “সিডস’ প্রত্যাশা, আগ্রহ ও ভবিষ্যতকে তুলে ধরে। অনেকদিন ধরে চলতে থাকা এ করপোরেট ফ্ল্যাগশিপ সিএসআর প্রোগ্রামটি প্রায় ১৪০টি দেশ ও অঞ্চলে পরিচালিত হচ্ছে। এর মাধ্যমে ৫শ’টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১২ হাজার শিক্ষার্থীর কাছে পৌঁছানো হচ্ছে। ‘সিডস’ থেকে এ প্রোগ্রাম ‘গ্লোবাল ফরেস্ট’ -এ পরিণত হয়েছে।”

তিনি আরও বলেন, “ভবিষ্যতের মূল চালিকাশক্তি হচ্ছে ডিজিটালাইজেশন। দক্ষ তরুণরাই ডিজিটাল রূপান্তর ও টেকসই প্রবৃদ্ধির চাবিকাঠি। আমরা গভীরভাবে বিশ্বাস করি, এই তরুণ প্রজন্ম প্রযুক্তি ক্ষেত্রে তাদের স্বপ্ন পূরণের মাধ্যমে এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের স্থপতি হিসেবে নিজেদের গড়ে তুলবে।”

 প্রোগ্রামটি যৌথভাবে উদ্বোধন করেন আসিয়ান ফাউন্ডেশনের প্রধান নির্বাহী . ইয়াং মি এং, টিএটি ডিজিটাইজেশন রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের ডেপুটি গভর্নর নিথী সিপ্রে, হুয়াওয়ে এশিয়া প্যাসিফিকের প্রেসিডেন্ট সাইমন লিন এবং হুয়াওয়ে থাইল্যান্ডের প্রধান নির্বাহী আবেল ডেং। 

আজ থেকে সাইট ভিজিট সহ তাদের সাংস্কৃতিক ডিজিটাল যাত্রা শুরু হবে। সাইট ভিজিটের মধ্যে রয়েছে: ব্যাংককে জাতিসংঘের রিজিওনাল হাব, মেটাভার্স এক্সপো এবং ব্যাংককের গ্র্যান্ড প্যালেস। এর পাশাপাশি, খাতসংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞরা অংশগ্রহণকারীদের ফাইভজি, এআই ক্লাউড কম্পিউটিংএর মতো অত্যাধুনিক সব প্রযুক্তি নিয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান করবেন।

ডিজিটাল ক্যাম্প চলাকালীন অংশগ্রহণকারীরা দলে বিভক্ত হয়েটেকফরগুডনিয়ে ধারণা উপস্থপন করবেন, যেখানে তারা উন্নত বিশ্ব বিনির্মাণে তাদের ভাবনা তুলে ধরবেন। বিজয়ী দল সিঙ্গাপুরে ২৯ আগস্ট থেকে সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিতব্য অ্যাকসেলেরেটর ক্যাম্পে অংশগ্রহণ করবে। ক্যাম্পে তারা শীর্ষ পর্যায়ের উদ্যোক্তা বিনিয়োগকারীদের সাথে দেখা করতে পারবেন, তাদের উদ্যোগ বিস্তৃত করার সুযোগ পাবেন এবং সে উদ্যোগ বাস্তবায়নের মাধ্যমে বাজারে প্রবেশ করতে পারবেন।

হুয়াওয়ের ফ্ল্যাগশিপ করপোরেট সোশ্যাল রেসপন্সিবিলিটি প্রোগ্রাম সিডস ফর দ্যা ফিউচারে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় সব বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন।

আইসিটি ট্যালেন্ট তৈরিতে অনুপ্রাণিত করতে এবং বিষয়ে তরুণদের সমাজে বিদ্যামান নানা চ্যালেঞ্জের ডিজিটাল সমাধান নিয়ে কাজ করতে উৎসাহিত করতে ২০০৮ সালে থাইল্যান্ডে প্রোগ্রাম চালু করা হয়। প্রোগ্রামের মাধ্যমে ২০২১ সালের শেষ পর্যন্ত ১৩৭টি দেশ অঞ্চলে ৫শ বেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১২ হাজার শিক্ষার্থীর কাছে পৌঁছানো হয়েছে।

 

Read us@googlenews

Social

More News
© Copyright: 2020-2022

Bangladesh Beyond is an online version of Fortnightly Apon Bichitra 

(Reg no: DA 1825)

Developed By Bangladesh Beyond